শিরোনাম

শিক্ষার্থীদের মেধা ও সুপ্ত প্রতিভা বিকাশে সরকার বিভিন্ন কর্মসূচী বাস্তবায়ন করছে : জেলা প্রশাসক

| বুধবার, ১৪ মার্চ ২০১৮ | পড়া হয়েছে 161 বার

শিক্ষার্থীদের মেধা ও সুপ্ত প্রতিভা বিকাশে সরকার বিভিন্ন কর্মসূচী বাস্তবায়ন করছে : জেলা প্রশাসক

আনন্দমুখর পরিবেশে আজ বুধবার (১৪.০৩.২০১৮) ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার প্রাচীণ বেসরকারি মাধ্যমিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান (বালক) ব্রাহ্মণবাড়িয়া উচ্চ বিদ্যালয় এর ছাত্রদের ১৫৮তম বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা নিজস্ব মাঠে অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সকাল সাড়ে ৯টায় প্রশিক্ষিত ছাত্রদের কুচকাওয়াজে সালাম গ্রহণ পরবর্তীতে শান্তির প্রতিক পায়রা উড়িয়ে ক্রীড়া প্রতিযোগিতার শুভ উদ্বোধন করেন প্রধান অতিথি ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা প্রশাসক রেজওয়ানুর রহমান।


বিদ্যালয় পরিচালনা পর্ষদ সভাপতি জেলা পরিষদ সদস্য মোঃ জহিরুল ইসলাম ভূঁইয়ার সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও রাষ্ট্রীয় পুরস্কার প্রাপ্ত বিশিষ্ট সমাজসেবক আল মামুন সরকার।

স্বাগত বক্তব্য রাখেন বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক মোঃ মোস্তফা কামাল।

এ সময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সদস্য আনোয়ার হোসেন সোহেল, সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন প্রমুখ।

প্রধান অতিথির ভাষণে জেলা প্রশাসক রেজওয়ানুর রহমান ছাত্রদের উদ্দেশ্যে বলেন, তোমাদের অর্থাৎ শিক্ষার্থীদের লেখাপড়ার পাশাপাশি মেধা ও সুপ্ত প্রতিভা বিকাশে সরকার বিভিন্ন কর্মসূচী বাস্তবায়ন করছে। বিশেষ করে শরীর গঠন ও মনের উৎফুল্লতা বৃদ্ধিতে সহায়ক খেলাধুলার মান উন্নয়নে ব্যাপক কাজ করছে। তোমরা লেখাপড়ার পাশাপাশি নিজ নিজ দক্ষতা প্রদর্শন করে জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ে বিদ্যালয়ের সুনাম বয়ে আনবে। জেলা প্রশাসক বার্ষিক ক্রীড়া শেষে আগামী কিছুদিনের মধ্যে ব্রাহ্মণবাড়িয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার মান পর্যবেক্ষণে শ্রেণীকক্ষ ও কম্পিউটার ক্লাশ পরিদর্শন করার ঘোষণা দেন।

বিদ্যালয়ের সিনিয়র শিক্ষক মোঃ আবদুর রকিব এবং মোঃ নুরুল হুদার ধারা বর্ণনায় সঙ্গীতের ফাঁকে ফাঁকে সিনিয়র শিক্ষক আশরাফুন্নাহার, নজরুল ইসলাম, ফারজানা সুলতানা, বাবুল কুমার দেব এর পরিচালনায় মোট ৬০টি ইভেন্টে প্রায় ৩শত ছাত্র প্রতিযোগিতায় অংশ নেয়। ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষকসহ সিনিয়র শিক্ষকগণ বিচারকের দায়িত্ব পালন করেন। স্কাউট ও রেড ক্রিসেন্ট দল শৃংখলা রক্ষার দায়িত্ব পালন করে। বিকেলে বিশেষ অতিথি জেলা শিক্ষা অফিসার গৌতম চন্দ্র মিত্র ৬০টি ইভেন্টে প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ করেন।

অনুষ্ঠানে বিদ্যালয় পরিচালনা পর্ষদের সদস্য এবং অন্যান্য শিক্ষক অভিভাবকগণ উপস্থিত ছিলেন।

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১