শিরোনাম

ব্রাহ্মণবাড়িয়াটুয়েন্টি ফোর ডটকম

হজ ফ্লাইট ৪ আগস্ট শুরু

ডেস্ক ২৪ :: | বুধবার, ০৮ জুন ২০১৬ | পড়া হয়েছে 774 বার

হজ ফ্লাইট ৪ আগস্ট শুরু

 

 


এ বছর পবিত্র হজ পালনের জন্য সৌদি আরবের উদ্দেশ্যে বাংলাদেশ থেকে হজযাত্রী নিয়ে প্রথম হজফ্লাইট শুরু হবে ৪ আগস্ট। শেষ হবে আগামী ৫ সেপ্টেম্বর। বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স ও সৌদি এরাবিয়ান এয়ারলাইন্স যৌথভাবে হজযাত্রী পরিবহণ করবে।

বিমান পরিবহন ও পর্যটনমন্ত্রী রাশেদ খান মেনন মঙ্গলবার সচিবালয়ে চলতি বছর হজযাত্রা নিয়ে আন্তঃমন্ত্রণালয়ের এক সভা শেষে সাংবাদিকদের একথা বলেন।

বিমানমন্ত্রী আরো বলেন, ‘আগামী ১৭ সেপ্টেম্বর থেকে হজের ফিরতি ফ্লাইট শুরু হবে, শেষ হবে ১৬ অক্টোবর। অন্যান্য বছরের মতো এবারও বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স এবং সৌদি এরাবিয়ান এয়ারলাইন্স মোট হজযাত্রীর অর্ধেক বহন করবে।’

তিনি বলেন, ‘বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স সৌদি আরবের জেনারেল অথরিটি অব সিভিল এভিয়েশন থেকে ইতোমধ্যে ১১২টি ডেডিকেটেড (শুধু হজযাত্রী পরিবহন) ও ৩২টি সিডিউল ফ্লাইটে ৫২ হাজার ৬৪ জন হজযাত্রী বহনের অনুমতি পেয়েছে। একইভাবে হজ শেষে ১০৫টি ডেডিকেটেড ফিরতি ফ্লাইট ও ২৯টি সিডিউল ফ্লাইটে হাজী পরিবহনের অনুমতি পেয়েছে।’ তাছাড়া বাকী হজযাত্রী পরিবহন করবে সৌদি এয়ারলাইন্স।

বিমানমন্ত্রী বলেন, ‘এ বছর বাংলাদেশ থেকে ১ লাখ ১ হাজার ৭৫৮ জন হজ পালন করতে পারবেন। এর বাইরে আরো ৫ হাজার হজযাত্রী বিবেচনাধীন রয়েছেন। সৌদি সরকারকে এই বাড়তি হজযাত্রীর অনুমোদনের জন্য বলা হয়েছে। বিষয়টি জুন মাসের মধ্যে জানা যাবে। এবার সৌদি সরকারের সঙ্গে চুক্তি অনুযায়ী প্রত্যেক ফ্লাইটে তিনজন মোয়াল্লেমের অধীনে ৫০ জন করে হজযাত্রী যেতে পারবেন।’

গত বছরের মতো এবারও হাজীদের পবিত্র জমজমের পানি বহন করে আনতে হবে না জানিয়ে মেনন বলেন, ‘আগের মতো পবিত্র জমজমের পানি এবারও দেশে নিয়ে আসা হবে। হজযাত্রীরা যখন ফেরত আসবেন তখন তাদের হাতে জমজমের পানি পৌঁছে দেওয়া হবে, তাদের এ পানি বহন করে নিয়ে আসতে হবে না।’

মন্ত্রী বলেন, ‘গতবছর ছোটখাট সমস্যা ছাড়া হজ পালনে আমরা সুনাম অর্জন করেছি। এবারও আমরা সেটা করতে চাই। আশা করছি, প্রতিবারের মতো এবারও সুষ্ঠুভাবে হজ সম্পন্ন হবে।’

বিমানের কার্যক্রমের বিষয়ে হজযাত্রীদের অবহিত করতে একটি ভিডিওচিত্র তৈরি করা হচ্ছে বলে জানান রাশেদ খান মেনন। তিনি বলেন, ‘তথ্য ও ধর্ম মন্ত্রণালয়ের সহযোগিতায় বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ এ ভিডিওটি তৈরি করছে।’

বিমান মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে আন্তঃবৈঠকে সভাপতিত্ব করেন বিমান পরিবহণ ও পর্যটনমন্ত্রী রাশেদ খান মেনন। উপস্থিত ছিলেন ধর্মমন্ত্রী অধ্যক্ষ মো. মতিউর রহমান, বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের সচিব এস এম গোলাম ফারুক, ধর্ম মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. আব্দুল জলিল, সিভিল এভিয়েশন চেয়ারম্যান এহসানুল গণি চৌধুরী, বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) এ এম মোসাদ্দিক আহমেদ, সৌদি এয়ারলাইন্সের নির্বাহী ওমর খাইয়াম, এসোসিয়েশন অব ট্রাভেল এজেন্টস অব বাংলাদেশ (আটাব)- এর মহাসচিব আসলাম খান, হজ এজেন্সিস এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (হার)- এর সভাপতি ইব্রাহিম বাহার উপস্থিত ছিলেন।

সৌদি আরবের সঙ্গে চুক্তি অনুযায়ী, এবার বাংলাদেশ থেকে বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ৯১ হাজার ৭৫৮ জন এবং সরকারি ব্যবস্থাপনায় ১০ হাজার মানুষ হজে যেতে পারবেন।

মন্ত্রিসভা গত ১১ জানুয়ারি যে হজ প্যাকেজ অনুমোদন করেছে, তাতে এবার সরকারি ব্যবস্থাপনায় কোরবানিসহ প্যাকেজে ৩ লাখ ৬০ হাজার ২৮ টাকা এবং কোরবানি ছাড়া প্যাকেজে ৩ লাখ ৪ হাজার ৯০৩ টাকা খরচ হবে।

আর বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় মূল খরচ ধরা হয়েছে ১ লাখ ৫৫ হাজার ৪৪১ টাকা। এর সঙ্গে খাওয়া-বাড়ি ভাড়া যোগ করে এজেন্টরা প্যাকেজ ঠিক করবে।

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০