শিরোনাম

৫ দিনের ব্যবধানে আখাউড়ায় মহিলা আওয়ামী লীগের পৃথক দুই কমিটি

আখাউড়া প্রতিনিধি : | বুধবার, ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ | পড়া হয়েছে 157 বার

৫ দিনের ব্যবধানে আখাউড়ায় মহিলা আওয়ামী লীগের পৃথক দুই কমিটি

আখাউড়ায় ৫ দিনের ব্যবধানে পৃথক দু’টি মহিলা আওয়ামী লীগের কমিটি অনুমোদন দিয়েছে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা মহিলা আওয়ামী লীগ। একটি কমিটি অনুমোদন দেয় জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মিনারা আলম এবং যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এড. আলেয়া চৌধুরী। এই কমিটিতে মঞ্জুয়ারা বেগমকে সভাপতি এবং কাজী রাশেদা আক্তার রত্মাকে সাধারণ সম্পাদক মনোনীত করে ৫১ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি ঘোষণা করা হয়। অপরদিকে, জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এড. তাসলিমা সুলতানা খানম নিশাত এককভাবে আরেকটি কমিটি অনুমোদন দিয়েছেন। ওই কমিটিতে মঞ্জুয়ারা বেগমকে সভাপতি এবং পিয়ারা বেগম পিওনাকে সাধারণ সম্পাদক করা হয়েছে।

এদিকে, আখাউড়া মহিলা আওয়ামী লীগের দু’টি কমিটি ঘোষণা হওয়ায় নেতা কর্মীদের মাঝে বিভ্রান্তি সৃষ্টি হয়েছে। নতুন করে দেখা দিয়েছে দলীয় কোন্দল। জানা গেছে, ২০১৫ সনের ১০ নভেম্বর আখাউড়া উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সর্বশেষ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। সম্মেলনে সাধারণ সম্পাদক পদে কাজী রাশেদা আক্তার রতœা পায় ৯ ভোট এবং পিয়ারা বেগম পিওনা পায় ১ ভোট। কিন্তু জেলা কমিটি ওই সভায় কমিটি ঘোষণা না করে পরবর্তীতে কমিটি দেয়া হবে জানিয়ে সভা মুলতবি করে দেন। এরপরে দুই বছর আর কোন সম্মেলন হয়নি। ওই সম্মেলনের প্রায় তিন বছর পর হঠাৎ গত ২৮ জানুয়ারী জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মিনারা আলম এবং যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এড. আলেয়া চৌধুরী যৌথ স্বাক্ষরে একটি কমিটি অনুমোদন দেন। এর ৩ দিন পর জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এড. তাসলিমা সুলতানা খানম নিশাত ৫১ সদস্যের আরেকটি কমিটি অনুমোদন দেন। কমিটি পৃথক হলেও তবে উভয় কমিটিতে সভাপতি পদে রয়েছেন মঞ্জুয়ারা বেগম এবং অন্যান্য পদেও প্রায় একই নেত্রী কর্মী রয়েছেন। শুধু সাধারণ স¤পাদক পদে অমিল।


জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ঘোষিত কমিটির সাধারণ সম্পাদক শিক্ষিকা কাজী রাশেদা আক্তার রত্মা বলেন, আমি সম্মলনে ৯ ভোট পেয়েছিলাম। আমার প্রতিদ্বন্দ্বি পিয়ারা বেগম পেয়েছিল মাত্র ১ ভোট। কিন্তু কী কারণে তখন কমিটি ঘোষণা করা হয়নি। ৩ বছর পর হঠাৎ করে জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক কীভাবে ১ ভোট পাওয়া প্রার্থীকে সাধারণ সম্পাদক করে কমিটি ঘোষণা করলো বুঝতে পারছি না। পিয়ারা বেগম পিওনা বলেন, দলের সর্ব সম্মতিক্রমে আমাকে সাধারণ সম্পাদক করা হয়েছে। কোন অনিয়ম হয়নি।

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০৩১