শিরোনাম

দিল্লীতে সাম্প্রদায়িক সহিংসতার প্রতিবাদে

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ছাত্রমৈত্রীর মানববন্ধন

শফিকুল ইসলাম সোহেল | শনিবার, ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০ | পড়া হয়েছে 244 বার

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ছাত্রমৈত্রীর মানববন্ধন

ভারতের দিল্লীতে সাম্প্রদায়িক সহিংসতা, ধর্মীয়-শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও বাড়িঘরে হামলা এবং অগ্নিসংযোগের প্রতিবাদে শনিবার (২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০) বিকেলে বাংলাদেশ ছাত্রমৈত্রী ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা শাখার উদ্যোগে ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধন কর্মসূচী পালিত হয়।

মানববন্ধন চলাকালে সংগঠনের যুগ্ম আহবায়ক সানিউর রহমানের সভাপতিত্বে সহিংস ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ এবং সাম্প্রদায়িক সহিংসতা অবিলম্বে বন্ধের দাবি জানিয়ে বক্তব্য রাখেন, জাতীয় শ্রমিক ফেডারেশন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলাম, ছাত্রমৈত্রীর সাবেক নেতা অ্যাডভোকেট মোঃ নাসির, ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক দীপক চৌধুরী বাপ্পী, যুবমৈত্রীর নেতা আরমান উদ্দিন, ছাত্রমৈত্রীর নেতা সাইফুর ইসলাম, ফাহিম মুনতাসির, জুবায়ের আহমেদ, তাহমিদ হোসাইন চৌধুরী, মোঃ জিহাদ, তুষার মিয়া, মেহেদী হাসান, অন্তর,স্বপ্নিল প্রমুখ।


মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, ভারতে বিজিপির কতিপয় নেতার সাম্প্রদায়িক উস্কানিমূলক বক্তব্যের জেরে সাম্প্রদায়িকতার আগুনে দিল্লী পুড়ছে। ভারত সরকারের উদাসীনতায় এই সহিংসতা আরো ব্যাপক আকার ধারন করতে পারে।

সারা বিশ্বে মৌলবাদী অপশক্তির উত্থানের কারনে বিশ্বের কোথাও ধর্মীয় ও ভাষাগত সংখ্যালঘুরা আজ নিরাপদ নয়। সাম্প্রদায়িক অপশক্তির বিরুদ্ধে অসাম্প্রদায়িক চেতনার অধিকারী সমস্ত মানুষকে আজ ঐক্যবদ্ধভাবে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে হবে। বক্তারা বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকীর অনষ্ঠানে সাম্প্রদায়িক হিন্দুত্ববাদের প্রথিকৃত নরেন্দ্র মোদিসহ অন্যান্য সাম্প্রদায়িক কোন নেতাকে আমন্ত্রন না জানানোর জন্য সরকারের প্রতি আহবান জানান।

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০৩১