শিরোনাম

সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত চেয়ারম্যানের জানাযা ও দাফন সম্পন্ন

নাসিরনগর ব্রাহ্মণবাড়িয়া : | বৃহস্পতিবার, ০৬ এপ্রিল ২০১৭ | পড়া হয়েছে 378 বার

সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত চেয়ারম্যানের জানাযা ও দাফন সম্পন্ন

ব্রাহ্মণবাড়িয়া সড়ক দুঘর্টনায় নিহত জেলার নাসিরনগর উপজেলার ভলাকুট ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এস.এম বাকি বিল্লাহ্রে (জুয়েল) (৩২) জানাযা ও দাফন সম্পন্ন হয়েছে। জানা গেছে, গত ৪এপ্রিল রোজ মঙ্গলবার রাত সাড়ে দশ ঘটিকার সময় আশুগঞ্জ থেকে মোটর সাইকেল যোগে চেয়ারম্যান জুয়েল, তার বন্ধু ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা ছাত্র দলের যুগ্ন আহবায়ক শিমরাইল কান্দি গ্রামের হাবিবুর রহমানের ছেলে রনি ভূইয়া ও খাগালিয়া গ্রামের মোঃ শাহ আলম মিয়াকে নিয়ে নাসিরনগরের উদ্দেশ্যে রওনা দেয়।

সরাইল শান্তিনগর এলাকায় আসা মাত্রই বিপরীত দিক থেকে আসা একটি মাল বোঝাই ট্রাক তাদের চাপা দেয়। ঘটনাস্থলেই দুজনের মৃত্যু হয় বলে জানান স্থানীয়রা। মূমুর্ষ অবস্থায় শাহ আলমকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এস.এম বাকি বিল্লাহ জুয়েল বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ নাসিরনগর উপজেলা শাখার সহ সাংগঠনিক সম্পাদক ছিলেন। তিনি বাংলাদেশের ১ম সর্ব কনিষ্ঠ চেয়ারম্যান। ২০১১ সালে এস.এম বাকি বিল্লাহ্ জুয়েল চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। তার বাবা মৃত ধনু মিয়া মাস্টার ও মা হেনা বেগম দুই জনই ছিলেন এলাকার সুনামধন্য চেয়ারম্যান। ধনু মিয়া ১৯৯৪ সাল থেকে ২০০২ সাল পর্যন্ত ভলাকুট ইউপির চেয়ারম্যান ছিলেন। তিনি সন্ত্রাসীদের হাতে গভীর রাতে নিজ বাড়িতে খুন হন। ২০০৪ হতে ২০১১ সাল পর্যন্ত তার স্ত্রী হেনা বেগম অত্র ইউপির চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। বুধবার বেলা তিন ঘটিকায় স্থানীয় ঈদগাহ ময়দানে জানযা শেষে পারিবারিক কবর স্থানে চেয়ারম্যান এস.এম বাকি বিল্লাহ্ জুয়ের দাফন সম্পন্ন হয়। প্রচন্ড বৃষ্টি উপেক্ষা করে জানাযায় জমে উপচে পড়া মানুষের ভীড়। তার জানাযা নাসিরনগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ লিয়াকত আলী, নাসিরনগর থানার অফিসার ইনর্চাজ মোঃ আবু জাফর, জেলা পরিষদ সদস্য মোঃ আসাদুজ্জামান চৌধুরী, আওয়ামীলীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ, সাংবাদিক, এলাকার গণ্যমান্য, রাজনৈতিক ব্যক্তিবর্গরা সহ সর্বস্তরের লোকজন উপস্থিত ছিলেন। তার অকাল মৃত্যুতে এলাকায় নেমে আসে শোকের ছায়া।


আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০