শিরোনাম

সংবর্ধনা প্রদান

| রবিবার, ০৬ মে ২০১৮ | পড়া হয়েছে 142 বার

সংবর্ধনা প্রদান

বাংলাদেশ সরকারি কর্মচারী সমন্বয় পরিষদ ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা শাখার উদ্যোগে ডা. মোঃ শওকত হোসেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক হিসেবে যোগদান করায় অভিনন্দন, ফুলের শুভেচ্ছা এবং সম্মাননা ক্রেস প্রদান করা হয়। এ সময় সংক্ষিপ্ত সংবর্ধনা অনুষ্ঠান ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর হাসপাতালের ডা. মিলন হলে গতকাল শনিবার সরকারি কর্মচারী সমন্বয় পরিষদের সভাপতি এ.এইচ.এম আলমগীরের সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক এম. আব্দুল বাছেদ এর পরিচালনায় সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া মেডিকেল কলেজের চেয়ারম্যান ও বিএমএ’র সাধারণ সম্পাদক ডা. মোঃ আবু সাঈদ।

বিশেষ অতিথি ছিলেন সদর হাসপাতালে আরএমও ডা. রানা নূর শামস্।


এ সময় অন্যান্যের মাঝে উপস্থিত ছিলেন সরকারি কর্মচারী সমন্বয় পরিষদের নেতা খুশেদ, জামাল, ফজলু, কুতুব-উদ্দিন, মনির হোসেন, আরশাদুল ইসলাম, মোঃ আজিজ, কাজী হাফিজুল ইসলাম নাসু, শফিকুল ইসলাম, জসিম উদ্দিন, জসিম মাহমুদ, প্রদোষ কান্তি দাস, মোঃ রুবেল মিয়া, চন্দন কুমার দেব নাথ, কামাল উদ্দিন, সুজন জিব চামকা, শফিকুর রহমান, বশির আহমেদ, অজিত দেবনাথ, বিল্লাল সরকার, মোঃ ফরিদ মিয়া, মোঃ সাইফুদ্দিন, সায়েম মোল্লা, মোঃ মহসিন, শাহনেওয়াজ খন্দকার, সুজন খান, রাজিব চন্দ্র দাস, মোঃ ইসমাইল, শাহনাজ বেগম, মোঃ নেছার মিয়া প্রমুখ নেতৃবৃন্দ।

প্রধান অতিথি ডা. মোঃ আবু সাঈদ বলেন, এ জেলায় সরকারি কর্মচারীদের জন্য অগ্রাধিকার ভিত্তিতে চিকিৎসা সেবা নিশ্চিত করতে হবে। কোন সরকারি কর্মচারী ও অবসর প্রাপ্ত কর্মচারীদের যথাযথভাবে চিকিৎসা সেবাসহ অন্যান্য সেবা পাওয়ার চেষ্টা অব্যাহত থাকবে। তিনি আরো বলেন, এ জেলায় সরকারি কর্মচারীরা ঐক্যবদ্ধ। সরকারি কর্মচারীদের এক মাত্র প্রতিনিধিত্বশীল সংগঠন বাংলাদেশ সরকারি কর্মচারী সমন্বয় পরিষদের পাশে আছি এবং থাকব।

সংবর্ধনার জবাবে সদর হাসপাতালের তত্বাবধায়ক ডা. মোঃ শওকত হোসেন বলেন, সরকারি কর্মচারীদের জন্য হাসপাতালের দরজা খোলা থাকবে। যে কোন সমস্যা নিয়ে আমার কাছে আসলে আমি তা দেখব এবং কোন সরকারি কর্মচারী যেন হয়রানি স্বীকার না হয় সে দিকেও লক্ষ্য থাকবে। তিনি সকল সরকারি কর্মচারীদের সহযোগীতা কামনা করেন।-প্রেস বিজ্ঞপ্তি

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮