শিরোনাম

এসএসসি পরীক্ষার ফলাফল

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় অন্নদা সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় শীর্ষে ॥ ১৪ বিদ্যালয়ের শতভাগ পাশ

শামীম-উন-বাছির | রবিবার, ৩১ মে ২০২০ | পড়া হয়েছে 278 বার

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় অন্নদা সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় শীর্ষে ॥ ১৪ বিদ্যালয়ের শতভাগ পাশ

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় এসএসসি পরীক্ষার ফলাফলে জিপিএ-৫ পাওয়ার দিক দিয়ে এগিয়ে রয়েছে জেলার ঐতিহ্যবাহি অন্নদা সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়। এই বিদ্যালয় থেকে জিপিএ-৫ পেয়েছে ১২৬জন। এছাড়া জেলার ১৪টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে শতভাগ পাশ করেছে। এর মধ্যে সদর উপজেলায় ১টি, কসবা উপজেলায় ৫টি, বাঞ্ছারামপুর উপজেলায় ৩টি, নাসিরনগর উপজেলায় ১টি, নবীনগর উপজেলায় ২টি ও আখাউড়া উপজেলার ২টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান রয়েছে।

জেলার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তাদের সাথে কথা বলে জানা এই তথ্য জানা গেছে।
খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার জেলা সদরের ঐহিত্যবাহি অন্নদা সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এ বছর ৩১৯জন শিক্ষার্থী এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নিয়ে পাশ করেছে ৩১৬জন। এর মধ্যে জিপিএ-৫ পেয়েছে ১২৬জন। পাসের হার ৯৯ দশমিক ০৬ শতাংশ।


জেলা সদরের সাবেরা সোবহান সরকারি উচ্চ বালিকা বিদ্যালয় থেকে এ বছর ৩৩৫জন শিক্ষার্থী এস.এস.সি পরীক্ষায় অংশ গ্রহন করে পাশ করেছে ৩২৫জন। এর মধ্যে জিপিএ-৫ পেয়েছে ৭৩জন। পাসের হার ৯৭ দশমিক ০১ শতাংশ।

জেলা সদরের গভঃ মডেল গার্লস হাই স্কুল থেকে এ বছর ২০৫জন শিক্ষার্থী এসএসসি পরীক্ষায় অংশ গ্রহন করে পাশ করেছে ১৯৬জন। জিপিএ-৫ পেয়েছে ৫৬জন। পাসের হার ৯৫ দশমিক ৬১ শতাংশ।

আশুগঞ্জ উপজেলার আশুগঞ্জ সারকারখানা স্কুল থেকে এ বছর ১২৫জন শিক্ষার্থী এসএসসি পরীক্ষায় অংশ গ্রহন করে পাশ করেছে ১২০জন। এর মধ্যে জিপিএ-৫ পেয়েছে ৩৯জন। পাসের হার ৯৬শতাংশ।

আশুগঞ্জ উপজেলার আশুগঞ্জ তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্র উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এবছর ৮৫জন শিক্ষার্থী এসএসসি পরীক্ষায় অংশ গ্রহন করে পাশ করেছে ৮৩জন। এর মধ্যে জিপিএ-৫ পেয়েছে ২৮জন। পাসের হার ৯৭ দশমিক ৬৫ শতাংশ।

এছাড়া জেলার শতভাগ পাস করা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে বাঞ্ছারামপুর উপজেলার উজানচর কে এন উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এবছর ১১০জন শিক্ষার্থী এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নিয়ে শতভাগ শিক্ষার্থী পাশ করেছে। জিপিএ-৫ পেয়েছে ১২জন।

একই উপজেলার সরকারি এস এম পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এ বছর ৯৭জন শিক্ষার্থী এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নিয়ে শতভাগ শিক্ষার্থী পাশ করেছে। জিপিএ-৫ পেয়েছে ১৮জন।

একই উপজেলার এইচ কে আছমাতুন্নেছা উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এবছর ৭১জন শিক্ষার্থী এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নিয়ে শতভাগ শিক্ষার্থী পাশ করেছে। জিপিএ-৫ পেয়েছে ১৪জন।

নবীনগর উপজেলার দুটি বিদ্যালয়ে পাসের হার শতভাগ। এ উপজেলা নাটঘর উচ্চ বিদ্যালয় থেকে ৫২জন শিক্ষার্থী এসএসসি পরীক্ষায় অংশ গ্রহন করে শতভাগ শিক্ষার্থী পাশ করেছে। তবে কেউ জিপিএ-৫ পায়নি।

একই উপজেলার নোয়াগাঁও উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এ বছর ১০৫জন শিক্ষার্থী এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নিয়ে শতভাগ শিক্ষার্থী পাশ করেছে। জিপিএ-৫ পেয়েছে ৩জন।

আখাউড়া উপজেলার দুটি বিদ্যালয়ে পাসের হার শতভাগ। আখাউড়ার ভাটামাথা আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এ বছর ৭১জন পরীক্ষার্থী এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নিয়ে শতভাগ শিক্ষার্থী পাশ করেছে।

একই উপজেলার আমোদাবাদ আলহাজ্ব শাহআলম উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এ বছর ৮০জন পরীক্ষার্থী এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নিয়ে শতভাগ শিক্ষার্থী পাশ করেছে।

সদর উপজেলার অঙ্কুর-অন্বেষা বিদ্যাপিঠ থেকে এ বছর ১২জন শিক্ষার্থী এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নিয়ে সবাই পাশ করেছে। পাসের হার শতভাগ।

নাসিরনগর সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এ বছর ৫জন শিক্ষার্থী এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নিয়ে ৫ জনই পাশ করেছে। পাসের হার শতভাগ। এছাড়া কসবা উপজেলার পাঁচটি বিদ্যালয়ে পাসের হার শতভাগ।

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০৩১