শিরোনাম

হাজার হাজার জনতার স্বতস্ফূর্ত স্বাগত ভালোবাসায় সিক্ত হলেন মোকতাদির চৌধুরী

| মঙ্গলবার, ২৭ নভেম্বর ২০১৮ | পড়া হয়েছে 183 বার

হাজার হাজার জনতার স্বতস্ফূর্ত স্বাগত ভালোবাসায় সিক্ত হলেন মোকতাদির চৌধুরী

হাজার হাজার জনতার স্বতস্ফূর্ত স্বাগত ভালোবাসায় সিক্ত হলেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর-৩ আসনে আওয়ামীলীগের মনোনয়প্রাপ্ত কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগের নির্বাহী সদস্য, জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি, বীর মুক্তিযোদ্ধা, বিশিষ্ট লেখক, ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় উন্নয়নের রূপকার জননেতা র আ ম উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী এমপি।

আজ ২৭ নভেম্বর মঙ্গলবার সকালে ব্রাহ্মণবাড়িয়া রেলস্টেশনে এক আবেগময় পরিবেশে তাকে ভালোবাসা জানায় দলীয় নেতাকর্মী ও সাধারণ মানুষ।


মঙ্গলবার সকালে ঢাকা থেকে মহানগর প্রভাতী ট্রেনে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় আসেন তিনি। ট্রেন থেকে নামার পরই আওয়ামীলীগ,অঙ্গ সহযোগী সংগঠন, বীর মুক্তিযোদ্ধাগণ, বিভিন্ন সামাজিক, সাংস্কৃতিক, ব্যবসায়িক সংগঠনের নেতাকর্মীরা আনন্দের বাঁধভাঙ্গা উচ্ছাস নিয়ে ফুলেল শুভেচ্ছা দিয়ে প্রিয় নেতাকে স্বাগত জানায়।

এ সময় জয় বাংলা শ্লোগান আর নৌকার জয়ধ্বনীতে মুখরিত হয়ে উঠে পুরো রেলস্টেশন এলাকা। সাধারণ যাত্রীরাও এসময় উচ্ছসিত জনতার সাথে কন্ঠ মেলান এবং প্রিয় নেতাকে একনজর দেখার জন্য এগিয়ে আসেন। এরপর জননেতা উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী জনতার সাথে নিয়াজ মুহাম্মদ স্কুল এলাকায় শহীদ মিনারে গিয়ে ভাষা শহীদ ও মুক্তিযুদ্ধের সকল শহীদকে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান এবং মেনাজাতে অংশ নেন। এর আগে তিনি জনতার কাছে দোয়া ও সহযোগিতা কামনা করেন। ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা আল মামুন সরকার বলেন,জননেতা উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী বিগত কয়েকবছরে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় অভাবনীয় উন্নয়ন করেছেন। তার কঠোর অবস্থানের কারণেই ব্রাহ্মণবাড়িয়া আজ সন্ত্রাস-মাদক-টেন্ডারবাজদের আধিপত্যমুক্ত এক নিরাপদ এলাকা। শিক্ষা বিস্তারে তার অসামান্য অবদানে এখানকার মানুষ তুমুলভাবে উচ্ছসিত। রাস্তা-ঘাট-ব্রীজ-কালভার্ট সহ অবকাঠামোগত উন্নয়নে তিনি সকল রেকর্ড ছাড়িয়ে গেছেন। তাঁর নেতৃত্বে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় রাজনৈতিক অঙ্গনে শান্তির সুবাতাস বইছে। তাই জননেতা উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরীর মনোনয়ন পাওয়ার পর ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় আগমনে হাজার হাজার মানুষ তাকে স্বাগত জানাতে স্বতস্ফূর্তভাবে রেলস্টেশনে জমায়েত হয়েছে। জনতার এমন আনন্দের জোয়ার দেখে আমরাও উচ্ছসিত হয়েছি।

এ সময় অন্যান্যের মাঝে উপস্থিত ছিলেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা আল মামুন সরকার,সহসভাপতি তাজ মো.ইয়াছিন,সহ-সভাপতি পৌর মেয়র মিসেস নায়ার কবীর মো.হেলাল উদ্দিন,মুজিবুর রহমান বাবুল,জাতীয় পরিষদ সদস্য আবুল কালাম ভূঞা, যুগ্ম-সম্পাদক মাহবুবুল বারী চৌধুরী মন্টু,গোলাম মহিউদ্দিন খোকন, সাংগঠনিক সম্পাদক এড.মাহবুবুল আলম খোকন,শাহআলম সরকার,প্রচার সম্পাদক সৈয়দ নজরুল ইসলাম,দপ্তর সম্পাদক তানজিন আহমেদ,আইন সম্পাদক এড.তাজুল ইসলাম খান,ত্রাণ সম্পাদক শেখ মো.আনার,শিল্প-বানিজ্য সম্পাদক শাহআলম,শ্রম সম্পাদক শেখ মো.মহসিন,কৃষি সম্পাদক চৌধুরী আফজাল হোসেন নেসার, যুব ক্রীড়া সম্পাদক সৈয়দ এহতেশামুল বারী তানজিল,ধর্ম সম্পাদক হাফেজ জাকির হোসেন,উপপ্রচার সম্পাদক স্বপন রায়, উপদপ্তর সম্পাদক মো.মনির হোসেন,জেলা আওয়ামীলীগের কার্যকরী পরিষদের সদস্যবৃন্দ,সদর উপজেলা সভাপতি হাবিবুল্লাহ বাহার,সাধারণ সম্পাদক উপজেলা চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর আলম,পৌর সভাপতি মুসলিম মিয়া,সাধারণ সম্পাদক রফিকুল ইসলাম,সরাইল উপজেলা আহবায়ক এড.নাজমুল হোসেন,বিজয়নগর উপজেলা সভাপতি জহিরুল ইসলাম ভূঞা জেলা মহিলা আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. তাসলিমা সুলতানা খানম নিশাত, জেলা যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম ফেরদৌস,জেলা কৃষকলীগ সভাপতি সাদেকুর রহমান শরীফ, জেলা শ্রমিকলীগ সাধারণ সম্পাদক আবদুল মালেক চৌধুরী, জেলা যুব মহিলালীগ সভাপতি রাবেয়া খাতুন রাখী, সাধারণ সম্পাদক আলম তারা দুলি,জেলা তাঁতীলীগ সভাপতি আসাদুজ্জামান, সাধারণ সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন দুলাল, জেলা ছাত্রলীগ সভাপতি রবিউল হোসেন রুবেল, সাধারণ সম্পাদক শাহাদাত হোসেন শোভন,সদর ও বিজয়নগর উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের চেয়ারম্যানগণ, পৌরসভার কাউন্সিলরবৃন্দ।

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০৩১