শিরোনাম

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় শান্তিপূর্নভাবে ভোট গ্রহন

স্টাফ রিপোর্টার | সোমবার, ০১ মার্চ ২০২১ | পড়া হয়েছে 207 বার

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় শান্তিপূর্নভাবে ভোট গ্রহন

বিচ্ছিন্ন কয়েকটি ঘটনা ছাড়া কড়া নিরাপত্তা ব্যবস্থার মধ্যে দিয়ে রোববার ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় শান্তিপূর্নভাবে পৌরসভার ভোট গ্রহন অনুষ্ঠিত হয়েছে। তবে ভোট কেন্দ্রের বাইরে দুর্বৃত্তরা একটি ককটেল বিষ্ফোরণ ঘটালে সকাল ১০টা ৫৫ থেকে ১১টা ২৩ মিনিট পর্যন্ত ব্রাহ্মণবাড়িয়া সরকারি কলেজ কেন্দ্রের একটি বুথে ভোট গ্রহন বন্ধ থাকে।

সকাল ৮ টা থেকে বিরতিহীনভাবে বিকেল ৪টা পর্যন্ত পৌরসভার ৪৮টি কেন্দ্রে ইলেক্ট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) চলে ভোট গ্রহন। নির্বাচনে ৬জন মেয়র, ১২টি ওয়ার্ডের মধ্যে ১১টি ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে ৫৬জন এবং ৪টি সংরক্ষিত ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে ১৫জন সহ মোট ৭৭জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। পৌরসভার ৬নং ওয়ার্ডে বর্তমান কাউন্সিলর ওমর ফারুক জীবন বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন।


নির্বাচনে মেয়র পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন আওয়ামী লীগ মনোনীত ও বর্তমান মেয়র মিসেস নায়ার কবির-(নৌকা), বিএনপি মনোনীত জহিরুল হক খোকন-(ধানের শীষ), আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী মাহমুদুল হক ভূইয়া-( মোবাইল ফোন), বাংলাদেশ ওয়ার্কার্স পার্টি মনোনীত মোঃ নজরুল ইসলাম (হাতুড়ী), ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ মনোনীত মোঃ আবদুল মালেক (হাতপাখা) ও স্বতন্ত্র প্রার্থী আবদুল কারীম (নারিকেল গাছ)।

সকাল ৮টার পর থেকেই ভোট কেন্দ্রগুলোতে ছিলো ভোটারদের ব্যাপক উপস্থিতি। বেলা বাড়ার সাথে সাথে বাড়তে থাকে ভোটারের সংখ্যা। তবে পৌর এলাকার ভাদুঘরের ভোট কেন্দ্রগুলোতে ছিলো ভোটারদের উপচেপড়া ভীড়।

বেলা সোয়া ১১টার সময় শহরের মেড্ডা হুমায়ূন কবির বিদ্যা নিকেতনে গিয়ে দেখা যায় ভোটারদের লম্বা লাইন। এই কেন্দ্রের প্রিজাইডিং অফিসার জানান, এই কেন্দ্রের ৩১৭৭ ভোটারের মধ্যে সকাল ১০টা পর্যন্ত ৪১১ জন ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন।

বেলা সাড়ে ১১টায় মেড্ডা (পশ্চিম) সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় গিয়ে দেখা যায় ভোটাররা শান্তিপূর্নভাবে ভোট দিচ্ছেন। এই কেন্দ্রের প্রিজাইডিং অফিসার জানান বেলা ১১টা পর্যন্ত এই কেন্দ্রের ৩৫২৩ ভোটের মধ্যে ৭৪১জন ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন।

দুপুর বারো টায় পৌর কলেজে গেলে কেন্দ্রের প্রিজাইডিং অফিসার মনির হোসেন জানান, বেলা ১২টা পর্যন্ত এই কেন্দ্রে ২৭ পার্সেন্ট ভোট পড়েছে।

দুপুর ১টায় ভাদুঘর পূর্বপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে গিয়ে দেখা যায় ভোটারদের উপচেপড়া ভীড়। কেন্দ্রের প্রিজাইডিং অফিসার নাজমুল হাসান জানান, দুপুর ১২টা পর্যন্ত এই কেন্দ্রের ২২০২জন ভোটারের মধ্যে ৮১১জন ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন।

দুপুর দেড়টায় ভাদুঘর ঋষিপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে গেলে কেন্দ্রের প্রিজাইডিং অফিসার আল-আমিন বলেন, দুপুর ১২টা পর্যন্ত এই কেন্দ্রের ২১৫৭ ভোটের মধ্যে ৩০ ভাগ ভোট পড়ে।

দুপুর দুইটার দিকে গোকর্ণঘাট মাদরাসা কেন্দ্রে গিয়ে দেখা যায় ভোটার উপস্থিতি একটু কম। এই কেন্দ্রের প্রিজাইডিং অফিসার খন্দকার নেসার আহমেদ বলেন, দুপুর ১টা পর্যন্ত এই কেন্দ্রের ২৯৫৫ ভোটের মধ্যে ৪০ ভাগ ভোট পড়েছে।

কাজীপাড়া দরগা মহল্লা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রের প্রিজাইডিং অফিসার শামসুল হক বলেন, এই কেন্দ্রের ২ ৭২৬ ভোটের মধ্যে দুপুর ২টা পর্যন্ত ১১২০জন ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন।

এদিকে নির্বাচন উপলক্ষে আইন-শৃংখলা রক্ষার্থে নির্বাচনী এলাকায় চারস্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহন করা হয়। ৪৮টি ভোট কেন্দ্রে ১৬টি মোবাইল টিম, ১২টি স্ট্রাইকিং টিম, ৭টি স্ট্যান্ডবাই পার্টি, ১২টি চেক পোস্ট ডিউটি, ২টি নৌ-টহলসহ পোষাকধারী ও সাদা পোষাকে ৮শত জন পুলিশ অফিসার ও ফোর্স মোতায়েন করা হয়। এছাড়াও ১ জন জুুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট, ২৪জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট, ২৭ জন র‌্যাব, ২৪০ জন বিজিবি সদস্য, ১০ জন ব্যাটালিয়ন আনসার এবং ৪৩২ জন অঙ্গীভূত আনসার নির্বাচনে দায়িত্ব পালন করেন।

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০৩১