শিরোনাম

বিনাশুল্কে

২২০ মেট্রিকটন ভোজ্য তেল ত্রিপুরায় যাচ্ছে

স্টাফ রিপোর্টার : | বৃহস্পতিবার, ৩০ নভেম্বর ২০১৭ | পড়া হয়েছে 514 বার

২২০ মেট্রিকটন ভোজ্য তেল ত্রিপুরায় যাচ্ছে

ইন্দিরা-মুজিব নৌ প্রটোকল চুক্তির আওতায় আজ বৃহস্পতিবার (৩০.১১.২০১৭) থেকে আখাউড়া স্থল বন্দর দিয়ে ভোজ্য তেল যাচ্ছে ভারতের উত্তর-পূর্বাঞ্চলের ত্রিপুরা রাজ্যের আগরতলায়।
আশুগঞ্জ নৌ বন্দরের পরিদর্শক মো. শাহআলম বলেন, পরীক্ষামূলকভাবে ভারতের পশ্চিমবঙ্গের হলদিয়া নদীবন্দর থেকে ১২ নভেম্বর দুপুরে ইমামী এগ্রোটেক লিঃ প্রায় দেড় কোটি টাকার ২২০ মেট্রিকটন এডিবল অয়েল (ভোজ্য তেল) নিয়ে ছেড়ে আসে ভারতীয় জাহাজ এমভি শান্তিপুর।
বিভিন্ন এলাকা অতিক্রম করে রোববার বিকেলে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার আশুগঞ্জ নৌবন্দরে নোংগর করে জাহাজটি। ভারতীয় সোহাম কমার্শিয়াল এ তেলের ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান।
বুধবার (২৯.১১.২০১৭) সকালে ভারতীয় রপ্তানিকারক ও আমদানিকারকসহ বাংলাদেশের কাস্টমস কর্তৃপক্ষের উপস্থিতিতে জাহাজটির সিলগালা খোলা হয়। পরে সব আনুষ্ঠানিকতা শেষ করে আজ বৃহস্পতিবার সকালে আশুগঞ্জ থেকে আখাউড়া স্থল বন্দরের উদ্দেশ্যে রওনা দেয় জাহাজটি।
শাহআলম আরও জানান, বাংলাদেশের লোডিং ঠিকাদার আদনান ট্রেড ইন্টারন্যাশনাল জাহাজ থেকে পণ্য খালাস করে ভারতের আগরতলায় পৌঁছে দেয়ার কাজ করছেন। বাংলাদেশের ভেতর দিয়ে ভারতীয় পণ্য পরিবহনের ক্ষেত্রে প্রতি টনে ল্যান্ডিং ফি, ভয়েজ পারমিশন ফি ও লেবারচার্জ বাবদ ১৯২ টাকা মাসুল দেয়া হচ্ছে।
আখাউড়া স্থল বন্দরের সহকারী রাজস্ব কর্মকর্তা লক্ষণ চন্দ্র ভৌমিক জানান, আজ বৃহস্পতিবার দুপুর সাড়ে ১২টায় দু’টি ট্রাক ভর্তি ২৭.৬২ মেট্রিকটন ভোজ্য তেল আখাউড়া স্থলবন্দর ত্যাগ করে আগরতলা ইন্টিগ্রেটেড স্থল বন্দরে পৌঁছেছে।
শুক্রবার ছাড়া পর্যায়ক্রমে প্রতিদিনই আগরতলায় আসবে এ তেল। আর এজন্যে কাস্টমসের কোনোরূপ শুল্ক আদায় করা হচ্ছে না। তবে আশুগঞ্জ বন্দরে ল্যান্ডিং চার্জ এবং স্কট চার্জসহ সামান্য মাসুল আদায় করা হচ্ছে।
এর আগে নৌপ্রটোকল চুক্তির আওতায় আশুগঞ্জ নৌবন্দর দিয়ে পালাটানা বিদ্যুৎ কেন্দ্রের যন্ত্রপাতি, রড, চাল ত্রিপুরায় গেছে।


আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০