শিরোনাম

সু-চির পুরস্কার প্রত্যাহার করল অ্যামনেস্টি

অনলাইন ডেস্ক : | মঙ্গলবার, ১৩ নভেম্বর ২০১৮ | পড়া হয়েছে 171 বার

সু-চির পুরস্কার প্রত্যাহার করল অ্যামনেস্টি

মিয়ানমারের নেত্রী অং সান সু-চিকে দেওয়া অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনালের সর্বোচ্চ সম্মানসূচক পুরস্কার ‘ইন্টারন্যাশনাল অ্যাম্বাসাডর অব কন্সসিয়েন্স অ্যাওয়ার্ড’ প্রত্যাহার করে নিয়েছে সংস্থাটি। মানবাধিকার নিয়ে কাজ করা আন্তর্জাতিক এ সংস্থা এক চিঠিতে সু-চিকে বিষয়টি জানিয়ে দিয়েছে। এতে বলা হয়েছে, ‘এক সময় যে মূল্যবোধের পক্ষে তিনি কাজ করেছেন, তা থেকে লজ্জাজনকভাবে মুখ ঘুরিয়ে নেওয়া’য় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। খবর সিএনএনের।

গত ১১ নভেম্বর রবিবার অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনালের মহাসচিব কুমি নাইদো সু-চিকে চিঠিটি পাঠান। এতে তিনি লেখেন, আজ গভীর দুঃখের সাথে জানাচ্ছি, আপনি এখন আর আশা, সাহস ও মানবাধিকার রক্ষার প্রতিভূর প্রতীক নেই।’ এরপর তিনি বলেন, ‘অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল আপনাকে আর অ্যাম্বাসাডর অব কন্সসিয়েন্স (বিবেকের দূত) পুরস্কারের মর্যাদার যোগ্য মনে করছে না। ফলে অত্যন্ত দুঃখের সঙ্গে আপনার কাছ থেকে এটি প্রত্যাহার করা হচ্ছে।’ ২০০৯ সালে তাকে এ পুরস্কারে ভূষিত করা হয়।


এদিকে, সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে নিজ দেশে জনগণের মানবাধিকার রক্ষায় রাজনৈতিক ও নৈতিক সমর্থন দিতে ব্যর্থ হওয়ায় অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল সু-চির কড়া সমালোচনা করেছে। বলা হয়েছে, সংখ্যালঘু অধ্যুষিত এলাকায় সেনাবাহিনীর নৃশংসতা ও মতপ্রকাশের স্বাধীনতা নিয়ে বেড়ে চলা অসহিষ্ণুতার বিরুদ্ধে তিনি দাঁড়াতে ব্যর্থ হয়েছেন।

মিয়ানমার সেনবাহিনীর জাতিগত নিধনের মুখে জীবন বাঁচাতে বাংলাদেশে আশ্রয় নেয় ১১ লাখের বেশি রোহিঙ্গা। এ নিয়ে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় দেশটির ওপর চরম চাপ সৃষ্টি করে। এর আগে এ ইস্যুতে তার কিছু আন্তর্জাতিক সম্মান ও পুরস্কার প্রত্যাহার করে নেওয়া হয়েছে। এবার সেই পথেই হাঁটল অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল।

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১