শিরোনাম

অনুমতি ছাড়া ফোন নম্বর ব্যবহার করায়

শাকিব খানের বিরুদ্ধে রাজমিস্ত্রির মামলা

বিশেষ প্রতিনিধি : | রবিবার, ২৯ অক্টোবর ২০১৭ | পড়া হয়েছে 507 বার

শাকিব খানের বিরুদ্ধে রাজমিস্ত্রির মামলা

ঢালিউডের শীর্ষ নায়ক শাকিব খানের বিরুদ্ধে হবিগঞ্জ জেলায় মামলা হয়েছে। কারণ হিসেবে জানানো হয়, বিনা অনুমতিতে অন্যের মুঠোফোন নম্বর শাকিব তার ছবি ‘রাজনীতি’তে ব্যবহার করেছেন। এ জন্য প্রতারণার অভিযোগে ৫০ লাখ টাকার মানহানির মামলাটি করেছেন মুঠোফোন নম্বরের মালিক জেলার বানিয়াচং উপজেলার যাত্রাপাশা গ্রামের ইজাজুল মিয়া। তিনি মূলত রাজমিস্ত্রি।
3a412a79acc2b36f1acec5875f87e4dd-59f5ba7002901
রবিবার হবিগঞ্জের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট শম্পা জাহানের আদালতের মামলাটি দায়ের করেন ইজাজুল।

শুধু শাকিব নয়, মামলার প্রধান আসামিদের মধ্যে আরও আছেন ‘রাজনীতি’ সিনেমার পরিচালক বুলবুল বিশ্বাস ও প্রযোজক আশফাক আহমেদ।রাজনীতি ছবির গানের দৃশ্য। এর আগেই নম্বরটি বলেন শাকিব। পাশে ইজাজুল
‘রাজনীতি’ গত রোজার ঈদে মুক্তি পায়। ২ ঘণ্টা ১৬ মিনিটের এ ছবির ২০ মিনিটের সময় শাকিব ও অপু বিশ্বাসের একটি কথোপকথন আছে। যেখানে নায়ক একটি মোবাইল নম্বর নিজের বলে উল্লেখ করেন। সংলাপটি এমন- নায়িকা অপু বিশ্বাস বলেন, ‘‘আমার ফেসবুক আইডি যে ‘রাজকুমারী’, তুমি তা জানলে কী করে। জবাবে নায়ক শাকিব বলেন, ‘যেভাবে তুমি জানো আমার মোবাইল নাম্বার ০১৭১৫-২৯৫…।’
এ নম্বরটি চিত্রনায়ক শাকিব খানের নয়। এটি বানিয়াচং গ্রামের ইজাজুলের।
ছবি মুক্তির দিন থেকে শত শত ফোন আসতে থাকে ইজাজুলের কাছে। সবাই শাকিব খানকে চান। অতিরিক্ত ফোন আসায় তাকে চাকরি থেকে মহাজন বরখাস্ত করেন। অভাব-অনটনে পড়ে বিক্রি করতে হয় নিজের অটোরিক্সাটিও। এমনকি পারিবারিক জীবনেও অশান্তি নেমে আসে। মেয়েদের ফোন বেশি আসায় স্ত্রীর সঙ্গে তার মনোমালিন্য হয়। স্ত্রী চলে যান বাপের বাড়ি। সামাজিকভাবে হেয় হতে হয় ইজাজুলকে। এখনও অবধি মুঠোফোন নম্বরে শাকিব খানের জন্য অসংখ্য ফোন আসছে।
ইজাজুলের ভাষ্য, ‌‘আমি সামাজিকভাবে হেয় হয়েছি। শুধু আমি নই, আমার পরিবারও হাস্যরসে পরিণত হয়েছে। আমি এর প্রতিকার চাই। অন্যের নম্বর না জানিয়ে ব্যবহার করাটা অন্যায়। তাই মামলাটি করেছি।’


আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০৩১