শিরোনাম

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সাদা মনের মানুষ

সাংবাদিক মুহম্মদ মুসা আর নেই

স্টাফ রিপোর্টার | রবিবার, ০৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯ | পড়া হয়েছে 152 বার

সাংবাদিক মুহম্মদ মুসা আর নেই

ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌর এলাকার দক্ষিণ মৌড়াইলের বাসিন্দা, ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি, ব্রাহ্মণবাড়িয়া সরকারি কলেজ ছাত্র সংসদের সাবেক ভিপি, বিশিষ্ট লেখক, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার গবেষক ও ভাষা সৈনিক মুহম্মদ মুসা ইন্তেকাল করেছেন (ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)।

গত শনিবার ভোর রাত ৪টায় দক্ষিণ মৌড়াইলের বাসভবনে তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৮৪ বছর। তিনি স্ত্রী, একমাত্র কন্যা সহ অসংখ্য আত্মীয়-স্বজন ও গুনগ্রাহী রেখে যান। তিনি বার্ধক্যজনিত রোগে ভুগছিলেন। তার মৃত্যুতে শহরে শোকের ছায়া নেমে আসে।


শনিবার বাদ আছর স্থানীয় নিয়াজ মুহম্মদ উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে মরহুমের নামাজে জানাজা শেষে দক্ষিণ মৌড়াইল পারিবারিক কবরস্থানে তার লাশ দাফন করা হয়।
নামাজের জানাযায় সংক্ষিপ্ত আলোচনা সভায় তাঁর কর্মময় জীবনের উপর আলোচনা করেন, জেলা প্রশাসক হায়াত-উদ-দৌলা খাঁন, পুলিশ সুপার মোহাম্মদ আনিসুর রহমান, ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেসক্লাবের সভাপতি খ.আ.ম রশিদুল ইসলাম, ব্রাহ্মণবাড়িয়া সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ মোঃ আবু হানিফ, জেলা বিএনপি’র সভাপতি হাফিজুর রহমান মোল্লা কচি, জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি মোঃ হেলাল উদ্দিন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক গোলাম মহিউদ্দিন খান খোকন, নিয়াজ মুহম্মদ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ সাহিদুল ইসলাম, ব্রাহ্মণবাড়িয়া টেলিভিশন জার্নালিস্ট এসোসিয়েশনের সভাপতি মনজুরুল আলম প্রমুখ। এর আগে বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও পেশাজীবী সংগঠনের পক্ষ থেকে মরহুমের কফিনে পুষ্পস্তবক অর্পন করে শেষ শ্রদ্ধা জানানো হয়।
এদিকে সকালে মুহম্মদ মুসার মৃত্যুর খবর পেয়ে ভোর থেকেই সাংবাদিক, বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ, নিয়াজ মুহম্মদ উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থীসহ সমাজের বিভিন্ন স্তরের মানুষ মরহুমের বাড়িতে ছুটে যান তাঁর প্রতি শেষ শ্রদ্ধা জানাতে।

মুহম্মদ মুসা স্থানীয় নিয়াজ মুহম্মদ উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষক ছিলেন। পাশাপাশি তিনি অধুনালুপ্ত দৈনিক বাংলার জেলা প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করতেন। ৫২’র ভাষা আন্দোলন চলাকালে তিনি ব্রাহ্মণবাড়িয়া মহকুমা সর্বদলীয় ভাষা সংগ্রাম কমিটির যুগ্ম আহবায়কের দায়িত্ব পালন করেন। তিনি দীর্ঘদিন ব্রাহ্মণবাড়িয়া পাবলিক লাইব্রেরীর সাধারণ সম্পাদক ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া আর্কাইভ মিউজিয়ামের সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেন। এছাড়া তিনি প্রায় ১০ বছর ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেসক্লাবের সভাপতির দায়িত্ব পালন করেছেন। মুহম্মদ মুসা ছিলেন একজন বৃক্ষপ্রেমি। শহরের বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া ফারুকী পার্কে তিনি অসংখ্য বৃক্ষ রোপন করে গেছেন। তিনি ব্রাহ্মণবাড়িয়ার ইতিহাস-ঐতিহ্য নিয়ে গবেষনাধর্মী বই “ ব্রাহ্মণবাড়িয়া ইতিবৃত্ত” রচনা করে গেছেন। এদিকে মুহম্মদ মুসার মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করে শোকাহত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন ব্রাহ্মণবাড়িয়ার অভাবনীয় উন্নয়নের রূপকার, বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য,বেসামরিক বিমান ও পর্যটন মন্ত্রনালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটি এবং ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি র.আ.ম. উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী এমপি। এক শোকবার্তায় তিনি মরহুমের আত্মার মাগফেরাত কামনা করেন।

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১