শিরোনাম

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় জাতীয় আইনগত সহায়তা দিবস উদযাপিত

| মঙ্গলবার, ০১ মে ২০১৮ | পড়া হয়েছে 130 বার

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় জাতীয় আইনগত সহায়তা দিবস উদযাপিত

“উন্নয়ন আর আইনের শাসনে এগিয়ে চলছে দেশ, লিগ্যাল এইডের সুফল পাচ্ছে সারা বাংলাদেশ” এই শ্লোগানকে সামনে রেখে প্রতি বছরের ন্যায় ব্যাপক উৎসাহ, উদ্দীপনায় ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলায় জাতীয় আইনগত সহায়তা দিবস-২০১৮ উদযাপিত হয়েছে। দিবস উদযাপন উপলক্ষে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা লিগ্যাল এইড কমিটি দিনব্যাপী বিশেষ কর্মসূচী গ্রহণ করেছে। গত শনিবার সকাল ৯টায় নিয়াজ ফারুকী পার্কে জেলা লিগ্যাল এইড কমিটির চেয়ারম্যান (জেলা ও দায়রা জজ) মোঃ ইসমাইল হোসেন পায়রা উড়িয়ে দিবসের উদ্বোধন করেন। তার নেতৃত্বে বর্ণাঢ্য র‌্যালী শহরের গুরুত্বপুর্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে জেলা জজ আদালত প্রাঙ্গণে এসে সমাপ্ত হয়। জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপার, বিচারকবৃন্দ, পাবলিক প্রসিকিউটর, আইনজীবী সমিতির নেতৃবৃন্দ, আদালত ও বিভিন্ন সরকারি দপ্তরের কর্মকর্তা, কর্মচারীসহ সমাজের বিভিন্ন শ্রেণির মানুষ র‌্যালীতে অংশগ্রহণ করেন। সরকারি আইনগত সহায়তা সংক্রান্ত জনসচেতনতা সৃষ্টি ও প্রচারের লক্ষ্যে জেলা জজ আদলত প্রাঙ্গণে দিনব্যাপী লিগ্যাল এইড মেলা আয়োজন করা হয় এবং নাটিকা ও প্রামাণ্যচিত্র প্রদর্শন করা হয়। দিবসের তাৎর্পয সম্পর্কে বেলা ১০ টায় জেলা জজ আদালত ভবনের সম্মেলন কক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন জেলা কমিটির চেয়ারম্যান (জেলা ও দায়রা জজ) মোঃ ইসমাইল হোসেন। আলোচনা সভায় বক্তব্য প্রদান করেন অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ মোহাম্মদ মোয়াজ্জেম হোসেন, ভারপ্রাপ্ত চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট শফিকুল ইসলাম, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট তাজিনা সারোয়ার, জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি মোঃ ফখর উদ্দিন আহমেদ খান, সরকারি কৌশলী ওয়াছেক আলী, ভারপ্রাপ্ত পাবলিক প্রসিকিউটার এস, এম, ইউসুফ, জেলা আইনজীবি সমিতির সাধারন সম্পাদক এডঃ শফিউল আলম লিটন। সভায় আলোচকবৃন্দ আইনগত সহায়তা দিবসের তাৎপর্য এবং গুরুত্ব তুলে ধরেন। সভাপতির বক্তব্যে জেলা লিগ্যাল এইড কমিটির চেয়ারম্যান বলেন “অসচ্ছল ও অসহায় জনগণকে বিনামূল্যে সরকারি আইনি সেবা প্রদান বর্তমান সরকারের একটি কল্যাণমুখী মহৎ উদ্যোগ”। তিনি আরও বলেন আইনি অধিকার প্রতিষ্ঠায় অসচ্ছলতা এখন আর কোন বাধা নয়, সরকার তাদের পাশে আছে। তিনি সমাজের বিত্তবান ও সচেতন নাগরিকদের সরকারের এই উদ্যোগের প্রচার ও প্রসারে আন্তরিক ভূমিকা রাখার আহবান জানান। সভায় সূচনা বক্তব্যে জেলা লিগ্যাল এইড অফিসার (সিনিয়র সহকারী জজ) মোঃ আবদুল্লাহ্ আল আমিন ভূঁইয়া বলেন ২০১৭ সালে জেলা লিগ্যাল এইড কমিটি ২৮২ টি মামলায় বিনামূল্যে সরকারি আইনগত সহায়তা প্রদান করে এবং ২৪৫ জন নারী ও ১২৪ জন পুরুষকে আইনি পরামর্শ প্রদান করে। তিনি আরও বলেন বিকল্প বিরোধ নিষ্পত্তি প্রক্রিয়ার মাধ্যমে মামলা ছাড়াই জেলা লিগ্যাল এইড অফিস পক্ষদের ৩২,৯০,২০০ টাকা আদায় করে দিতে সক্ষম হয় যা বিগত বছরগুলোর থেকে সর্বোচ্চ। সভায় সঞ্চালনা করেন সিনিয়র সহকারী জজ আলমগীর আল-মামুন। আলোচনা সভায় জেলা আদালত সমূহের বিচারকবৃন্দ, আইনজীবী, নির্বাহী ও পুলিশ প্রশাসনের কর্মকর্তাবৃন্দ, সুশীল সমাজের ব্যক্তিবর্গ, গণমাধ্যমকর্মী এবং বেসরকারি এন. জি. ও কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন। সভায় জেলা কমিটির চেয়ারম্যান বিগত ২০১৭ সালে সন্তোষজনক দায়িত্ব পালনের স্বীকৃতি সরূপ শরমিন বেগম এবং খন্দকার আব্দুল ওয়াদুদ কে সেরা প্যানেল আইনজীবী হিসাবে ক্রেস্ট প্রদান করেন। এছাড়া বেলা ২ টায় জেলা লিগ্যাল এইড অফিস, জেলা কারা কর্তৃপক্ষ এবং জিআইজেড এর সমন্বয়ে কারাভ্যন্তরে সচেতনতামূলক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।-প্রেস বিজ্ঞপ্তি


আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১