শিরোনাম

কলা কেনা নিয়ে বিরোধের জের

সরাইলে দুই গ্রামবাসীর মধ্যে সংঘর্ষে শতাধিক আহত, তিন শতাধিক রাউন্ড টিয়ারশেল-সাউন্ড গ্রেনেড নিক্ষেপ

সরাইল প্রতিনিধি : | বৃহস্পতিবার, ১৪ জুন ২০১৮ | পড়া হয়েছে 302 বার

সরাইলে দুই গ্রামবাসীর মধ্যে সংঘর্ষে শতাধিক আহত, তিন শতাধিক রাউন্ড টিয়ারশেল-সাউন্ড গ্রেনেড নিক্ষেপ

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার সরাইলে কলা কেনা নিয়ে বিরোধের জের ধরে দুই গ্রামবাসীর মধ্যে দফায় দফায় সংঘর্ষে উভয়পক্ষের শতাধিক লোক আহত হয়েছে।

আজ বৃহস্পতিবার (১৪.০৬.২০১৮) বেলা সাড়ে ১১টা থেকে দুপুর আড়াইটা পর্যন্ত উপজেলার সদর ইউনিয়নের উচালিয়াপাড়া ও নোয়াগাও ইউনিয়নের তেরকান্দা ও গ্রামের লোকদের মধ্যে এই ঘটনা ঘটে।


খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে তিন শতাধিক রাবার বুলেট, টিয়ারশেল ও সাউন্ড গ্রেনেড ছুড়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে। এ সময় দুই দাঙ্গাবাজকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

আহতদের জেলা সদর হাসপাতাল ও সরাইল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি ও চিকিৎসা দেয়া হয়। তবে তাৎক্ষনিকভাবে তাদের পরিচয় জানা যায়নি।

এলাকাবাসী ও পুলিশ জানায়, গতকাল বুধবার বিকেলে সরাইল সদর ইউনিয়নের উচালিয়া পাড়া গ্রামের মরহুম সাঈদ মিয়ার ছেলে খোকনের সাথে নোয়াগাঁও ইউনিয়নের তেরকান্দা গ্রামের বাসিন্দা ও ইউপি সদস্য ফজলু মিয়ার ছেলে ছাব্বিরের কলা কেনা নিয়ে বাকবিতন্ডা ও হাতাহাতির ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনার জের ধরে আজ বৃহস্পতিবার সকালে তেরকান্দা গ্রামের লোকজন এসে উচালিয়াপাড়া গ্রামের কয়েকটি ঘরবাড়ি ভাঙচুর করে। এ ঘটনার পর বেলা সাড়ে ১১টার দিকে উভয় গ্রামের কয়েকশত লোক দেশীয় অস্ত্রে সজ্জিত হয়ে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। দুই গ্রামের মধ্যবর্তী ধানী জমিতে টানা তিন ঘন্টাব্যাপী সংঘর্ষ হয়। খবর পেয়ে সরাইল থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে সংঘর্ষ নিয়ন্ত্রনে আনতে ব্যর্থ হলে আশুগঞ্জ থানা পুলিশ, বিজয়নগর থানা পুলিশ এবং ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর থেকে অতিরিক্ত পুলিশ গিয়ে ব্যাপক লাঠিপেটা ও প্রায় তিনশতাধিক রাবার বুলেট, টিয়ারশেল ও সাউন্ড গ্রেনেড ছুড়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে। তিন ঘন্টাব্যাপী সংঘর্ষে উভয় ইউনিয়নের শতাধিক লোক আহত হয়।

এ ব্যাপারে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ ইকবাল হোসাইন বলেন, পরিস্থিতি বর্তমানে নিয়ন্ত্রনে আছে। তিনি বলেন, সংঘর্ষ নিয়ন্ত্রনে আনতে তিনশতাধিক রাউন্ড রাবার বুলেট, টিয়ারশেল ও সাউন্ড গ্রেনেড ছুড়া হয়েছে। তিনি বলেন, ঘটনাস্থল থেকে ২ দাঙ্গাবাজকে আটক করা হয়েছে পরবর্তী সংঘর্ষের আশঙ্কায় পুলিশ মোতায়েন রয়েছেন।

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০৩১