শিরোনাম

অপহরনের ১০দিন পর

শিশুর বস্তা বন্দি লাশ উদ্ধার : দুই অপহরণকারী গ্রেপ্তার

আশুগঞ্জ প্রতিনিধি : | সোমবার, ১৫ জানুয়ারি ২০১৮ | পড়া হয়েছে 700 বার

শিশুর বস্তা বন্দি লাশ উদ্ধার : দুই অপহরণকারী গ্রেপ্তার

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার আশুগঞ্জে অপহরনের ১০দিন পর রিফাত-(৬) নামে এক শিশুর বস্তাবন্দি লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। আজ সোমবার (১৫.০১.২০১৮) সকালে উপজেলার খড়িয়ালা গ্রামের ইউপি সদস্য মোমিন মিয়ার বাড়ির ভাড়াটিয়ার বাথরুমের উপরের ফলস ছাদের ভিতর থেকে তার বস্তাবন্দি লাশ উদ্ধার করা হয়। নিহত রিফাত খড়িয়ালা গ্রামের বাহার মিয়ার ছেলে ও খড়িয়ালা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রথম শ্রেনীর ছাত্র।

এ ঘটনায় দুই অপহরণকারীকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন বরগুনা জেলার পাথরঘাটা উপজেলার সিদ্দিকুর রহমানের ছেলে সোহাগ মিয়া-(২৪), ঝালকাঠি জেলার কাঠালিয়া উপজেলার আনসার আলীর ছেলে সোলায়মান-(২২)। তবে অপর অপহরণকারী মিজানকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি।


পুলিশ জানায়, গত ৫ জানুয়ারি দুপুরে শিশু রিফাতকে অপহরণ করা হয়। এ ঘটনার পর তার বাবা আশুগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। অপহরনের দু’দিন পর অপহরনকারীরা রিফাতের বাবার কাছে মোবাইলে ফোন করে ৫০ হাজার টাকা মুক্তিপন দাবি করে। বিষয়টি পুলিশকে অবহিত করা হলে পুলিশ রিফাতের বাবাকে বিকাশের মাধ্যমে ৩০ হাজার টাকা পাঠাতে বলেন। পুলিশের কথা মতো বিকাশের মাধ্যমে টাকা পাঠানো পর বিকাশ নাম্বারের সূত্রধরেই পুলিশ সোহাগ ও সোলায়মানকে আটক করলে তাদের স্বীকারোক্তি মোতাবেক আজ সোমবার সকালে শিশুর বস্তাবন্দি লাশ উদ্ধার করে।
অপহরণকারী সোহাগ, মিজান ও সোলায়মান খড়িয়ালা গ্রামের একটি ব্যাগ ফ্যাক্টরিতে চাকুরি করার সুবাধে একই এলাকার ইউপি সদস্য মোমিন মিয়ার বাড়িতে ভাড়াটিয়া হিসেবে বসবাস করতেন।
এ ব্যাপারে আশুগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা বদরুল আলম তালুকদার বলেন, অপহরনের ঘটনায় জড়িত দুইজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে অপহরণকারীরা অপহরনের কয়েক ঘন্টার মধ্যেই শ্বাসরোধ করে শিশু রিফাতকে হত্যা করেছে বলে স্বীকার করেছেন।

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০৩১