শিরোনাম

স্বপ্না হত্যার সঠিক তথ্য দাতাকে পুরস্কার ঘোষণা

নবীনগর প্রতিনিধি : | রবিবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০১৭ | পড়া হয়েছে 125 বার

স্বপ্না হত্যার সঠিক তথ্য দাতাকে পুরস্কার ঘোষণা

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নবীনগর উপজেলা আওয়ামী লীগের মহিলা বিষয়ক সম্পাদক স্বপ্না আক্তারকে হত্যার ১১ দিন পেরিয়ে গেলেও হত্যাকাণ্ডের প্রকৃত রহস্য উদঘাটন করতে পারেনি পুলিশ। হত্যাকাণ্ডে জড়িতদের গ্রেফতারে স্থানীয় সংসদ সদস্য ফয়জুর রহমান বাদলের ৭২ ঘণ্টার আল্টিমেটাম দেয়ার পর পুলিশ এখন পর্যন্ত তিনজনকে গ্রেফতার করতে পেরেছে। এদের মধ্যে দু’জন স্বপ্নার ভাইয়ের করা হত্যা মামলার এজহারভুক্ত আসামি।
এ অবস্থায় চাঞ্চল্যকর এ হত্যাকাণ্ডের সাথে জড়িতদের সম্পর্কে তথ্য চেয়ে পুলিশ দুই লাখ টাকা পুরস্কার ঘোষণা করেছে ।
নবীনগর উপজেলার জিনোদপুর ইউনিয়নের চারপাড়া গ্রামে নিহত স্বপ্নার বাড়িতে গিয়ে জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (নবীনগর সার্কেল) চিত্তরঞ্জন পাল এক লাখ টাকা ও নবীনগর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আসলাম সিকদার এক লাখ টাকা পুরস্কার ঘোষণা করেন।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (নবীনগর সার্কেল) চিত্তরঞ্জন পাল বলেন, ইতোমধ্যে এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় আমরা তিনজনকে গ্রেফতার করেছি। হত্যাকাণ্ডের সাথে জড়িতদের সম্পর্কে কেউ যদি সঠিক তথ্য দিতে পারেন তাহলে তাকে পুরস্কৃত করা হবে। পাশাপাশি তথ্যদাতার নাম গোপন রাখা হবে বলেও জানান।


এদিকে নবীনগর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আসলাম সিকদার বলেন, আমরা গ্রেফতারদের কাছ থেকে পাওয়া তথ্যমতে তদন্ত কাজ চালিয়ে যাচ্ছি। খুব শীঘ্রই এ হত্যাকাণ্ডের রহস্যের উদঘাটন হবে।

উল্লেখ্য, গত ২২ নভেম্বর রাত ৯টার দিকে নবীনগর উপজেলার বাঙ্গরা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনে আওয়ামী লীগ নেত্রী স্বপ্নাকে মাথায় গুলি ও ছুরিকাঘাত করে হত্যা করে মরদেহ ফেলে রাখে দুর্বৃত্তরা। এ ঘটনায় ঐ দিন রাতে স্বপ্নার ভাই আমির হোসেন নবীনগর থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

মামলার এজাহারে উল্লেখ তাদের সাথে স্বপ্নার রাজনৈতিক ও ব্যক্তিগত বিরোধ ছিল বলে অভিযোগ করা হয়। মামলার পর পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদের জন্য জাহাঙ্গীর নামে এক সিএনজি অটোরিক্সা চালককে আটক করে। এরপর ২৫ নভেম্বর রাতে আবু জাহের ও সাঈদ নামে দু’জনকে আটক করে হত্যা মামলায় গ্রেফতার দেখায় পুলিশ।

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১