শিরোনাম

শিক্ষকের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

স্টাফ রিপোর্টার : | রবিবার, ২৪ ডিসেম্বর ২০১৭ | পড়া হয়েছে 190 বার

শিক্ষকের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় আবদুল মতিন আশরাফি-(৩০) নামে এক অধ্যক্ষের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। আজ রোববার (২৪.১২.২০১৪) দুপুর ১২টায় পৌর এলাকার হালদারপাড়ার বাসা থেকে তার ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।
আবদুল মতিন আশরাফি পৌর এলাকার পাইকপাড়ায় অবস্থিত “লাইফ মেকার ইসলামিক কিডস্ ইউনিভার্সিটি” নামে একটি বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের অধ্যক্ষ হিসেবে কর্মরত ছিলেন।

আবদুল মতিন আশরাফি জেলার নবীনগর উপজেলার কৃষ্ণনগর ইউনিয়নের আশ্রাফপুর গ্রামের শাহজাহান মিয়ার ছেলে। তিনি ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌর এলাকার হালদারপাড়ার জনৈক করিম মিয়ার বাড়িতে ভাড়া থাকতেন।


সদর মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) জিয়াউল হক জিয়া লাশ উদ্ধারের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, আবদুল মতিন আশরাফি হালদারপাড়ার জনৈক করিম মিয়ার বাসায় ভাড়া থাকতেন। রোববার সকালে বাসার লোকজন অনেক ডাকাডাকি করে তার কোন সাড়া-শব্দ না পেয়ে লাইফ মেকার ইসলামিক কিডস্ ইউনিভার্সিটির প্রতিষ্ঠাতা মাতিন আহমেদকে জানালে তিনি পুলিশকে অবহিত করেন। পরে দুপুরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে মতিনের ঘরের দরজা ভেঙ্গে ঘরের সিলিং ফ্যানের সাথে গলায় গামছা পেঁচানো অবস্থায় তার লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য লাশ জেলা সদর হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করে। তিনি বলেন, প্রাথমিকভাবে মনে হচ্ছে তিনি আত্মহত্যা করেছেন। ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন পাওয়া গেলে মৃত্যুর সঠিক কারণ জানা যাবে।

আবদুল মতিন আশরাফির পিতা শাহজাহান মিয়া সাংবাদিকদের জানান, মতিন মাদ্রাসায় পড়া শেষ করে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সরকারি কলেজ থেকে স্নাতক পাশ করেছে। আসন্ন বিসিএস পরীক্ষায় তার অংশ নেয়ার কথা ছিল। গত নভেম্বর মাসে সে লাইফ মেকার ইসলামিক কিডস্ ইউনিভার্সিটির অধ্যক্ষ হিসেবে যোগদান করে। মতিন আত্মহত্যা করতে পারে না বলে তিনি জানান।

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১