শিরোনাম

মাহে রমজান

মুফতী মোহাম্মদ এনামুল হাসান | রবিবার, ১০ জুন ২০১৮ | পড়া হয়েছে 297 বার

মাহে রমজান

কাযা কাফফারার পরিচয়-
কোনো অবস্থায় বা কারণে রোজা ভেঙ্গে গেলে কাযা কিংবা কাফফারা ওয়াজিব হয়। কাযা হলো একটি রোজার বদলে একটি রোজা রাখা। আর কাফফারা হলো রোজা সহ অতিরিক্ত একটি গোলাম আযাদ করা, তা সম্ভব না হলে অনবরত দু’মাস রোজা রাখা, এটা ও সম্ভব না হলে ষাট জন গরিবকে দু’বেলা পেটভরে আহার করানো।

যে কারণে রোজা মাকরুহ হয়-
* বিনা প্রয়োজনে কোন কিছু চাবানো বা চাখা। * মুখে থুথু জমা করে গিলে ফেলা।* শারীরিক দূর্বলতা সৃষ্টি হয় এমন কিছু করা।* অতিরিক্ত পরিশ্রম করা।* অন্যের গীবত ও দোষ চর্চা করা, অশ্লীল কাজ কর্মে লিপ্ত থাকা।


রাসুল (সা:)বলেছেন জিহাদে যেমন তোমাদের কারো ঢাল থাকে তেমনি জাহান্নামের আগুন থেকে রক্ষার জন্য ও রোজা ঢাল স্বরুপ যতক্ষণ তাকে মিথ্যা কথা ও পরনিন্দা দ্বারা ভেঙ্গে ফেলা না হয়( নাসায়ী শরিফ)।

আসুন আমরা ত্রুটিমুক্ত রোজা রাখার চেষ্টা করি। আল্লাহতায়ালা আমাদের সকলকে ত্রুটিহীন রোজা রাখার তাওফিক দান করুণ, আমিন।

লেখক
মুফতী মোহাম্মদ এনামুল হাসান
শিক্ষক, জামিয়া কোরআনিয়া সৈয়দা সৈয়দুন্নেছা ও কারিগরি শিক্ষালয় কাজীপাড়া, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০৩১