শিরোনাম

৭৬ দিন ধরে হাসপাতালে মৎস্য ও প্রাণীসম্পদ মন্ত্রী অ্যাডভোকেট ছায়েদুল হক

বিশেষ প্রতিনিধি : | মঙ্গলবার, ২১ নভেম্বর ২০১৭ | পড়া হয়েছে 287 বার

৭৬ দিন ধরে হাসপাতালে মৎস্য ও প্রাণীসম্পদ মন্ত্রী অ্যাডভোকেট ছায়েদুল হক

দীর্ঘ দুই মাসের বেশি সময় ধরে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন মৎস্য ও প্রাণীসম্পদ মন্ত্রী অ্যাডভোকেট মোঃ ছায়েদুল হক এম.পি। তিনি দীর্ঘদিন ধরে হার্ট, মূত্রথলিসহ নানা সমস্যায় ভুগছেন। বর্তমানে তিনি হাসপাতালের কেবিন ব্লুকের ২১১ নম্বরে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।
হাসপাতাল সূত্রমতে, মূত্রথলিতে মাংস বৃদ্ধির কারণে গত সেপ্টেম্বর ১৫ তারিখে বিএসএমএমইউতে ভর্তি হন তিনি। এর পরে তার ব্রেইন স্টোক হলে তার শরীর প্যারালাইসিস হয়ে পড়ে। সে সময় তাকে সিসিইউতে স্থানান্তর করা হয়। এরপরে তার হার্টের সমস্যাও ধরা পড়ে। বর্তমানের ছায়েদুল হকের শারীরিক অবস্থা আগের তুলনায় উন্নতি হয়েছে। তবে ব্রেইন স্টোকের পরে এখনো তার শরীরের অর্ধেক অংশ প্রায় প্যারালাইসড অবস্থায় রয়েছে। তিনি এখন হাত নাড়াতে পারেন ও আস্তে আস্তে কথা বলতে পারেন। হাত-পা সচল করার জন্য তাকে এখন ফিজিওথেরাপি দেয়া হচ্ছে। তবে পুরোপুরি সুস্থ হতে আরো মাস খানেক সময় লাগবে বলে জানা যায়। সূত্রমতে, আরো জানা যায়, প্রতিদিন বিকেলে তাকে ধরে ধরে হাঁটানোর চেষ্টা করা হচ্ছে। হাসপাতালে মন্ত্রীর সার্বক্ষণিক দেখাশোনার জন্য রয়েছে তার এপিএস ও মন্ত্রণালয়ের এক কর্মকর্তা। এ ছাড়া প্রায় প্রতিদিনই তার এলাকার লোকজন খোঁজখবর নিতে আসছেন।
ভর্তির সময় তিনি মেডিসিন বিভাগের ডিন অধ্যাপক এ বি এম আবদুল্লার অধীনে ভর্তি হন। এর পরে তাকে কার্ডিওলজি বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. সজল ব্যানার্জির অধীনে রেফার্ড করা হয়।
মন্ত্রীর চিকিৎসার বিষয়ে খোঁজ নিতে ডা. সজল ব্যানার্জীকে একাধিকবার ফোন করা হলেও তিনি রিসিভ করেননি। অ্যাডভোকেট ছায়েদুল হক ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নাসিরনগর উপজেলা আওয়ামী লীগের প্রবীণ রাজনীতিবিদ। এ ছাড়া তিনি ব্রাহ্মণবাড়িয়া-১ নাসিরনগর আসন থেকে পর পর পাঁচবারের নির্বাচিত সংসদ সদস্য। বর্তমানে তিনি মৎস্য ও প্রাণীসম্পদ মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী। দৈনিক ভোরের কাগজ


আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০৩১