শিরোনাম

ভারত-পাকিস্তান সীমান্তে শান্তি প্রতিষ্ঠায় রাজি

অনলাইন ডেস্ক : | বৃহস্পতিবার, ৩১ মে ২০১৮ | পড়া হয়েছে 115 বার

ভারত-পাকিস্তান সীমান্তে শান্তি প্রতিষ্ঠায় রাজি

নিজেদের সীমান্তে ও কাশ্মীরের নিয়ন্ত্রণরেখায় ভারত ও পাকিস্তান যুদ্ধবিরতি পুনঃপ্রতিষ্ঠায় সম্মত হয়েছে। গত মঙ্গলবার দক্ষিণ এশিয়ার বৈরী দুই দেশ সীমান্তে উত্তেজনা কমাতে এ সিদ্ধান্ত নেয়। দুই দেশের সেনাবাহিনীর ডিরেক্টর জেনারেল অব মিলিটারি অপারেশনস (ডিজিএমও) পর্যায়ে এ আলোচনা হয়। পরে ইসলামাবাদ ও নয়াদিল্লি এ নিয়ে যৌথ বিবৃতি দেয়। খবর আলজাজিরা, টাইমস অব ইন্ডিয়া ও ডনের।

সাম্প্রতিক বছরগুলোতে নয়াদিল্লি ও ইসলামাবাদ একে অপরের বিরুদ্ধে সীমান্ত লঙ্ঘন ও ধারাবাহিক গুলিবর্ষণের পাল্টাপাল্টি অভিযোগ করে আসছিল। গত দেড় বছরে সীমান্ত লঙ্ঘন করে ভারতীয় বাহিনীর চালানো হামলায় কেবল পাকিস্তানেরই শতাধিক নাগরিক নিহত হয়েছে বলে দাবি ইসলামাবাদের। ভারত ও পাকিস্তানের সামরিক অভিযান বিষয়ক মহাপরিচালক পর্যায়ে হটলাইন যোগাযোগের পর নিয়ন্ত্রণরেখা নিয়ে এ সমঝোতা হয়। ইসলামাবাদের উদ্যোগে পাকিস্তান সামরিক বাহিনীর মেজর জেনারেল সাহির শামসাদ মির্জা ও ভারতীয় বাহিনীর লেফটেন্যান্ট জেনারেল অনিল চৌহানের মধ্যে এ যোগাযোগ হয়। সামরিক বাহিনীর মহাপরিচালক পর্যায়ের এ যোগাযোগ মঙ্গলবার ভারতীয় সময় সন্ধ্যা ৬টায় হয়।


দুই সামরিক কর্মকর্তার আলোচনার পর দুই দেশের পক্ষ থেকে প্রায় একই ধরনের বিবৃতি দেওয়া হয়। বিবৃতিতে জানানো হয়, দুই দেশ ১৫ বছর আগের যুদ্ধবিরতি পুনঃপ্রতিষ্ঠায় সহমত হয়েছে। সেই সাথে কাশ্মীরে কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা না ঘটাতে সংযম প্রদর্শনেও সহমত হয়েছে তারা।

বিবৃতিতে আরো বলা হয়, উত্তেজনাকর পরিস্থিতিতেও সংযমী আচরণ করতে এবং হটলাইন ও স্থানীয় পর্যায়ে পতাকা বৈঠকের মাধ্যমে সংকট মোকাবেলায় দুই মহাপরিচালক সম্মত হয়েছেন।

২০০৩ সালে নয়াদিল্লি ও ইসলামাবাদের মেনে নেওয়া যুদ্ধবিরতিও হটলাইন যোগাযোগের মাধ্যমেই অনুমোদিত হয়েছিল। ওই যুদ্ধবিরতিতেও নিয়ন্ত্রণরেখা এবং সীমান্ত বিষয়ে উল্লেখ ছিল।

তবে সম্প্রতি সীমান্ত এবং কাশ্মীরের নিয়ন্ত্রণরেখা বরাবর উত্তেজনা চরমে পৌঁছেছে। ২০১৬ সাল থেকে এ পর্যন্ত সীমান্তে দুই দেশের পাল্টাপাল্টি হামলায় ১৫০ জনের বেশি প্রাণ হারিয়েছেন। এ ছাড়া দুই পক্ষের যুদ্ধবিরতি লঙ্ঘনের মাত্রাও প্রচণ্ড আকার ধারণ করেছে। চলতি বছরের দুই দেশের সেনাবাহিনীর দ্বারা পাঁচ মাসে ১৩০০ বার যুদ্ধবিরতি লঙ্ঘন ঘটেছে। কাশ্মীরের নিয়ন্ত্রণরেখায় এর মধ্যে ৯০৮ বার ঘটেছে।

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০৩১