শিরোনাম

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেসক্লাব পরিদর্শন শেষে জাতীয় প্রেসক্লাব সভাপতি ফরিদা ইয়াসমিন

সাংবাদিকদের উপর আঘাত, গনতন্ত্রের উপর আঘাত

স্টাফ রিপোর্টার | শুক্রবার, ০২ এপ্রিল ২০২১ | পড়া হয়েছে 177 বার

সাংবাদিকদের উপর আঘাত, গনতন্ত্রের উপর আঘাত

জাতীয় প্রেসক্লাবের সভাপতি ফরিদা ইয়াছমিন বলেছেন, বাংলাদেশের কোন প্রেসক্লাবে অতীতে হামলার ঘটনা ঘটেনি। স্বাধীন বাংলাদেশে মৌলবাদী শক্তি অপতৎপরতা চালাচ্ছে। সাংবাদিকদের উপর হামলা মেনে নেয়া যায়না।

তিনি শুক্রবার ২রা এপ্রিল, ২০২১ সকালে জাতীয় প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ইলিয়াছ খানসহ জাতীয় প্রেসক্লাবের একটি প্রতিনিধি দল নিয়ে ক্ষতিগ্রস্থ ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেসক্লাবসহ অন্যান্য স্থাপনা পরিদর্শন শেষে ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেসক্লাব মিলনায়তনে সাংবাদিকদের সাথে এক সংহতি সভায় একথা বলেন।

এ সময় জাতীয় প্রেসক্লাবের সভাপতি ফরিদা ইয়াসমিন আরো বলেন, সাংবাদিকরা প্রগতির কথা বলে, মানবতার কথা বলে, গনতন্ত্রের কথা বলে। সাংবাদিকদের উপর আঘাত, গনতন্ত্রের উপর আঘাত। যারা প্রেসক্লাবে হামলা করেছে, সভাপতিসহ অন্যান্য সাংবাদিকদের মারধোর করেছে তাদেরকে অবশ্যই দায়দায়িত্ব নিতে হবে। প্রেসক্লাবের হামলাকে অনেক গভীরভাবে ভাবতে হবে। ঘটনার নেপথ্যে কারা তা ভাবতে হবে।


তিনি বলেন, সম্প্রতি সহিংসতার সময় ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেসক্লাবসহ দেশের বিভিন্ন জায়গায় সাংবাদিকদের উপর যে হামলা ও গাড়ি পুড়িয়ে দেয়া হয়েছে তা থেকে স্পষ্ট বুঝ যায়, তাদের লক্ষ্য ছিল সাংবাদিকদরা। তিনি বলেন, স্বাধীনতা দিবসে বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্যে ভাংচুর ও অগ্নিসংযোগ একটি ভয়াবহ ঘটনা। স্বাধীনতা দিবসে এ ধরণের ঘটনা মানে স্বাধীনতার মূলে আঘাত করা। এ সময় তিনি সকল সাংবাদিকদের ঐক্যবদ্ধ থেকে কাজ করার আহবান জানান। তিনি বলেন, সাংবাদিকদের বিভাজনের সুযোগেই ওরা সুযোগ পায়।

সংহতি সভায় জাতীয় প্রেসক্লাবের সাধারন সম্পাদক ইলিয়াছ খান বলেন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেসক্লাবে হামলা একটি অশনি সংকেত।
সংহতি সভায় বক্তব্য রাখেন জাতীয় প্রেস ক্লাবের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আশরাফ আলী, নির্বাহী সদস্য আইয়ুব ভূঁইয়া, সৈয়দ আবদাল আহমেদ প্রমুখ। এ সময় জাতীয় প্রেস ক্লাব নেতৃবৃন্দের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন নির্বাহী সদস্য রেজানুর রহমান, শাহনাজ বেগম পলি, শাহনাজ সিদ্দিক সোমা, সিনিয়র সদস্য জাহাঙ্গীর খান বাবু, সিনিয়র সাংবাদিক জালাল আহমেদ।

এর আগে ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেস ক্লাব সভাপতি আহত রিয়াজ উদ্দিন জামি এবং সাধারন সম্পাদক জাবেদ রহিম বিজন হেফাজতের হরতাল-আন্দোলনে ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেসক্লাব ভাংচুর, সভাপতিসহ অন্যান্য সাংবাদিকদের ওপর হামলার বিষয়টি তুলে ধরেন।

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০৩১