শিরোনাম

মহান শহীদ দিবস ও আর্ন্তজাতিক মার্তৃভাষা দিবসে

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় নির্ধারিত সময়ে পতাকা উত্তোলন হয়নি কয়েকটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ॥ শ্রদ্ধা জানানো হয়নি ভাষা শহীদদের

স্টাফ রিপোর্টার | রবিবার, ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২১ | পড়া হয়েছে 90 বার

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় নির্ধারিত সময়ে পতাকা উত্তোলন হয়নি কয়েকটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ॥ শ্রদ্ধা জানানো হয়নি ভাষা শহীদদের

মহান শহীদ দিবস এবং আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বেশ কয়েকটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়নি, এমনকি বেশ কয়েকটি বিদ্যালয়ে উত্তোলন করা হয়নি জাতীয় পতাকা। ভাষা দিবসেও খোলা হয়নি বেশ কয়েকটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান।

রোববার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত সরজমিনে ঘুরে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে এমন চিত্র দেখা গেছে। এতে করে স্থানীয় বাসিন্দাদের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।


রোববার সকালে সদর উপজেলার সুলতানপুর ইউনিয়নের জাঙ্গাল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে গিয়ে দেখা যায় স্কুল বন্ধ। শহীদ মিনারটিও অপরিষ্কার-অপরিচ্ছন্ন। স্কুলে উত্তোলন করা হয়নি জাতীয় পতাকা।

স্থানীয় বাসিন্দা মতিউর রহমান ও হোসেন মিয়া ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, অমর একুশ আমাদের গর্ব, অমর একুশ আমাদের প্রেরণা। কিন্তু আজকের দিনেও আমাদের স্কুলটি খোলা হয়নি।

তারা দুঃখ প্রকাশ করে বলেন, আজকে যদি স্কুলের শহীদ মিনারে ফুল দিয়ে ভাষা শহীদদেরকে শ্রদ্ধা জানানো হতো তাহলে স্কুলের শিক্ষার্থীরা ভাষা শহীদদের সম্পর্কে জানতে পারতো। তাদের মধ্যে দেশপ্রেম জাগ্রত হতো।

এ ব্যাপারে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক দীলিপ কুমার দেব বলেন, তিনি সকাল ৬টায় বিদ্যালয়ে গিয়ে শহীদ মিনারে ফুল দিয়ে এসেছেন।

একই ইউনিয়নের সিন্দুরউড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পতাকা উত্তোলন করা হলেও শহীদ মিনারটি অপরিষ্কার-অপরিচ্ছন্ন দেখা গেছে। শহীদ মিনারে কোন পুষ্পস্তবক অর্পন করা হয়নি।

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা সালমা আক্তার দাবি করেন, আগের দিন শহীদ মিনার পরিস্কার করা হয়েছিল। তিনি বলেন, শহীদ মিনারের নির্মাণ কাজ শেষ না হওয়ায় শ্রদ্ধাঞ্জলি দিতে পারেননি।

সকাল ১০টায় সদর উপজেলার শালগাঁও-কালিসীমা স্কুল এন্ড কলেজে গিয়ে দেখা গেছে সংশ্লিষ্টরা শহীদ মিনারে শ্রদ্ধাঞ্জলির প্রস্তুতি নিচ্ছেন। সকাল সাড়ে ১০ টায় পৌর এলাকার গোকর্ণঘাট উচ্চ বিদ্যালয়ে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করা হয়। দুপুর সাড়ে ১২ টায় ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌর এলাকার ভাদুঘর মাহবুবুল হুদা ভূইয়া পৌর আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ে পতাকা উত্তোলন করা হয়। বিদ্যালয়ের পিয়ন রাহিম মিয়া বলেন, বিদ্যালয়ের শিক্ষক নজরুল ইসলাম তাকে বলেছেন ১২টার পর পতাকা উত্তোলন করতে।

এ ব্যাপারে শিক্ষক নজরুল ইসলাম বলেন, আমি তাকে রাত ১২টা ১মিনিটে পতাকা উত্তোলনের কথা বলেছিলাম। সে বুঝতে ভুল করেছে।

এ ব্যাপারে সদর উপজেলা শিক্ষা অফিসার উম্মে সালমা বলেন, করোনা পরিস্থিতির জন্য বিদ্যালয় বন্ধ থাকলেও শিক্ষকদেরকে উপস্থিত থেকে বিদ্যালয়ে জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত রাখা এবং যেসব বিদ্যালয়ে শহীদ মিনার রয়েছে সেসব বিদ্যালয়ে শিক্ষকদের শ্রদ্ধা জানানোর নির্দেশনা ছিল। তিনি বলেন, খোঁজ নিয়ে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০৩১