শিরোনাম

রাণীখারে কীর্তিমান শিক্ষককে অশ্রুজলে বিদায় সংবর্ধনা

স্টাফ রিপোর্টার : | মঙ্গলবার, ১৫ মে ২০১৮ | পড়া হয়েছে 123 বার

রাণীখারে কীর্তিমান শিক্ষককে অশ্রুজলে বিদায় সংবর্ধনা

মো. মুজিবুর রহমান আজাদ আখাউড়া উপজেলার একজন স্বজ্জন গুণী শিক্ষক। উপজেলার ধরখার ইউনিয়নের রাণীখার এস. এ হান্নান মাধ্যমিক ও কারিগরি উচ্চ বিদ্যালয়ে একাধারে ৩৭ বছর শিক্ষকতা করেছেন। ‘আজাদ স্যার’ হিসেবে সমধিক পরিচিত এই কীর্তিমান শিক্ষককে গতকাল সোমবার বিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে আবেগঘন পরিবেশে অশ্রুজলে বিদায় সংবর্ধনা দেওয়া হয়েছে।

তিনি ১৯৮২ সালে ওই বিদ্যালয়ে সহকারি শিক্ষক পদে যোগ দিয়ে চলতি বছরের ৩ মার্চ তিনি অবসর গ্রহণ করেন। এরপর বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটি এবং গুণমুগ্ধ শিক্ষার্থীরা তাঁকে বিদায় সংবর্ধনা প্রদানের উদ্যোগ নেন। গতকাল সোমবার বিদ্যালয়ের হলরুমে অনুষ্ঠিত বিদায় সংবর্ধনায় প্রধান অতিথি ছিলেন বিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা ও পরিচালনা কমিটির সভাপতি সাবেক গণপরিষদ সদস্য, জেলা পরিষদের সাবেক প্রশাসক এড. সৈয়দ এ কে এম এমদাদুল বারী। অনুষ্ঠিত বিদায় সংবর্ধনায় সভাপতিত্ব করেন বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. আজিজুর রহমান ভূঁইয়া। অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ওই বিদ্যালয়ের শিক্ষক জিয়াউল করিম, বকুল আক্তার, পরিচালনা কমিটির সদস্য মো. মুছা, প্রাক্তন শিক্ষার্থী লোকমান খন্দকার প্রমুখ। বিদ্যালয়ের ধর্মীয় শিক্ষক সৈয়দ মাইনুদ্দিন অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন।


বক্তারা বলেন, দীর্ঘ ৩৭ বছরের শিক্ষকতা জীবনে স্কুলের প্রতি তাঁর দায়িত্ববোধ, সততা, আন্তরিকতা আর ছাত্র ছাত্রীদের প্রতি নির্মোহ ভালোবাসা ছিল অতুলনীয়। এসময়ের মধ্যে তিনি নিজের ঘাম-শ্রম বিলিয়ে এই বিদ্যালয়ের মান উন্নয়নে সহযোগিতা করেন অকুন্ঠচিত্তে। এজন্য এলাকার সকল মানুষের কাছে তিনি আজীবন ভালোবাসা ও শ্রদ্ধার পাত্র হয়ে থাকবেন। অনুষ্ঠান শেষে প্রতিষ্ঠান এবং বর্তমান ও প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের পক্ষ থেকে বিভিন্ন উপহার সামগ্রী তুলে দিয়ে তাঁকে সম্মাননা জানানো হয়।

রাণীখার গ্রামের মোল্লাবাড়ির বাসিন্দা মজিবুর রহমান আজাদ ব্যক্তিগত জীবনে স্ত্রী, দুই পুত্র ও এক কন্যাকে নিয়ে বসবাস করেন।

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০৩১