শিরোনাম

ব্রাহ্মণবাড়িয়া রেলওয়ে স্টেশনের কার্যক্রম চালুর দাবিতে স্মারকলিপি প্রদান

স্টাফ রিপোর্টার | শুক্রবার, ০৪ জুন ২০২১ | পড়া হয়েছে 160 বার

ব্রাহ্মণবাড়িয়া রেলওয়ে স্টেশনের কার্যক্রম চালুর দাবিতে স্মারকলিপি প্রদান

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় হেফাজতের কর্মসূচী চলাকালে গত ২৬ মার্চ মাদরাসার ছাত্রদের ভাংচুর ও অগ্নিসংযোগে ধ্বংসপ্রায় ব্রাহ্মণবাড়িয়া রেলওয়ে স্টেশনটি দ্রুত সংস্কার করে ট্রেনের যাত্রাবিরতি পুনরায় চালু করার দাবিতে বৃহস্পতিবার ০৩ জুন ২০২১ দুপুরে জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে রেলপথ মন্ত্রীর কাছে স্মারকলিপি প্রদান করেছে বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির, ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা কমিটির নেতৃবৃন্দ। বৃহস্পতিবার দুপুরে জেলা প্রশাসক হায়াত-উদ-দৌলা খাঁনের কাছে তারা স্মারকলিপি প্রদান করেন।

স্মারকলিপিতে বলা হয়, ব্রাহ্মণবাড়িয়া রেলওয়ে স্টেশনটি হেফাজতি তান্ডবে ধ্বংসের কারনে জনগনকে সীমাহীন ভোগান্তি পোহাতে হয়েছে। চার-পাঁচগুন টাকা বেশী খরচ করে জনগনকে বাসে করে যাতায়ত করতে হচ্ছে। এছাড়া রেলওয়ে স্টেশনের কার্যক্রম বন্ধের কারনে রেলওয়ে স্টেশনকে কেন্দ্র করে জীবিকা নির্বাহ করা ফেরীওয়ালা, হোটেল ব্যবসায়ী, হোটেলের কর্মচারী, রিকসা চালকসহ নিম্ন আয়ের প্রায় তিন হাজার পরিবার প্রয়োজনীয় অর্থের অভাবে কষ্ট করছে।


স্মারকলিপিতে তান্ডবের ঘটনায় দায়ী হেফাজতে ইসলামের দায়ী নেতা-কর্মীদের গ্রেপ্তার করে আইনের আওতায় আনার দাবি জানানো হয়।

স্মারকলিপি প্রদানকালে জেলা কমিউনিস্ট পার্টির সভাপতি শাহরিয়ার মোঃ ফিরোজ, সাধারণ সম্পাদক সাজিদুল ইসলাম, জেলা কমিউনিস্ট পার্টির নেতা আছমা খানম, সৈয়দ মোহাম্মদ জামাল, অসিত রঞ্জন পাল, আহমেদ হোসেন, এম.এ. রকিব ও অসীম কুমার বর্ধন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, গত ২৬ মার্চ হেফাজতের সন্ত্রাসীরা ব্রাহ্মণবাড়িয়া রেলওয়ে স্টেশনে হামলা করে স্টেশনের কন্ট্রোল রুমের সিগন্যাল প্যানেল ভাংচুর করে পুড়িয়ে দেয়াসহ পুরো স্টেশনটি ধ্বংস করে দেয়। এর পর থেকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া রেলওয়ে স্টেশনে পূর্বনির্ধারিত সকল ট্রেনের যাত্রা বিরতি বাতিল করা হয়।

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০