শিরোনাম

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ১৪ দলের সভায় বক্তারা

হেফাজত নেতা সাজিদুর রহমান এবং মোবারক উল্লাহকে গ্রেপ্তারের দাবি

স্টাফ রিপোর্টার | বৃহস্পতিবার, ২৯ এপ্রিল ২০২১ | পড়া হয়েছে 162 বার

হেফাজত নেতা সাজিদুর রহমান এবং মোবারক উল্লাহকে গ্রেপ্তারের দাবি

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় গত ২৬ থেকে ২৮ মার্চ পর্যন্ত হেফাজতের নারকীয় তান্ডবের প্রতিবাদে বৃহস্পতিবার ২৯শে এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ ১৪ দলীয় এক সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার বেলা ১১ টায় শহরের হালদারপাড়াস্থ জেলা আওয়ামী লীগের কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত সভায় সভাপতিত্ব করেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও ১৪ দলের সমন্বয়ক, যুদ্ধাহত বীর মুক্তিযোদ্ধা আল মামুন সরকার।

সভায় অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি যুদ্ধাহত বীর মুক্তিযোদ্ধা র.আ.ম উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী এমপি।


বক্তব্য রাখেন জেলা জাসদের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা অ্যাডভোকেট আখতার হোসেন সাঈদ, জেলা ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি অ্যাডভোকেট কাজী মাসুদ আহমেদ, জেলা ওয়ার্কার্স পার্টির সদস্য অ্যাডভোকেট নাসির।

সভায় বক্তাগণ বলেন, হেফাজত নেতারা তাদের তান্ডব নিয়ে বার বার মিথ্যাচার করলেও জামিয়া ইসলামিয়া ইউনুছিয়া মাদ্রাসা থেকে ২০ জন ছাত্রকে বহিষ্কারের মধ্য দিয়ে তাদের কৃত অপরাধের দায় স্বীকার করে নিয়েছেন। বক্তারা বলেন, গত ২৬,২৭,২৮ মার্চে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় সংগঠিত হেফাজতের সকল তান্ডব ও অগ্নিসংযোগের দায় হরতাল আহবানকারী জেলা হেফাজত নেতৃবৃন্দের। তাই জেলা হেফাজতের মূখ্য নেতা সাজিদুর রহমান ও মোবারক উল্লাহকে গ্রেপ্তারের দাবি জানান।

সভায় ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌর জাসদ শাখার সভাপতি মিজানুর রহমান আঙ্গুর প্রকাশ আঙ্গুর মৃধা ও তার জামাতা জসিম উদ্দিন বাচ্চুকে হেফাজতের ঘটনায় পুলিশবাদী মামলায় আসামী করায় ক্ষোভ প্রকাশ করে বলা হয়, ব্রাহ্মণবাড়িয়া হেফাজতের তান্ডবে ঘটনাকে ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করে প্রকৃত অপরাধীদেরকে আড়াল করার জন্যই তাদেরকে আসামী করা হয়েছে। এ ঘটনায় সভায় নিন্দা ও প্রতিবাদ জানানো হয়। সভায় ভিডিও ফুটেজ দেখে এবং অতীতের কর্মকান্ড বিশ্লেষণ করে প্রকৃত অপরাধীদেরকে আইনে আওতায় আনার দাবি জানানো হয়। প্রেস বিজ্ঞপ্তি)

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০৩১