শিরোনাম

চোখ উপড়ে ও জিহবা কেটে নবীনগরে মিলন সরদারকে হত্যা

ব্রাহ্মণবাড়িয়া থেকে ১৪ আসামী গ্রেপ্তার

স্টাফ রিপোর্টার | শনিবার, ২০ ফেব্রুয়ারি ২০২১ | পড়া হয়েছে 242 বার

ব্রাহ্মণবাড়িয়া থেকে ১৪ আসামী গ্রেপ্তার

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলার কৃষ্ণনগর ইউনিয়নের গৌরনগর গ্রামে পূর্ব বিরোধের জের ধরে মিলন সরদার-(৮০)কে হত্যার ঘটনায় মামলার এজহারনামীয় ১৫ আসামীকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব-১৪-এর ভৈরব ক্যাম্পের সদস্যরা।

গত বুধবার রাত ১১ টায় ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলার থলিয়ারা গ্রামের মুসা মিয়ার বাড়ি থেকে তাদেরকে গ্রেপ্তার করা হলেও গতকাল শুক্রবার সকালে র‌্যাব ভৈরব অফিস থেকে গনমাধ্যম কর্মীদের কাছে একটি প্রেসবিজ্ঞপ্তি প্রেরণ করে বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়।


গত সোমবার রাতে নৃশংসভাবে মিলন সরদারকে হত্যা করা হয়। হত্যার পর তার চোখ উপড়ে ফেলে তার জিহবা কেটে নিয়ে যায় প্রতিপক্ষের লোকেরা।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন, গৌরনগর গ্রামের আজইরা গোষ্ঠীর জালাল মিয়া-(৫২), আলাল মিয়া-(৫০), দয়াল শাহ-(৩৯), জামাল মিয়া-(৪৮), মোঃ হোসেন মিয়া-(৪৮), মাসুদুর রহমান-(৩৫), মিজানুর রহমান-(৫০), মোঃ আমির হোসেন-(৫০), মঈন উদ্দিন ওরফে মনির মিয়া-(৫০), মুহিন উদ্দিন-(২৫), মোঃ কামাল মিয়া-(৬০), রজব আলী-(৭৫), শাহীন মিয়া-(২০) ও মোঃ ডালিম মিয়া (৪০)। পরে তাদেরকে নবীনগর থানায় হস্তান্তর করা হয়।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, নবীনগর উপজেলার গৌরনগর গ্রামের আজইরা গোষ্ঠীর লোকদের সাথে একই এলাকার সরকার গোষ্ঠীর লোকদের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিল। এই বিরোধের জেরে গ্রামে দুই গোষ্ঠীর একাধিক হত্যাকান্ডের ঘটনাও ঘটে।
পূর্ব বিরোধের জের ধরে গত সোমবার রাতে গৌরনগর গ্রামের একটি ওয়াজ মাহফিলে আজইরা গোষ্ঠীর সানাউল্লাহ নামে এক যুবককে মারধোর করে সরকার গোষ্ঠীর লোকজন। খবর পেয়ে আজইরা গোষ্ঠীর লোকজন উত্তেজিত হয়ে দেশীয় অস্ত্র-শস্ত্র নিয়ে সরকার গোষ্ঠীর লোকজনের উপর হামলা করে। হামলাকারীরা মিলন সরদারসহ বেশ কয়েকজনকে কুপিয়ে জখম করে। হামলাকারীরা মিলন সরদারকে হত্যার পর তার চোখ উপড়ে ফেলে ও জিহবা কেটে নিয়ে যায়। নিহত মিলন সরদার কৃষ্ণনগর ইউনিয়নের কান্দাপাড়া গ্রামের মরহুম তালেব আলীর ছেলে।

এই হত্যাকান্ডের ঘঁনায় নিহতের ছেলে মোমেন মিয়া বাদী হয়ে ৫৫ জনকে আসামী করে গত ১৮ ফেব্রুয়ারি নবীনগর থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করা হয়। (মামলা নং-১০, তারিখ-১৮/০২/২০২১ইং)।

এ ব্যাপারে নবীনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আমিনুর রশিদ বলেন, বুধবার রাতে পুলিশ ও র‌্যাব যৌথভাবে অভিযান চালিয়ে সদর উপজেলার থলিয়ালা গ্রাম থেকে হত্যা মামলার ১৪ আসামীকে গ্রেপ্তার করা হয়। শুক্রবার বিকেলে তাদেরকে আদালতে সোপর্দ করা হবে।

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০৩১