শিরোনাম

আশুগঞ্জ-পলাশ এগ্রো ইরিগেশন প্রকল্পের সেচ সুবিধা ঠিক রেখে

সড়ক উন্নয়নের দাবিতে আশুগঞ্জে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত

আশুগঞ্জ প্রতিনিধি | মঙ্গলবার, ২৯ ডিসেম্বর ২০২০ | পড়া হয়েছে 82 বার

সড়ক উন্নয়নের দাবিতে আশুগঞ্জে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জে দেশের ব্যতিক্রমী ও কম খরচের “আশুগঞ্জ-পলাশ এগ্রো ইরিগেশন প্রকল্পের সেচ সুবিধা ঠিক রেখে মহাসড়ক উন্নয়নের দাবিতে বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টি ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা শাখার উদ্যোগে মানববন্ধন পালিত হয়।

মঙ্গলবার ২৯শে ডিসেম্বর, ২০২০ বেলা ১১টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের আশুগঞ্জ গোলচত্বরে এই মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।


মানববন্ধন চলাকালে জেলা ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি অ্যাডভোকেট কাজী মাসুদ আহমেদের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ জাসদের সাংগঠনিক সম্পাদক হোসাইন মোঃ তফছির, জেলা ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক কমরেড আবু সাঈদ খান, জাতীয় শ্রমিক ফেডারেশন, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সাধারণ সম্পাদক কমরেড নজরুল ইসলাম, জেলা যুবমৈত্রীর সভাপতি অ্যাডভোকেট মোঃ নাছির, আশুগঞ্জ উপজেলা ওয়াকার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক দ্বিজেন ঘোষ ও উপজেলা ওয়াকার্স পার্টির সদস্য কাজী তানবীর মাহমুদ প্রমুখ।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, চলমান আশুগঞ্জ নদী বন্দর-আখাউড়া স্থলবন্দর পর্যন্ত মহাসড়ক ফোরলেনে উন্নীতকরণ কাজ শুরু হওয়ায় আশুগঞ্জ রেলগেইট এলাকায় সেচ প্রকল্পের প্রধান কুলিং রিজার্ভারের বৃহৎ অংশ ভরাট করে ফেলায় আশুগঞ্জ-পলাশ এগ্রো ইরিগেশন সেচ প্রকল্পের আওতায় জেলার আশুগঞ্জ, সদর, সরাইল ও নবীনগর উপজেলার ৩৪ হাজার হেক্টর জমির সেচ সুবিধা ব্যাহত হওয়ার আশংকা দেখা দিয়েছে।

বক্তারা বলেন, জ্বালানী সাশ্রয়ী ও পরিবেশ বান্ধব এই সেচ প্রকল্প থেকে প্রতি বছর ৭০ হাজার মেট্রিক টন ধান উৎপাদন হয়। কিন্তু চলতি বছর পিডিবির একটি পুকুর যেটি রিজার্ভার হিসেবে ব্যবহৃত হয়ে আসছে তার বৃহৎ অংশ ভরাট করে ফেলায় এবং সড়কের চারলেনের কার্যক্রম চলায় সড়কের বোরোপিট ক্যানেল ভরাট হয়ে যাওয়ায় চলতি বছর সেচ কার্যক্রম অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে। এতে ৩৫ হাজার কৃষক পরিবার ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার পাশাপাশি ৭০ হাজার মেট্রিক টন খাদ্য উৎপাদন ব্যাহত হওয়ার উপক্রম হয়েছে।

বক্তারা দ্রুত সমন্বিত উদ্যোগ গ্রহণের সেচ প্রকল্প চালু রাখার দাবি জানান। বক্তারা বলেন, কোন কারনে বা কারো গাফিলতির কারনে যদি সেচ সুবিধা বিঘ্নিত হয় তাহলে ক্ষতিগ্রস্থ কৃষকরা সড়ক-মহাসড়ক অবরোধ সহ যে কোন কঠোর কর্মসূচী দিতে বাধ্য হবে। এর দায়-দায়িত্ব সরকারকেই নিতে হবে। বক্তারা একই দাবিতে আগামী ৩ জানুয়ারি ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের সরাইল উপজেলার শান্তিনগরে কৃষক সমাবেশের কর্মসূচী ঘোষনা করেন।
মানববন্ধনে স্থানীয় কৃষক ও কৃষি শ্রমিকেরা অংশ নেন।

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০৩১