শিরোনাম

ফেসবুকে সাংবাদিককে হত্যার হুমকি

ভুয়া আইডি দাবি করে থানায় জিডি

শামীম-উন-বাছির | সোমবার, ২৮ অক্টোবর ২০১৯ | পড়া হয়েছে 302 বার

ভুয়া আইডি দাবি করে থানায় জিডি

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া পৌর সভার মেয়র ও উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক তাকজিল খলিফা কাজলকে নিয়ে সংবাদ প্রকাশ করায় দৈনিক মানবজমিনের ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নিজস্ব প্রতিবেদক জাবেদ রহিম বিজনকে হত্যার হুমকি দেয়া হয়েছে। “কাজল ভাইয়ের সমর্থক” নামে একটি ফেসবুক আইডি থেকে গত শনি ও রোববার এই হত্যার হুমকি দেয়া হয়।

গত শনিবার রাতে “কাজল ভাইয়ের সমর্থক” নামে একটি ফেসবুক আইডি থেকে সাংবাদিক বিজনের হাতের মূল্য এক কোটি ও পায়ের মূল্য ৫০ লাখ টাকা উল্লেখ করা হয়। আরেকটি পোস্টে “বিজনকে যেখানে পাবে-তাকে সাইজ যে করতে পারবে তাকে পুরস্কৃত করা হবে” এই ঘোষনাও দেয়া হয়।
তবে আখাউড়া পৌর মেয়র তাকজিল খলিফা কাজল বলেন, ফেইক আইডি থেকে কাউকে দিয়ে এটি করানো হয়েছে। ওই আইডির বিরুদ্ধে থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করা হয়েছে।


এদিকে ওই আইডির বিরুদ্ধে (“কাজল ভাইয়ের সমর্থক”) গত রোববার দুপুরে আখাউড়া থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী (জিডি) করেছেন উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক মোঃ শাখাওয়াত হোসেন নয়ন।
থানায় দায়েরকৃত অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, “কাজল ভাইয়ের সমর্থক” নামে একটি ফেসবুক আইডি থেকে গত শনি ও গতকাল রবিবার বিভিন্ন ধরণের পোস্ট দেয়া হচ্ছে। এর মধ্যে মানবজমিনের ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নিজস্ব প্রতিবেদক জাবেদ রহিম বিজনকে হুমকি দেয়ার কথা উল্লেখ করে স্ট্যাটাস দেয়ার পর বিষয়টি অনেকের নজরে চলে আসে। স্ট্যাটাসে বিজনের হাতের দাম এক কোটি, পায়ের দাম ৫০ লাখ টাকা উল্লেখ করা হয়। এছাড়া ‘আইনমন্ত্রী যতদিন ক্ষমতায় আছে আমাদেরকে দুদকের বাপেও কিছু করতে পারবেন না। দুদকের কর্মকর্তা মন্ত্রীর বাড়ির পাহারাদার’ ‘আখাউড়ার রাজনীতির ইতিহাসে কোন সম্মেলনে ১৬০ তোরণ, এটা কাজল ভাই করে দেখিয়েছে’ মেয়রের এমন কিছু দাম্ভিকতার কথা উল্লেখ করা হয়। এরপরই গত রোববার দুপুরে জিডি করেন ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক।

এর আগে গত শুক্রবার (২৫ অক্টোবর) “আখাউড়ায় খলিফা সাম্রাজ্য” শিরোনামে মানবজমিন পত্রিকায় একটি সংবাদ প্রকাশ করা হয়। ওই সংবাদে মেয়র ও যুবলীগ নেতা তাকজিল খলিফা কাজলের বিরুদ্ধে বিভিন্ন অনিয়ম তুলে ধরা হয়।

এ ব্যাপারে সাংবাদিক জাবেদ রহিম বিজন সাংবাদিকদের বলেন- যুবলীগ নেতা ও তার সাঙ্গপাঙ্গদের কাছে অসহায় আখাউড়ার মানুষ। সেই চিত্রই তুলে ধরা হয় খবরে। যা ব্যাপকভাবে প্রশংসিত হয়। তবে এই খবরে দুর্বৃত্তদের মাথায় বাজ পড়েছে। তাই তারা এসব করছে।

এ ব্যাপারে আখাউড়া পৌর সভার মেয়র তাকজিল খলিফা কাজল বলেন, ‘আওয়ামী লীগের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র হচ্ছে। আইনমন্ত্রীর নেতৃত্বে আখাউড়া উপজেলা আওয়ামী লীগ ঐক্যবদ্ধ থাকার বিষয়টি সাবেক সংসদ সদস্য ও তাঁর অনুসারিরা কোনোভাবেই সহ্য করতে পারছেন না। মিথ্যা তথ্য দিয়ে আমার বিরুদ্ধে সংবাদ করানো, ভুয়া আইডি থেকে অপপ্রচার একই সূত্রে গাঁথা। এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় আইনী পদক্ষেপ নেয়া হবে।
এ ব্যাপারে আখাউড়া থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আরিফুল আমীন অভিযোগ পাওয়ার কথা স্বীকার করে বলেন, এ ঘটনায় তদন্তক্রমে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১