শিরোনাম

লেগুনা গাড়ি বন্ধের দাবিতে ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক অবরোধ

| রবিবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৬ | পড়া হয়েছে 1319 বার

লেগুনা গাড়ি বন্ধের দাবিতে ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক অবরোধ

গতকাল সকাল ১১টার দিকে মহাসড়কে এ ঘটনা ঘটে। ফলে মহাসড়কের তিন দিকে দীর্ঘ যানজট লেগে যায়। লেগুনা গাড়ি বন্ধের দাবিতে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের সরাইল বিশ্বরোড অবরোধ করেছে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা বাস শ্রমিকের ইউনিয়নের নেতাকর্মীরা। পরিবহন ও যাত্রীরা পড়ে যায় দূর্ভোগে। প্রত্যক্ষদর্শী পথচারীরা জানায়, সরকারি সিদ্ধান্তে দেশের বিভিন্ন স্থানে মহাসড়কের গুরুত্বপূর্ণ এলাকায় সিএনজি চালিত অটোরিকশা চলাচল বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। এরই অংশ হিসাবে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের কিছু জায়গায় ও বন্ধ
রয়েছে সিএনজি চালিত অটোরিকশা। স্থানীয় সিএনজি মালিক শ্রমিকের দাবীর প্রেক্ষিতে জনস্বার্থে সরাইল ও নাসিরনগর উপজেলার ১২ লক্ষাধিক লোকের সুবিধার্থে জেলা শহর এবং উপজেলার জনপ্রতিনিধিদের মধ্যস্থতায় কুট্রাপাড়া মোড় থেকে বিশ্বরোড মোড় পর্যন্ত মাত্র আধা কিলোমিটার সড়কে সিএনজি চলাচল শিথিল করা হয়। কিন্তু এ বিষয়টি মেনে নিতে নারাজ লোকাল বাস মালিক ও শ্রমিকরা। তারা বারবার সিএনজি চলাচলে বাধার সৃষ্টি করছে। ফলে রোগীসহ লাখ লাখ লোক চরম দূর্ভোগ পোহাচ্ছেন। যাত্রীর তুলনায় বাস অপ্রতুল। ফলে সিএনজি বন্ধ থাকলে প্রত্যেকটি ষ্ট্যান্ডে সকাল ও বিকেল বেলা থাকে মানুষের উপচেপড়া ভীর। যাত্রী সাধারনের এহেন কষ্ট ও দূর্ভোগের কথা চিন্তা করে স্থানীয় কিছু লোক লেগুনা নামের একটি পরিবহন বিশ্বরোড মোড় থেকে আশুগঞ্জ পর্যন্ত চালানোর সিদ্ধান্ত নেয়। প্রত্যেকটি গাড়ির যাত্রী ধারন ক্ষমতা ১৫-২০ জন। গত শনিবার সকালে ওই লেগুনা গাড়ি চলতে থাকলে বাধা দেয় বাস মালিক শ্রমিকের লোকজন। প্রথমে কথা কাটাকাটি ও তাদের মধ্যে হাতাহাতির ঘটনাও ঘটে। হঠাৎ করে বাস শ্রমিকের কিছু লোক মহাসড়ক বন্ধ করে দেয়। তিন দিকে প্রায় ৬ কিলোমিটার এলাকা জোরে যানজটের সৃষ্টি হয়। ১ ঘন্টা পর হাইওয়ে পুলিশের হস্তক্ষেপে সড়ক অবরোধমুক্ত হয়। ভুক্তভোগী যাত্রীরা জানায়, সিএনজি বন্ধ হলে তাদের কষ্টের সীমা থাকে না। মান্ধাতার আমলের লক্কর জক্কর মার্কা বাসে যাতায়ত ঝুঁকিপূর্ণ। এ ছাড়া বাসের সংখ্যা কম হওয়ায় সড়কে দাঁড়িয়ে দীর্ঘক্ষণ অপেক্ষা করতে হয়। লোকাল বাস পরিচালনা কমিটির সম্পাদক নিয়ামত খান বলেন, আমরা সরকারকে ডোনেশন দিচ্ছি। আর তারা ( লেগুনা ও সিএনজির মালিকরা) সম্পূর্ণ অবৈধভাবে সরকারের রাজস্ব ফাঁকি দিয়ে মহাসড়কে লেগুনা চালিয়ে যানজট সুষ্টি করছে। লেগুনা মালিক সমিতির সভাপতি জামাল মিয়া বলেন, সকল নিয়ম নীতির ভিত্তিতেই আমরা গাড়ি ক্রয় করেছি। আর রোড পারমিট পক্রিয়াধীন আছে। তাদের বাস গুলোর ফিটনেস নেই অনেক বছর আগ থেকেই।


আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০