শিরোনাম

নাসিরনগর নিয়ে

শাহরিয়ার কবিরের মন্তব্য

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি : | রবিবার, ০৬ নভেম্বর ২০১৬ | পড়া হয়েছে 154 বার

শাহরিয়ার কবিরের মন্তব্য

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে পবিত্র কাবা শরিফ নিয়ে ব্যঙ্গচিত্র পোস্ট দেয়ার ঘটনায় অভিযুক্ত রসরাজ দাসের বিরুদ্ধে অভিযোগ বানোয়াট বলে মন্তব্য করেছেন একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির সভাপতি শাহরিয়ার কবির। শনিবার বিকেল ৩টায় নাসিরনগরে ক্ষতিগ্রস্ত হিন্দু সম্প্রদায়ের মন্দির ও ঘরবাড়ি পরিদর্শনকালে স্থানীয় গৌর মন্দিরে সাংবাদিকদের কাছে তিনি এ মন্তব্য করেন। শাহরিয়ার কবির বলেন, নাসিরনগরে সাম্প্রদায়িক উন্মাদনা সৃষ্টি করা হয়েছে। রসরাজের বাড়িতে গিয়েই বোঝা গেছে তার বিরুদ্ধে যে অভিযোগ সেটি কতোটা বানোয়াট। সে সামান্য লেখাপড়া করেছে, যে ছবির কথা বলা হচ্ছে সেটি ফটোশপে বানানো, আর ফটোশপ কি জিনিস সেটি রসরাজের ধারণাও নেই।

শাহরিয়ার কবিরের সঙ্গে থাকা সাবেক বিচারপতি শামছুদ্দীন চৌধুরী মানিক বলেন, রসরাজের পক্ষে একজন আইনজীবী দাঁড়াতে চেয়েছিলেন। কিন্তু ম্যাজিস্ট্রেট তাকে দাঁড়ানোর সুযোগ দেননি। ম্যাজিস্ট্রেট যেটি করেছেন সেটি ন্যায়বিচারের পরিপন্থী কাজ। ম্যাসিস্ট্রেট রসরাজকে কোনো কিছু বলার সুযোগ না দিয়ে তার বিরুদ্ধে রিমান্ডের আদেশ দিয়েছেন। এজন্য ম্যাজিস্ট্রেটের কাছেও এটার ব্যাখা চাওয়া উচিত বলে উলে­খ করেন তিনি।


গত শনিবার সকালে নাসিরনগরের বিভিন্ন এলাকা পরিদর্শন করে এসে বিকেলে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সার্কিট হাউসে আয়োজিত সাংবাদিক, পেশাজীবী ও মানবাধিকার সংগটনের নেতৃবৃন্দের সঙ্গে মতবিনিময় করেন তিনি। একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটি ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা শাখার সভাপতি জয়দুল হোসেন এর সভাপতিত্বে আয়োজিত মতবিনিময় সভায় অন্যান্যের বক্তৃতা করেন নির্মূল কমিটির কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক কাজী মুকুল, সদস্য আরমা দত্ত, সৈয়দ মাহবুবুর রশিদ, আলী আকবর টাবি, বাংলাদেশ মহিলা পরিষদের যুগ্ম সম্পাদক ঝর্ণা দাশ১ পুরকায়স্ত, জেলা ওয়ার্কার্স পার্টির নেতা অ্যাডঃ কাজী মাসুদ, অ্যাডঃ মোঃ নাসির মিয়া, জেলা মহিলা পরিষদের সাধারণ সম্পাদক সাথী চৌধুরী, সাংস্কৃতিক সংগঠক ওয়াহিদ শামীম, আশুগঞ্জ নির্মূল কমিটির আহ্বায়ক মোবারক হোসেন প্রমুখ।

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১