শিরোনাম

মাদক ব্যবসায়ী আর জুয়াড়িদের স্বর্গরাজ্য আখাউড়া রেলওয়ে স্টেশন

আখাউড়া প্রতিনিধি : | বৃহস্পতিবার, ০৫ এপ্রিল ২০১৮ | পড়া হয়েছে 169 বার

মাদক ব্যবসায়ী আর জুয়াড়িদের স্বর্গরাজ্য আখাউড়া রেলওয়ে স্টেশন

পূর্বাঞ্চলের অন্যতম বৃহৎ আখাউড়া রেলওয়ে স্টেশন। এ স্টেশনের পাশে রেলওয়ে কর্মীদের জন্য নির্মাণ করা কলোনির ঘরগুলো এখন জরাজীর্ণ অবস্থায় পড়ে আছে। পরিত্যক্ত ঘরে এখন মাদক ব্যবসায়ী এবং জুয়াড়িদের স্বর্গরাজ্যে পরিণত হয়েছে বলে অভিযোগ এলাকাবাসীর। অবশ্য, অপরাধীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়াসহ মাদকের আস্তানা ও অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করা হবে বলে জানিয়েছে রেলওয়ে বিভাগ।

আখাউড়া রেলওয়ে স্টেশনের পাশে ১৯ শতকের মাঝামাঝি সময়ে কর্মচারীদের জন্য নির্মাণ করা হয় আবাসিক কলোনি। বর্তমানে এখানকার অন্তত ৩০টি পাকা ঘর পরিত্যক্ত অবস্থায় পড়ে আছে। এসব পরিত্যক্ত ঘরসহ রেলওয়ে স্টেশন এলাকায় অবাধে মাদকসেবন করছে বিভিন্ন স্থান থেকে আসা মাদকসেবীরা। স্থানীয়দের অভিযোগ, এখানে প্রতিদিন বেচাকেনা হয় হাজার হাজার টাকার মাদকদ্রব্য।


স্থানীয় একজন বলেন, বিভিন্ন সময় প্রশাসন এদের ধরার পর টাকা নিয়ে ছেড়ে দেয়। প্রশাসন যদি চায় এটি সুন্দরভাবে নির্মূল করা সম্ভব।

তবে আখাউড়া রেলওয়ে পুলিশ ও স্থানীয় প্রশাসনের কর্মকর্তাদের দাবি, মাদকের আস্তানা উচ্ছেদে নিয়মিত অভিযান চালানো হচ্ছে।

চট্টগ্রাম রেলওয়ে জেলা ‘আখাউড়া সার্কেল’ সহকারী পুলিশ সুপার পারভেজ আলম চৌধুরী বলেন, ‘আমরা এর বিরুদ্ধে কঠোরভাবে অভিযান চালাচ্ছি। অনেককেই ধরেছি, তাদের আমরা কোর্টে চালানও করে দিয়েছি। এখন বিষয়টা অনেকটা নিয়ন্ত্রিত।’

আখাউড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ শামছুজ্জামান বলেন, ‘রেলওয়ের স্টেট অফিসের সহায়তায় তালিকা করছি। তালিকা হওয়ার পর আমাদের নির্দিষ্ট আইন আছে, সে অনুযায়ী আমরা ব্যবস্থা নেবো।’

আখাউড়া নাগরিক কমিটির তথ্যমতে, রেলওয়ে স্টেশন এলাকায় অন্তত ৩০টি মাদকের আস্তানা রয়েছে। যেখানে প্রতিদিন শতাধিক মাদকসেবী আড্ডা দেয়।

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০