শিরোনাম

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় সাংবাদিককে হত্যার হুমকির প্রতিবাদে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত

শফিকুল ইসলাম সোহেল | বুধবার, ০৬ নভেম্বর ২০১৯ | পড়া হয়েছে 208 বার

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় সাংবাদিককে হত্যার হুমকির প্রতিবাদে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক ও পৌরসভার মেয়র তাকজিল খলিফা কাজলকে নিয়ে সংবাদ প্রকাশের জেরে দৈনিক মানবজমিনের ব্রাহ্মণবাড়িয়াস্থ স্টাফ রিপোর্টার জাবেদ রহিম বিজনকে হত্যার হুমকি দেয়ার ঘটনায় জড়িতদের দ্রুত গ্রেপ্তার ও দৃষ্টান্তÍমূলক শাস্তির দাবিতে গত মঙ্গলবার ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়।

গত মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১০টায় ব্রাহ্মণবাড়িয়া টেলিভিশন জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশনের উদ্যোগে প্রেসক্লাবের সামনে এই মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।
ব্রাহ্মণবাড়িয়া টেলিভিশন জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মনজুরুল আলমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেসক্লাবের সভাপতি খ.আ.ম রশিদুল ইসলাম, সাবেক সভাপতি মোহাম্মদ আরজু, সাংবাদিক আল-আমিন শাহীন, সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক রিয়াজ উদ্দিন জামি, সিনিয়র সাংবাদিক আবদুন নূর, আ.ফ.ম কাউছার এমরান, সৈয়দ মোহাম্মদ আকরাম, উজ্জল চক্রবর্তী প্রমুখ।


মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, মেয়রের বিভিন্ন অনিয়ম নিয়ে সংবাদ প্রকাশের কারণে বিজনকে হত্যার হুমকি দেয়া হয়েছে। ঘটনার ১১দিন পেরিয়ে গেলেও হুমকিদাতাদের গ্রেপ্তার করতে পারেনি পুলিশ। বক্তারা বলেন, সাংবাদিক বিজনকে হত্যার হুমকির বিষয়টি পুরো সাংবাদিক সমাজের জন্য উদ্বেগজনক। তারা অবিলম্বে হুমকিদাতাদের গ্রেপ্তার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান।

মানববন্ধন শেষে একটি বিক্ষোভ মিছিল শহরের প্রধান প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে পুনরায় প্রেসক্লাবের সামনে এসে শেষ হয়।
এর আগে গত ২৫ অক্টোবর দৈনিক মানবজমিন পত্রিকায় আখাউড়া পৌরসভার মেয়র ও যুবলীগ নেতা তাকজিল খলিফা কাজলকে নিয়ে “আখাউড়ায় খলিফা সাম্রাজ্য” শিরোনামে একটি সংবাদ প্রকাশিত হয়। ওই সংবাদ প্রকাশের পরপর ফেসবুকে সাংবাদিক বিজনকে হত্যার হুমকি দেয়া হয়।
“কাজল ভাইয়ের সমর্থক” নামের একটি ফেসবুক আইডি থেকে গত ২৬ অক্টোবর রাতের কোন এক সময়ে ‘বিজনের হাতের দাম- ১০০০০০০০/, পা- ৫০০০০০০, হত্যা মামলা সহ দেয়া হবে ১৫০০০০০০’ লিখে একটি পোস্ট দেয়া হয়। এছাড়াও ‘বিজনকে যেখানে পাবে-তাকে সাইজ যে করতে পারবে তাকে পুরস্কৃত করা হবে’ ইত্যাদি পোস্ট দেয়া হয়।

এ ঘটনায় গত ২৮ অক্টোবর রাতে সাংবাদিক জাবেদ রহিম বিজন ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর মডেল থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী (জিডি) করেন।
এ ব্যাপারে আখাউড়া পৌরসভার মেয়র তাকজিল খলিফা কাজল বলেন, ফেইক আইডি থেকে কাউকে দিয়ে এটি করানো হয়েছে। ওই আইডির বিরুদ্ধে গত ২৭ অক্টোবর আখাউড়া উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক মোঃ শাখাওয়াত হোসেন নয়ন আখাউড়া থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেছেন। তিনি বলেন, আমিও সাংবাদিক বিজনকে হত্যার হুমকিদাতাদের বিচার দাবি করি। আশা করি পুলিশ দ্রুত অপরাধীদের সনাক্ত করে আইনের আওতায় নিয়ে আসবে।

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১