শিরোনাম

ধানের শীষের মিছিল থেকে

সরাইলে যুবদল নেতা গ্রেফতার, লাঙ্গলের মাইকিং-এ বাধা

সরাইল প্রতিনিধি : | বৃহস্পতিবার, ১৩ ডিসেম্বর ২০১৮ | পড়া হয়েছে 472 বার

সরাইলে যুবদল নেতা গ্রেফতার, লাঙ্গলের মাইকিং-এ বাধা

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার সরাইলে ধানের শীষের মিছিল থেকে যুবদলের যুগ্ম সম্পাদক-১ মো. নূর আলম (৩৭) কে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। ১১ ডিসেম্বর মঙ্গলবার দিবাগত রাতে উপজেলা সদরের বালিকা বিদ্যালয় সংলগ্ন সড়ক থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। একই সময়ে হাসপাতাল মোড় এলাকায় ‘লাঙ্গলের’ মাইকিং করাকালে বাধা দিয়েছেন জনৈক যুবক।

পুলিশ ও স্থানীয় প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, মঙ্গলবার রাত ৭টার দিকে সরাইল বাজার থেকে শতাধিক লোকের অংশ গ্রহণে ধানের শীষের একটি মিছিল হাসপাতাল মোড়ের দিকে যাচ্ছিল। বিপরীত দিক থেকে এসে এস.আই আবু বক্কর সিদ্দিকের নেতৃত্বে একদল পুলিশ মিছিল থেকে যুবদল নেতা নূর আলমকে গ্রেফতার করে। সদর ইউনিয়নের হালুয়াপাড়া গ্রামের আব্দুল আলীমের ছেলে নূর আলম। ১২ ডিসেম্বর সকালে তাকে পুলিশ এ্যাসল্ট মামলায় আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে। ওইরাতে একই সময়ে কালিকচ্ছ এলাকা থেকে লাঙ্গল প্রতীকের পক্ষে সিএনজি চালিত অটোরিক্সায় চড়ে মাইকিং করে সরাইল সদরের দিকে আসছিলেন পেশাদার মাইক প্রচারকারী মো. স্বপন মিয়া। হাসপাতাল মোড়ে পৌছার পর অটোরিক্সাটি থামিয়ে জনৈক যুবক রেজাউল যে মহাজোটের প্রার্থী সেই পত্রটি চান প্রচারকারীর কাছে। এ কথায় হত বিহ্বল হয়ে পড়েন প্রচারক। যুবক রেজাউলকে মহাজোট নয়, জাপার প্রার্থী বলে প্রচার করতে বলেন। স্বপন দ্রুত মুঠোফোনে বিষয়টি থানা পুলিশকে অবহিত করেন। ১০/১৫ মিনিটের মধ্যে ১২-১৪ জনের একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন। ততক্ষণে ঘটনাস্থল থেকে দ্রুত সটকে পড়েন ওই যুবক। এর আগেই সেখানে অবস্থানরত জাপার কয়েকজন নেতা মিলে ঘটনাটির নিস্পত্তি করে দেন। প্রচারকারী স্বপন মিয়া বলেন, ওই যুবকটিকে আমি দেখলে চিনব। নাম জানি না। সে উত্তেজিত হয়ে আমাকে বাধা দিয়েছে। মৃধা পন্থী কয়েকজনের হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি শান্ত হয়। আমি ফের মাইকিং শুরু করি।


আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১