শিরোনাম

প্রচ্ছদ কলাম

নামকরণের ইতিহাসের গল্প

শামীম-উন-বাছির | বৃহস্পতিবার, ০৪ জুলাই ২০১৯ | পড়া হয়েছে 697 বার

মধ্যযুগে সামন্তবাদী সমাজ ব্যবস্থার ফলে পরবর্তীতে বৃটিশ আমলে চিরস্থায়ী বন্দোবস্তের সমান্তরালে বাঙালির পদবীর বিকাশ ঘটেছে বলে মনে করা হয়।অধিকাংশ ব্যক্তি নামের শেষে একটি পদবী নামক পুচ্ছ যুক্ত হয়ে আছে। যেমন উপাধি, উপনাম কিংবা বংশসূচক নামকে সাধারণ ভাবে পদবী বলা হয়। বাঙালির জমি- জমা বিষয় সংক্রান্ত কিছু পদবী যেমন- হালদার, মজুমদার, তালুকদার, পোদ্দার, সরদার, প্রামাণিক, হাজরা, হাজারী, মন্ডল, মোড়ল, মল্লিক, সরকার, বিশ্বাস ইত্যাদি বংশ পদবীর রয়েছে হিন্দু -মুসলমান নির্বিশেষে সকল সম্প্রদায়ের একান্ত রূপ। বাঙালি মুসলমানের শিক্ষক পেশার পদবী হলো-খন্দকার, আকন্দ, নিয়াজী ইত্যাদি। আর বাঙালি হিন্দুর শিক্ষক পদবী হচ্ছে দ্বিবেদী, ত্রিবেদী, চর্তুবেদী ইত্যাদি। এবার আপনাদের জানাবো বাঙালির কিছু বিখ্যাত বংশ পদবীর ইতিহাস। যেমন-শিকদার, সৈয়দ, শেখ, মীর, মিঞা, মোল্লা, দাস, খন্দকার, আকন্দ, চৌধুরী, ভুইয়া, ...বিস্তারিত

মধ্যযুগে সামন্তবাদী সমাজ ব্যবস্থার ফলে পরবর্তীতে বৃটিশ আমলে চিরস্থায়ী বন্দোবস্তের সমান্তরালে বাঙালির পদবীর বিকাশ ঘটেছে বলে মনে করা হয়।অধিকাংশ ব্যক্তি নামের শেষে একটি পদবী নামক পুচ্ছ যুক্ত হয়ে আছে। যেমন উপাধি, উপনাম কিংবা বংশসূচক নামকে সাধারণ ভাবে পদবী বলা হয়। বাঙালির জমি- জমা বিষয় সংক্রান্ত কিছু পদবী যেমন- হালদার, মজুমদার, তালুকদার, পোদ্দার, সরদার, প্রামাণিক, হাজরা, হাজারী, মন্ডল, মোড়ল, মল্লিক, সরকার, বিশ্বাস ইত্যাদি বংশ পদবীর রয়েছে হিন্দু -মুসলমান নির্বিশেষে সকল সম্প্রদায়ের একান্ত রূপ। বাঙালি মুসলমানের শিক্ষক পেশার পদবী হলো-খন্দকার, আকন্দ, নিয়াজী ...বিস্তারিত

মধ্যযুগে সামন্তবাদী সমাজ ব্যবস্থার ফলে পরবর্তীতে বৃটিশ আমলে চিরস্থায়ী বন্দোবস্তের সমান্তরালে বাঙালির পদবীর বিকাশ ঘটেছে বলে মনে করা হয়।অধিকাংশ ব্যক্তি ...বিস্তারিত

ইসলামের দৃষ্টিতে সালাম

| রবিবার, ৩০ জুন ২০১৯ | পড়া হয়েছে 406 বার

ইসলাম পরিপূর্ণ মানব কল্যাণকর একটি পূর্ণাঙ্গ জীবন ব্যবস্থা। মানব জীবনের সকল কাজকর্মে ইসলাম সঠিক দিকনির্দেশনা প্রদান করেছে।মানবসমাজে সহমর্মিতা ও ভালবাসা সৃষ্টি করার উদ্দেশ্যে ইসলাম যেসমস্ত আচরণবিধির নির্দেশনা প্রদান করেছে 'সালাম ও মুসাফাহ ' তার মধ্যে অন্যতম। সালাম শব্দের অর্থ শান্তি। ইসলামের পরিভাষায় সালাম হচ্ছে এক বিশেষ দোয়া।যা একজন আরেকজনের সাথে সাক্ষাতকালে অভিবাদন হিসাবে বিনিময় হয়ে থাকে। ইসলাম পূর্ব আরবসমাজে অভিবাদন জানানোর জন্য ও তারা এমন কিছু বাক্য ব্যবহার করতো যা সালামের মতো এমন সুন্দর অর্থবহ ছিলনা। কিন্তু রাসুল( সা:) তাদের অর্থহীন বাক্য পরিহার করে ' আসসালামু আলাইকুম ওয়া রাহমাতুল্লাহ ' এর প্রচলন শুরু করেন। আল্লাহতায়ালা ও পবিত্র কোরআন শরিফে মুমিনদেরকে সালাম দেওয়ার নির্দেশ প্রদান করেছেন। সুরা আনআমের ৫৪ নং আয়াতে ...বিস্তারিত

ইসলাম পরিপূর্ণ মানব কল্যাণকর একটি পূর্ণাঙ্গ জীবন ব্যবস্থা। মানব জীবনের সকল কাজকর্মে ইসলাম সঠিক দিকনির্দেশনা প্রদান করেছে।মানবসমাজে সহমর্মিতা ও ভালবাসা সৃষ্টি করার উদ্দেশ্যে ইসলাম যেসমস্ত আচরণবিধির নির্দেশনা প্রদান করেছে 'সালাম ও মুসাফাহ ' তার মধ্যে অন্যতম। সালাম শব্দের অর্থ শান্তি। ইসলামের পরিভাষায় সালাম হচ্ছে এক বিশেষ দোয়া।যা একজন আরেকজনের সাথে সাক্ষাতকালে অভিবাদন হিসাবে বিনিময় হয়ে থাকে। ইসলাম পূর্ব আরবসমাজে অভিবাদন জানানোর জন্য ও তারা এমন কিছু বাক্য ব্যবহার করতো যা সালামের মতো এমন সুন্দর অর্থবহ ছিলনা। কিন্তু রাসুল( সা:) ...বিস্তারিত

ইসলাম পরিপূর্ণ মানব কল্যাণকর একটি পূর্ণাঙ্গ জীবন ব্যবস্থা। মানব জীবনের সকল কাজকর্মে ইসলাম সঠিক দিকনির্দেশনা প্রদান করেছে।মানবসমাজে সহমর্মিতা ও ...বিস্তারিত

সকল কাজ বিসমিল্লাহ দিয়ে শুরু করার ফযিলত

| শনিবার, ২২ জুন ২০১৯ | পড়া হয়েছে 489 বার

বিশ্বনবী মোহাম্মদ ( সা:) এক হাদীসে এরশাদ করেন, যেকোন গুরুত্বপূর্ণ কাজ আল্লাহ তায়ালার নামে শুরু করা না হলে সে কাজ অসম্পূর্ণ থেকে যায়। রাসুল( সা:) সকল গুরুত্বপূর্ণ কাজ ' বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহীম' দ্বারা শুরু করার তাকীদ করেছেন। বাহ্যত এটি একটি অত্যন্ত ছোট আমল। যা অনেক সময় অবহেলা করে এড়িয়ে যাওয়া হয়।বাহ্যত বিসমিল্লাহ ছোট একটি শব্দ হলে ও এর মূলে রয়েছে মারিফাত লাভে এক অনন্য প্রশিক্ষণ। হুজুর( সা:) প্রত্যেক কাজ আল্লাহর নামে শুরু করার শিক্ষা দিয়ে মানবজাতির প্রতিটি শাখায় আল্লাহর সাথে বান্দাহর নিবিড় সম্পর্কের কথা ই স্বরণ করিয়ে দিয়েছেন। মানুষ যখন তার সকল কাজ আল্লাহতায়ালার হুকুমের অধীনে বিশ্বাস করবে তখন বান্দাহর অন্তরে আল্লাহর দাসত্ব ও একাত্মবাদের চেতনা বৃদ্ধি পাবে এবং আল্লাহর নৈকট্য লাভে ...বিস্তারিত

বিশ্বনবী মোহাম্মদ ( সা:) এক হাদীসে এরশাদ করেন, যেকোন গুরুত্বপূর্ণ কাজ আল্লাহ তায়ালার নামে শুরু করা না হলে সে কাজ অসম্পূর্ণ থেকে যায়। রাসুল( সা:) সকল গুরুত্বপূর্ণ কাজ ' বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহীম' দ্বারা শুরু করার তাকীদ করেছেন। বাহ্যত এটি একটি অত্যন্ত ছোট আমল। যা অনেক সময় অবহেলা করে এড়িয়ে যাওয়া হয়।বাহ্যত বিসমিল্লাহ ছোট একটি শব্দ হলে ও এর মূলে রয়েছে মারিফাত লাভে এক অনন্য প্রশিক্ষণ। হুজুর( সা:) প্রত্যেক কাজ আল্লাহর নামে শুরু করার শিক্ষা দিয়ে মানবজাতির প্রতিটি শাখায় আল্লাহর সাথে বান্দাহর ...বিস্তারিত

বিশ্বনবী মোহাম্মদ ( সা:) এক হাদীসে এরশাদ করেন, যেকোন গুরুত্বপূর্ণ কাজ আল্লাহ তায়ালার নামে শুরু করা না হলে সে কাজ ...বিস্তারিত

আমার গ্রাম, আমার প্রাণ ॥ মোঃ বাহারুল ইসলাম মোল্লা ॥

| বৃহস্পতিবার, ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ | পড়া হয়েছে 577 বার

যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়ন যে একটি এলাকার মানুষের জীবনধারাকে বদলে দিতে পারে তার প্রকৃত উদাহরণ আমাদের গ্রাম পানিশ্বর। জেলার সরাইল উপজেলার মেঘনা-নদীর তীর ঘেষা গ্রাম এটি। আমার গ্রামটি আমার প্রাণ। আমার গ্রামকে আমি খুবই ভালোবাসি। আমাদের গ্রামের আগের নৈসর্গিক পরিবেশ এখন আর নেই। মেঘনা নদীর ক্রমাগত ভাঙ্গনে প্রতি বছরই বদলে যাচ্ছে পানিশ্বরের মানচিত্র। মেঘনার ভাঙ্গন এখনো অব্যাহত রয়েছে। ক্রমাগত ভাঙ্গনে ইতিমধ্যেই গ্রামের অনেকেই বসত-বাড়ি, ব্যবসা প্রতিষ্ঠান হারিয়ে নিঃস্ব হয়ে গেছেন। ইতিমধ্যেই নদী ভাঙ্গনে বিলীন হয়ে গেছে পানিশ্বর বাজার সংলগ্ন পালপাড়া। আমি অবিলম্বে মেঘনার ভাঙ্গন থেকে পানিশ্বরকে রক্ষার জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে দাবি জানাই। ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার একটি পুরাতন ও প্রসিদ্ধ বাজার হচ্ছে পানিশ্বর বাজার। ভাটি এলাকার এটি একটি বৃহৎ বাজার এটি। এক সময় ...বিস্তারিত

যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়ন যে একটি এলাকার মানুষের জীবনধারাকে বদলে দিতে পারে তার প্রকৃত উদাহরণ আমাদের গ্রাম পানিশ্বর। জেলার সরাইল উপজেলার মেঘনা-নদীর তীর ঘেষা গ্রাম এটি। আমার গ্রামটি আমার প্রাণ। আমার গ্রামকে আমি খুবই ভালোবাসি। আমাদের গ্রামের আগের নৈসর্গিক পরিবেশ এখন আর নেই। মেঘনা নদীর ক্রমাগত ভাঙ্গনে প্রতি বছরই বদলে যাচ্ছে পানিশ্বরের মানচিত্র। মেঘনার ভাঙ্গন এখনো অব্যাহত রয়েছে। ক্রমাগত ভাঙ্গনে ইতিমধ্যেই গ্রামের অনেকেই বসত-বাড়ি, ব্যবসা প্রতিষ্ঠান হারিয়ে নিঃস্ব হয়ে গেছেন। ইতিমধ্যেই নদী ভাঙ্গনে বিলীন হয়ে গেছে পানিশ্বর বাজার সংলগ্ন পালপাড়া। আমি অবিলম্বে ...বিস্তারিত

যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়ন যে একটি এলাকার মানুষের জীবনধারাকে বদলে দিতে পারে তার প্রকৃত উদাহরণ আমাদের গ্রাম পানিশ্বর। জেলার সরাইল উপজেলার ...বিস্তারিত

test

| শুক্রবার, ০৭ ডিসেম্বর ২০১৮ | পড়া হয়েছে 636 বার

২৭ নভেম্বর ব্রাহ্মণবাড়িয়ার ঐতিহাসিক জেলা আন্দোলন ও শহীদ ওবায়দুর রউফ পলু দিবস

মোঃ আবুল হাসনাত অপু | শনিবার, ২৪ নভেম্বর ২০১৮ | পড়া হয়েছে 786 বার

২৭ নভেম্বর বর্তমান ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলাবাসীর স্মরণীয় ঐতিহাসিক ৩৫তম জেলা আন্দোলন ও শহীদ ওবায়দুর রউফ পলু দিবস। আজ হতে ৩৫ বছর আগে বিগত ১৯৮৩ সালে সকল ধরণের প্রয়োজনীয় সরকারী প্রাতিষ্ঠানিক সুবিধা বঞ্চিত তৎকালীন মহকুমা সুর সম্রাট ওস্তাদ আলাউদ্দিন খাঁ’র স্মৃতিধন্য ব্রাহ্মণবাড়িয়াকে জেলা ঘোষণা করার জন্য তৎকালীন হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ সরকারের নিকট দাবী জানিয়ে সর্বদলীয় এবং সর্বস্তরের জনতার ঐক্যবদ্ধ আন্দোলন গড়ে উঠে। সর্বদলীয় জেলা আন্দোলন সংগ্রাম পরিষদের ব্যানারে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার মানুষ পালন করতে থাকে একের পর এক কর্মসূচী। আন্দোলন তীব্র গণআন্দোলনে রূপ নেয়ার পরও সেনা শাসকের সরকার দাবী মানায় নিরবতা পালন করায় জেল জুলুমকে উপেক্ষা করে চূড়ান্ত পর্বে ২৭ নভেম্বর ডাকা হয় অনির্দিষ্ট কালের হরতাল কর্মসূচী। আন্দোলনের তীব্রতায় অচল হয়ে যায় ব্রাহ্মণবাড়িয়া মহকুমা ...বিস্তারিত

২৭ নভেম্বর বর্তমান ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলাবাসীর স্মরণীয় ঐতিহাসিক ৩৫তম জেলা আন্দোলন ও শহীদ ওবায়দুর রউফ পলু দিবস। আজ হতে ৩৫ বছর আগে বিগত ১৯৮৩ সালে সকল ধরণের প্রয়োজনীয় সরকারী প্রাতিষ্ঠানিক সুবিধা বঞ্চিত তৎকালীন মহকুমা সুর সম্রাট ওস্তাদ আলাউদ্দিন খাঁ’র স্মৃতিধন্য ব্রাহ্মণবাড়িয়াকে জেলা ঘোষণা করার জন্য তৎকালীন হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ সরকারের নিকট দাবী জানিয়ে সর্বদলীয় এবং সর্বস্তরের জনতার ঐক্যবদ্ধ আন্দোলন গড়ে উঠে। সর্বদলীয় জেলা আন্দোলন সংগ্রাম পরিষদের ব্যানারে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার মানুষ পালন করতে থাকে একের পর এক কর্মসূচী। আন্দোলন তীব্র গণআন্দোলনে রূপ নেয়ার ...বিস্তারিত

২৭ নভেম্বর বর্তমান ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলাবাসীর স্মরণীয় ঐতিহাসিক ৩৫তম জেলা আন্দোলন ও শহীদ ওবায়দুর রউফ পলু দিবস। আজ হতে ৩৫ বছর ...বিস্তারিত

রাসুল (সা.) এর প্রিয় ঋতু

ইসলাম ডেস্ক : | রবিবার, ১১ নভেম্বর ২০১৮ | পড়া হয়েছে 953 বার

মানুষের রুচির ভিন্নতায় ঋতুপ্রেমেও রয়েছে বৈচিত্র্য। কারো কাছে রিমঝিম বর্ষা খুব প্রিয়। আবার কারো কাছে কাঠপোড়া রোদের গ্রীষ্ম বেশ মানানসই। কুয়াশার মিহি চাদরে মোড়ানো শীতকালও অনেকের ভীষণ ভালো লাগার। কোনো ঋতুর প্রতি রাসুল (সা.) এর বিশেষ অনুরাগ ছিল কিনা, তা হাদিসের গ্রন্থগুলোতে স্পষ্টভাবে আসেনি। তবে হাদিসে শীতকালীন রাতে আমলের বিশেষ মর্যাদার কথা বর্ণিত হয়েছে। আবু সাঈদ খুদরি (রা.) থেকে বর্ণিত হাদিসে রাসুল (সা.) বলেন, শীতকাল হচ্ছে মুমিনের বসন্তকাল। (মুসনাদে আহমাদ, হাদিস নং: ১১৬৫৬) অন্য হাদিসে এসেছে, শীতের রাত দীর্ঘ হওয়ায় মোমিন রাত্রিকালীন নফল নামাজ আদায় করতে পারে এবং দিন ছোট হওয়ায় রোজা রাখতে পারে। (বায়হাকি, হাদিস নং: ৩৯৪০) প্রখ্যাত সাহাবি আবদুল্লাহ ইবনে মাসউদ (রা.) বলতেন, শীতকালকে স্বাগতম। কেননা তা বরকত বয়ে আনে। শীতের ...বিস্তারিত

মানুষের রুচির ভিন্নতায় ঋতুপ্রেমেও রয়েছে বৈচিত্র্য। কারো কাছে রিমঝিম বর্ষা খুব প্রিয়। আবার কারো কাছে কাঠপোড়া রোদের গ্রীষ্ম বেশ মানানসই। কুয়াশার মিহি চাদরে মোড়ানো শীতকালও অনেকের ভীষণ ভালো লাগার। কোনো ঋতুর প্রতি রাসুল (সা.) এর বিশেষ অনুরাগ ছিল কিনা, তা হাদিসের গ্রন্থগুলোতে স্পষ্টভাবে আসেনি। তবে হাদিসে শীতকালীন রাতে আমলের বিশেষ মর্যাদার কথা বর্ণিত হয়েছে। আবু সাঈদ খুদরি (রা.) থেকে বর্ণিত হাদিসে রাসুল (সা.) বলেন, শীতকাল হচ্ছে মুমিনের বসন্তকাল। (মুসনাদে আহমাদ, হাদিস নং: ১১৬৫৬) অন্য হাদিসে এসেছে, শীতের রাত দীর্ঘ হওয়ায় মোমিন রাত্রিকালীন ...বিস্তারিত

মানুষের রুচির ভিন্নতায় ঋতুপ্রেমেও রয়েছে বৈচিত্র্য। কারো কাছে রিমঝিম বর্ষা খুব প্রিয়। আবার কারো কাছে কাঠপোড়া রোদের গ্রীষ্ম বেশ মানানসই। ...বিস্তারিত

ব্রাহ্মণবাড়িয়া ও আমার স্বপ্ন

মোকতাদির চৌধুরী এমপি | রবিবার, ১৪ অক্টোবর ২০১৮ | পড়া হয়েছে 951 বার

আমি সত্যি অভিভূত, প্রীত। ব্রাহ্মণবাড়িয়ার মা, মাটি ও মানুষের ভালোবাসায় মুগ্ধ। মানুষের মমতা, স্নেহ ভালোবাসা আমাকে কাজে প্রতিশ্রুত করেছে। আমি নতুন এক ব্রাহ্মণবাড়িয়ার স্বপ্ন দেখি। যে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার শান্তি সম্প্রীতি সমৃদ্ধ, উন্নয়ন এবং নিরাপদ হবে এবং সমস্ত দেশের জন্য হবে আদর্শ। তাই এ এলাকার মানুষের সুখ দুখের ভাগ নিতে চাই। আমি মনে প্রাণে বিশ্বাস করি, এই ব্রাহ্মণবাড়িয়া মহতি মানুষের জন্মভূমি। এই মাটিতে ব্যারিস্টার আব্দুর রসুলের জন্ম, ওস্তাদ আলাউদ্দীন খাঁর মতো মহান ব্যক্তিত্ব, শহীদ ধীরেন্দ্রনাথ দত্তের মতো গুণী মানুষেরা এই এলাকায় জন্মেছেন। আল্লামা তাজুল ইসলামের পবিত্র ভূমি ব্রাহ্মণবাড়িয়া। বরেণ্য মানুষেরা বেড়ে ওঠেছেন ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আলো-বাতাসে। সেই রত্নগর্ভা শহরের মানুষদের বন্ধু হতে পেরে আমি ধন্য, অভিভূত এবং এ জনপদের মানুষের অকৃত্রিম ভালোবাসায় কৃতজ্ঞ। আমার স্মৃতির সবুজ ...বিস্তারিত

আমি সত্যি অভিভূত, প্রীত। ব্রাহ্মণবাড়িয়ার মা, মাটি ও মানুষের ভালোবাসায় মুগ্ধ। মানুষের মমতা, স্নেহ ভালোবাসা আমাকে কাজে প্রতিশ্রুত করেছে। আমি নতুন এক ব্রাহ্মণবাড়িয়ার স্বপ্ন দেখি। যে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার শান্তি সম্প্রীতি সমৃদ্ধ, উন্নয়ন এবং নিরাপদ হবে এবং সমস্ত দেশের জন্য হবে আদর্শ। তাই এ এলাকার মানুষের সুখ দুখের ভাগ নিতে চাই। আমি মনে প্রাণে বিশ্বাস করি, এই ব্রাহ্মণবাড়িয়া মহতি মানুষের জন্মভূমি। এই মাটিতে ব্যারিস্টার আব্দুর রসুলের জন্ম, ওস্তাদ আলাউদ্দীন খাঁর মতো মহান ব্যক্তিত্ব, শহীদ ধীরেন্দ্রনাথ দত্তের মতো গুণী মানুষেরা এই এলাকায় জন্মেছেন। আল্লামা ...বিস্তারিত

আমি সত্যি অভিভূত, প্রীত। ব্রাহ্মণবাড়িয়ার মা, মাটি ও মানুষের ভালোবাসায় মুগ্ধ। মানুষের মমতা, স্নেহ ভালোবাসা আমাকে কাজে প্রতিশ্রুত করেছে। আমি ...বিস্তারিত

সুদ জঘন্যতম অমার্জনীয় পাপ

মুফতী মোহাম্মদ এনামুল হাসান | শনিবার, ৩০ জুন ২০১৮ | পড়া হয়েছে 834 বার

যে সমস্ত বিষয়াদি অত্যন্ত কঠোর ভাবে নিষিদ্ধ করেছে তার মধ্যে সূদ অন্যতম। সূদকে আরবিতে রিবা বলা হয়।এর অর্থ অতিরিক্ত, সম্প্রসারণ ইত্যাদি। ইসলামী পরিভাষায় মূল সম্পদের এক জাতীয় কিছু হাতে হাতে লেনদেন করে সময়কে উপলক্ষ করে কিছু অতিরিক্ত গ্রহণ করা।প্রদেয় কিছু ঋন হিসেবে গ্রহণের সময় মূলের অতিরিক্ত নেওয়াকে সুদ বলা হয়। আল্লাহতায়ালা সুদ নিষিদ্ধ করে বলেছেন, আল্লাহতায়ালা ক্রয় বিক্রয়কে হালাল করেছেন আর সুদকে হারাম করেছেন। রাসুল(সা:) বলেন,যার গোশত সুদের দ্বারা বর্ধিত হলো তার জন্য জাহান্নাম ই হলো যথাযথ বাসস্থল। সূদ প্রসঙ্গে ইসলামের অবস্থান অত্যন্ত কঠোর। এ ব্যাপারে আল্লাহ তা‘আলা বলেন, ‘হে মুমিনগণ! তোমরা আল্লাহকে ভয় করো এবং সূদের যে অংশ বাকী আছে তা ছেড়ে দাও, যদি তোমরা প্রকৃত মুমিন হও। যদি তোমরা তা ...বিস্তারিত

যে সমস্ত বিষয়াদি অত্যন্ত কঠোর ভাবে নিষিদ্ধ করেছে তার মধ্যে সূদ অন্যতম। সূদকে আরবিতে রিবা বলা হয়।এর অর্থ অতিরিক্ত, সম্প্রসারণ ইত্যাদি। ইসলামী পরিভাষায় মূল সম্পদের এক জাতীয় কিছু হাতে হাতে লেনদেন করে সময়কে উপলক্ষ করে কিছু অতিরিক্ত গ্রহণ করা।প্রদেয় কিছু ঋন হিসেবে গ্রহণের সময় মূলের অতিরিক্ত নেওয়াকে সুদ বলা হয়। আল্লাহতায়ালা সুদ নিষিদ্ধ করে বলেছেন, আল্লাহতায়ালা ক্রয় বিক্রয়কে হালাল করেছেন আর সুদকে হারাম করেছেন। রাসুল(সা:) বলেন,যার গোশত সুদের দ্বারা বর্ধিত হলো তার জন্য জাহান্নাম ই হলো যথাযথ বাসস্থল। সূদ প্রসঙ্গে ইসলামের অবস্থান ...বিস্তারিত

যে সমস্ত বিষয়াদি অত্যন্ত কঠোর ভাবে নিষিদ্ধ করেছে তার মধ্যে সূদ অন্যতম। সূদকে আরবিতে রিবা বলা হয়।এর অর্থ অতিরিক্ত, ...বিস্তারিত

ইসলামী শিক্ষা ও বিধিবিধান চর্চার মাধ্যমে মাদক নির্মূল করা সম্ভব

মুফতী মোহাম্মদ এনামুল হাসান | বুধবার, ২৭ জুন ২০১৮ | পড়া হয়েছে 1089 বার

আজ মানবসভ্যতার চরম শত্রু হয়ে দাড়িয়েছে মাদক। মাদকের ভয়াল থাবায় আজ ক্ষতবিক্ষত হচ্ছে যুবসম্প্রদায়। তছনছ হয়ে যাচ্ছে অসংখ্য পরিবার। চুরি, ডাকাতি, হত্যা, ধর্ষন সহ সকল কিছু ই হচ্ছে মাদকের জন্য। মাদকসেবীরা তাদের অর্থ জোগান দিতে এমন কোন অন্যায় ও গর্হিত কাজ নেই যে, তারা করছেনা। আমরা মুসলমান। আমাদের ধর্ম ইসলাম। আর ইসলাম হচ্ছে সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ ধর্ম। তাই আমাদের উচিৎ ইসলাম কি বলে সে অনুযায়ী নিজেদের জীবন পরিচালনা করা। আর এটাই ঈমানের দাবি। ইসলাম মানব কল্যাণময় এক ধর্ম। আজকের পৃথিবীতে মাদকের ছড়াছড়ি তে নিশ্চিহ্ন হয়ে মানব সভ্যতা এ লক্ষ্যকে সামনে রেখে আজ থেকে চৌদ্দশত বৎসর পূর্বে ই ইসলাম মাদকের কুফল সম্পর্কে স্পষ্ট ঘোষণা প্রদান করেছে। মাদকদ্রব্যের আরবি প্রতিশব্দ হচ্ছে 'খমর '। যে ...বিস্তারিত

আজ মানবসভ্যতার চরম শত্রু হয়ে দাড়িয়েছে মাদক। মাদকের ভয়াল থাবায় আজ ক্ষতবিক্ষত হচ্ছে যুবসম্প্রদায়। তছনছ হয়ে যাচ্ছে অসংখ্য পরিবার। চুরি, ডাকাতি, হত্যা, ধর্ষন সহ সকল কিছু ই হচ্ছে মাদকের জন্য। মাদকসেবীরা তাদের অর্থ জোগান দিতে এমন কোন অন্যায় ও গর্হিত কাজ নেই যে, তারা করছেনা। আমরা মুসলমান। আমাদের ধর্ম ইসলাম। আর ইসলাম হচ্ছে সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ ধর্ম। তাই আমাদের উচিৎ ইসলাম কি বলে সে অনুযায়ী নিজেদের জীবন পরিচালনা করা। আর এটাই ঈমানের দাবি। ইসলাম মানব কল্যাণময় এক ধর্ম। আজকের পৃথিবীতে মাদকের ছড়াছড়ি তে ...বিস্তারিত

আজ মানবসভ্যতার চরম শত্রু হয়ে দাড়িয়েছে মাদক। মাদকের ভয়াল থাবায় আজ ক্ষতবিক্ষত হচ্ছে যুবসম্প্রদায়। তছনছ হয়ে যাচ্ছে অসংখ্য পরিবার। চুরি, ...বিস্তারিত

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০