শিরোনাম

মেডিসিন ক্লাবের অষ্টম কেন্দ্রীয় অর্ধ-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত

| শুক্রবার, ০৬ এপ্রিল ২০১৮ | পড়া হয়েছে 193 বার

মেডিসিন ক্লাবের অষ্টম কেন্দ্রীয় অর্ধ-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত

হৃদয়ে ধারণ করা সেবাব্রতী তারুণ্যের উচ্ছল আলোর ফল্গুধারা মানুষের মাঝে ছড়িয়ে দেয়ার অঙ্গীকার নিয়ে আজ শুক্রবার (০৬.০৪.২০১৮) ব্রাহ্মণবাড়িয়া মেডিকেল কলেজ ক্যাম্পাসে অনুষ্ঠিত হয়েছে মেডিসিন ক্লাবের অষ্টম কেন্দ্রীয় অর্ধ-বার্ষিক সম্মেলন। মেডিসিন ক্লাব, ব্রাহ্মণবাড়িয়া মেডিকেল কলেজ ইউনিটের আয়োজনে এ সম্মেলনে অংশগ্রহণ করেন দেশের বিভিন্ন প্রান্তের মেডিকেল কলেজসমূহের ২৫টি ইউনিটের প্রায় আড়াই শত সদস্য। ফলে, অংশগহনকারীদের আনন্দ-সহযোগ ও বর্ণাঢ্য অনুষ্ঠানমালার হৈ-হুল্লোরে গতকাল সারাদিনই ব্রাহ্মণবাড়িয়া মেডিকেল ক্যাম্পাস ছিল পুরোমাত্রায় আনন্দ-মুখর।

সকাল ৯টায় জাতীয় সঙ্গীতের মধ্যদিয়ে জাতীয় পতাকা ও ক্লাব পতাকা উত্তোলন ও বর্ণাঢ্য আনন্দ র‌্যালির মাধ্যমে শুরু হয় সম্মেলনের কার্যক্রম। উদ্বোধন ঘোষণা করেন সম্মেলনের প্রধান অতিথি বাংলাদেশ মেডিকেল এসোসিয়েশন (বিএমএ) এর কেন্দ্রীয় মহাসচিব ডাঃ এহতেশামুল হক চৌধুরী। পরে কলেজ মিলনায়তন নওশীন গ্যালারীতে অনুষ্ঠিত হয় অষ্টম অর্ধ-বার্ষিক সম্মেলনের উদ্বোধনী আলোচনা ও স্মারক প্রদান অনুষ্ঠান। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন বিএমএ’র কেন্দ্রীয় মহাসচিব ডাঃ এহতেশামুল হক চৌধুরী। তিনি তাঁর বক্তব্যে বাংলাদেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে অংশগ্রহণকারী মেডিসিনিয়ানদের উদ্দেশ্যে বলেন, চিকিৎসা বিজ্ঞানের মত একটি জটিল বিষয়ে অধ্যয়ন করেও আমাদের ছাত্র-ছাত্রীরা মানুষের কল্যাণে তাঁদের সময় ব্যয় করছে, এটি সত্যিই একটি সুখের সংবাদ। আমি বাংলাদেশের ৮০ হাজার চিকিৎসক ও চিকিৎসক পরিবারের পক্ষ থেকে তোমাদেরকে অভিনন্দন জানাই। তোমরা মেধাপীপনার পথ পাড়ি দিয়ে এখন যে পর্যায়ে এসেছো, এর পেছনে অনেকেরই অবদান রয়েছে। মানুষ যথন বড় হয় তখন তাঁদের মনে রাখতে হয় কারা তাঁদেরকে অতীতে সাহায্য-সহযোগিতা করেছেন। যে দেশ তোমাকে বড় করার পেছনে ব্যাপক ভূমিকা রেখেছে, সে দেশেরও পাওনা রয়েছে তোমার কাছে। দেশের জন্য যাঁরা রক্ত দিয়েছেন, তাঁরা শহীদ হয়েছেন। আজ তোমার আর রক্ত দেয়ার প্রয়োজন নেই। আজ তোমাদের প্রয়োজন দেশের জন্য, অসহায় মানুষের মুখে হাসি ফুটাবার জন্য দেশপ্রেম নিয়ে কাজ করার। তবেই দেশের জন্য আত্মাহুতি দেয়া ৩০ লাখ শহীদ ও দু’লাখ সম্ভ্রমহারা মা-বোনের আত্মা শান্তি পাবে। রক্তলাল পতাকার সামনে দাঁড়িয়ে তোমরা ছোটবেলায় স্কুলে গেয়ে উঠেছিলে ‘আমার সোনার বাংলা, আমি তোমায় ভালবাসি’। তোমরা মানবতাবাদী চিকিৎসক হয়ে দেশ ও জাতির প্রতি তোমাদের ভালবাসার প্রমাণ দিতে হবে। তোমরা জান, আমরা এখন উন্নয়নশীল দেশের অভিযাত্রায় পথ চলতে শুরু করেছি। সেখানেও তোমাদের ভূমিকা রাখতে হবে। আজ তোমরা যে প্রতিষ্ঠানে এসে সম্মেলন করছো সেটি ব্রাহ্মণবাড়িয়া মেডিকেল কলেজ। এই প্রতিষ্ঠানের প্রতিষ্ঠাতা আমার স্নেহভাজন প্রিয় ব্যক্তিত্ব ডাঃ মোঃ আবু সাঈদ একজন বিশাল হৃদয়ের মানুষ। তিনি ও তাঁর সুযোগ্য কন্যা নওশীন নওয়ার এই সম্মেলন আয়োজনে যে শ্রমঘাম দিয়েছেন এ জন্য আমি তাঁদের প্রতি আমার অসীম কৃতজ্ঞতা জানাই।’


বিশেষ অতিথির বক্তব্যে ব্রাহ্মণবাড়িয়া মেডিকেল কলেজ এর প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান ডাঃ মোঃ আবু সাঈদ বলেন, তোমাদের মনে রাখতে হবে তোমরা জাতির পরিশ্রুত সন্তান। তোমাদের উপর আমাদের প্রত্যাশা অনেক। আমরা যেখানে সফল হতে পারিনি, তোমরা সেখানে মানবসেবায় সাফল্যের পরিচয় দিয়ে দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাবে। ভালবাসবে দেশের মানুষকে। মেডিসিন ক্লাবের মাধ্যমে তোমরা যেভাবে কল্যাণকাজ করছো তা আমাদের মাঝে আশার আলো জাগায়।’ মেডিসিন ক্লাব, ব্রাহ্মণবাড়িয়া মেডিকেল কলেজ ইউনিট সভাপতি মাহমুদুর রহমান সাব্বির এর সভাপতিত্বে অন্যান্য বিশেষ অতিথিরা হলেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ বিগ্রেডিয়ার জেনারেল (অবঃ) শফিকুল ইসলাম, ইউনাইটেড নার্সিং কলেজের অধ্যক্ষ শেফালী আক্তার, মেডিসিন ক্লাব এর কেন্দ্রীয় সভাপতি জয়দেব বসাক।

সম্মেলনে স্বাগত বক্তব্য রাখেন মেডিসিন ক্লাব এর কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক নওশীন নওয়ার। শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন মেডিসিন ক্লাব, ব্রাহ্মণবাড়িয়া মেডিকেল কলেজ ইউনিটের সাধারণ সম্পাদক ইমদাদুল হক চৌধুরী সম্পদ। অনুষ্ঠান উপস্থাপনা করেন নাঈমা ফেরদৌস ও মোঃ আলী কাউসার বুলবুল। সম্মেলনে ব্রাহ্মণবাড়িয়া মেডিকেল কলেজের শিক্ষক-কর্মকর্তা-কর্মচারী ও আমন্ত্রিত চিকিৎসকগণ উপস্থিত ছিলেন। সন্ধ্যায় অনুষ্ঠিত হয় মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। এতে অংশগ্রহণ করেন মেডিসিন ক্লাব, ব্রাহ্মণবাড়িয়া মেডিকেল কলেজ ইউনিট এর শিল্পীদল।-প্রেস বিজ্ঞপ্তি

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮