শিরোনাম

মোকতাদির চৌধুরী এমপি

সুহিলপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ ও অঙ্গ-সহযোগী সংগঠনের কর্মীসভায়

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি | শুক্রবার, ০৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৬ | পড়া হয়েছে 661 বার

সুহিলপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ ও অঙ্গ-সহযোগী সংগঠনের কর্মীসভায়

আগামী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে সদর উপজেলার প্রতিটি ইউনিয়নে আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থীদেরকে নৌকা মার্কায় ভোট দিয়ে বিজয়ী করার আহবান জানিয়ে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের কার্য নির্বাহী কমিটির সদস্য, বিশিষ্ট লেখক, মুক্তিযোদ্ধা,পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটি ও জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি র.আ.ম. উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী এম.পি বলেছেন, আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে প্রত্যেক ইউনিয়নে দল থেকে একক প্রার্থী মনোনয়ন দেওয়া হবে। দলীয় প্রার্থীকে সবাই ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করে বিজয়ী করতে হবে। কেউ দলীয় প্রার্থীর বিরুদ্ধাচরণ করলে তার বিরুদ্ধে দলীয় সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
তিনি গতকাল বৃহস্পতিবার বিকেলে সদর উপজেলার সুহিলপুর খেলার মাঠে সুহিলপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ ও অঙ্গ-সহযোগী সংগঠনের কর্মী সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে একথা বলেন।
ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি মিজবাহুল হকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত কর্মী সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মোকতাদির চৌধুরী এম.পি আরো বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ দ্রæত এগিয়ে যাচ্ছে। দেশের প্রতিটি সেক্টরে উন্নয়ন হয়েছে। তিনি বলেন, দেশব্যাপী ব্যাপক উন্নয়নের কারনেই বিভিন্ন দল থেকে লোকজন আওয়ামীলীগে যোগদান করছেন। তিনি বলেন, যখনই আওয়ামীলীগ ক্ষমতায় আসে তখনি দেশের উন্নয়ন হয়। অন্যরা ক্ষমতায় গেলে নিজেদের ভাগ্যের উন্নয়ন করে। তিনি বর্তমান সরকারের আমলে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ব্যাপক উন্নয়নের ফিরিস্তি তুলে ধরে বলেন, ব্যাপক উন্নয়ন কর্মকান্ডের ফলে দেশে এখন নৌকা মার্কার জোয়ার উঠেছে।
মোকতাদির চৌধুরী এম.পি আরো বলেন, বর্তমান সরকার নারীর উন্নয়নে বিভিন্ন কর্মসূচী বাস্তবায়ন করছে। নারী শিক্ষা প্রসারে সরকার উপবৃত্তি দিচ্ছে। ফলে নারীরা শিক্ষিত হচ্ছে। সরকার নারীদের জন্য বয়স্ক ভাতা, বিধবা ভাতা চালু করেছে। তিনি বলেন, সরকার বছরের প্রথম দিন প্রত্যেক শিক্ষার্থীর হাতে বিনামূল্যে বই তুলে দিচ্ছে। অনুকুল পরিবেশ পেয়ে দেশে এখন শিক্ষিতের হার বাড়ছে। তিনি বলেন, গত ১২ জানুয়ারি দিনভর ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় যারা তান্ডব চালিয়ে দেশের সম্পদ নষ্ট করেছে তাদের মধ্যে দেশপ্রেম নেই। তিনি বলেন, আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনকে সামনে রেখে দল শক্তিশালীকে শক্তিশালী  করতে হবে।  নির্বাচনে ঐক্যবদ্ধভাবে দলীয় প্রার্থীকে বিজয়ী করতে হবে।
কর্মী সমাবেশে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আল মামুন সরকার, সহ-সভাপতি হাজী তাজ মোহাম্মদ ইয়াছিন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহাবুবুল বারী চৌধুরী মন্টু, জাতীয় পরিষদ সদস্য আবুল কালাম ভূইয়া, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি হাবিবুল্ল¬াহ বাহার, সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও সদর উপজেলা চেয়ারম্যান মোঃ জাহাঙ্গীর আলম। উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক শাহ আলম সরকার,  সদর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মোঃ মহসিন মিয়া, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান অ্যাডঃ তাসলিমা সুলতানা খানম নিশাত, জেলা আওয়ামীলীগের উপ দপ্তর সম্পাদক মনির হোসেন, জেলা যুবলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি অ্যাডঃ শাহানুর ইসলাম, জেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম ফেরদৌস, সদর উপজেলা আওয়ামী যুবলীগের সভাপতি মোঃ আলী আজম, সিনিয়র সহ-সভাপতি মোঃ আজাদ হাজারী আঙ্গুর, সাংগঠনিক সম্পাদক মহসিন খন্দকার, সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ হুমায়ুন কবীর, মোঃ জাহাঙ্গীর কবীর খান দুলাল, জেলা যুবলীগের স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক মোঃ আব্দুল কুদ্দুস, মোঃ আব্দুর রশিদ। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের দপ্তর সম্পাদক সামসুল হক মিল্লাত।


আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০