শিরোনাম

কাজী মোহাম্মদ শফিকুল ইসলাম কলেজে দৃষ্টিনন্দন শহীদ মিনার উদ্বোধনকালে মোকতাদির চৌধুরী এম.পি

ভাষা আন্দোলনের উপর ভিত্তি করেই বাঙ্গালি জাতি স্বাধিকার আন্দোলনের দিকে ধাবিত হয়

ষ্টাফ রিপোর্টার : | বুধবার, ২১ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ | পড়া হয়েছে 260 বার

ভাষা আন্দোলনের উপর ভিত্তি করেই বাঙ্গালি জাতি স্বাধিকার আন্দোলনের দিকে ধাবিত হয়

কাজী মোহাম্মদ শফিকুল ইসলাম কলেজে প্রধান অতিথি থেকে গতকাল মঙ্গলবার দৃষ্টিনন্দিত শহীদ মিনারের উদ্বোধন করেন পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটি এবং জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা র. আ. ম উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী এম.পি। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন বিজয়নগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ আলী আফরোজ, বিজয়নগর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদের সদস্য এড: জহিরুল ইসলাম ভূঁইয়া, বিজয়নগর থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আলী আর্শাদ, বিজয়নগর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মোঃ বাবুল আক্তার ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ফয়জুন নাহার টুনি, জেলা আওয়ামী লীগের কার্য নির্বাহী সদস্য ও অত্র কলেজের পরিচালনা পর্ষদের বিদ্যোৎসাহী সদস্য কাজী হারিছুর রহমান।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন এফবিসিসিআই এর সাবেক সহ-সভাপতি কাজী মোহাম্মদ শফিকুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের চেয়ারম্যান ও প্রতিষ্ঠাতা আলহাজ্ব  কাজী মোহাম্মদ শফিকুল ইসলাম।


ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মোহাম্মদ জহির উদ্দিন এর পরিকল্পনায় এবং সহকারী অধ্যাপক আহমেদুর রহমান বিনকাস ও শিক্ষক প্রতিনিধি রাহেলা বেগমের উপস্থাপনায় অনুষ্ঠিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ভাষা আন্দোলনের চেতনায় উজ্জীবিত হয়ে দেশ গড়ার কাজে আত্মনিয়োগ করার জন্য ছাত্র ছাত্রীসহ সকলের প্রতি আহ্বান জানান। প্রধান অতিথি বীর মুক্তিযোদ্ধা র.আ.ম. উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী এম.পি মহান একুশে ফেব্রুয়ারির গুরুত্ব তুলে ধরতে গিয়ে একটি জাতির জীবনে মাতৃভাষার প্রয়োজনীয়তা, বাংলা ভাষা সৃষ্টির ইতিহাস, মাতৃভাষাকে রাষ্ট্রীয় ও আন্তর্জাতিকভাবে প্রতিষ্ঠা করার ত্যাগ ও অবদানের কথা তুলে ধরেন। এ প্রেক্ষিতে ভাষার জন্য আত্মত্যাগ করা শহীদ ও ভাষাবিদদের প্রতি শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করে তিনি বলেন, ভাষা আন্দোলনের উপর ভিত্তি করেই বাঙ্গালি জাতি স্বাধিকার আন্দোলনের দিকে ধাবিত হয় এবং পরবর্তীতে ১৯৭১ সালে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর নেতৃত্বে যুদ্ধ করে বাংলাদেশ স্বাধীনতা লাভ করে।

সভাপতি আলহাজ্ব কাজী মোহাম্মদ শফিকুল ইসলাম একুশে ফেব্রুয়ারির গুরুত্ব তুলে ধরে দেশের সকল ক্ষেত্রে বাংলা ভাষার সুষ্ঠু ও সঠিক প্রয়োগের মাধ্যমে ভাষা শহীদদের আত্মত্যাগকে সার্থক করার জন্য ছাত্র ছাত্রীসহ সকলের প্রতি আহবান জানান।

আলোচনা শেষে অতিথিবৃন্দ অত্র কলেজের ছাত্র ছাত্রী পরিবেশিত বিভিন্ন ভাষার গানের সমন্বয়ে এক মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান উপভোগ করেন।

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০৩১