শিরোনাম

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সুপার মার্কেটের খালি জায়গাটি ময়লার ভাগাড়ে পরিনত ॥ শহরবাসীর দুর্ভোগ

স্টাফ রিপোর্টার | বুধবার, ০৫ মে ২০২১ | পড়া হয়েছে 158 বার

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সুপার মার্কেটের খালি জায়গাটি ময়লার ভাগাড়ে পরিনত ॥ শহরবাসীর দুর্ভোগ

ময়লা-আবর্জনার ভাগাড়ে পরিনত হয়েছে ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহরের প্রাণকেন্দ্র সুপার মার্কেটের খালি জায়গাটি। এতে করে ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন ঈদ-উল ফিতরকে সামনে রেখে শহরে শপিং করতে আসা সাধারণ মানুষসহ আশপাশ এলাকার ব্যবসায়ীদের। নাকে রুমাল চাপা দিয়ে কোর্ট রোডে ঢুকতে হচ্ছে পথচারী ও শহরের মানুষের।

স্থানীয়রা জানান, শহরের প্রানকেন্দ্র হচ্ছে কোর্ট রোড। বছর দেড়েক আগে বহুতল বিশিষ্ট ও নান্দনিক একটি সুপার মার্কেট নির্মান করার জন্য পৌর কর্তৃপক্ষ তাদের মালিকানাধীন একতলা বিশিষ্ট সুপার মার্কেটটি ভেঙ্গে ফেলে।


এর পর থেকে মার্কেটের খালি জায়গায় ময়লা ও আবর্জনা ফেলছেন পৌর কর্তৃপক্ষ। এতে করে সুপার মার্কেট সংলগ্ন গ্রীন সুপার মার্কেট, সিটি সেন্টার ও এফ.এ টাওয়ার (ফরিদ আনোয়ারা টাওয়ার) এর ব্যবসায়ীদের অসুবিধা হচ্ছে। ময়লা-আবর্জনার গন্ধে ওইসব মার্কেটে নাকে রুমাল চেপে ক্রেতারা প্রবেশ করছেন। এছাড়াও ভেঙ্গে ফেলা সুপার মার্কেটের কাছে রয়েছে ইসলামি ব্যাংক লিমিটেড, শাহজালাল ইসলামি ব্যাংক, ইউনিয়ন ব্যাংকসহ বেশ কয়েকটি ব্যাংক। ময়লা-আবর্জনার গন্ধে ব্যাংকে আসা-যাওয়া করতে গ্রাহকদেরকেও ভোগান্তির শিকার হতে হচ্ছে।

স্থানীয়রা জানান, পৌর সভার ময়লা-আবর্জনা ফেলার জন্য পৌর এলাকার ছয়বাড়িয়ায় রয়েছে পৌরসভার বিশাল জায়গা। আগে সেখানেই ময়লা-আবর্জনা ফেলা হতো। কিন্তু সুপার মার্কেটটি ভেঙ্গে ফেলার পর পৌর কর্তৃপক্ষ বর্তমানে সেখানেও ময়লা-আবর্জনা ফেলছেন।

ওই এলাকার ব্যবসায়ীরা জানান, প্রতিদিন সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত পৌরসভার ছোট ছোট ট্রলি ভ্যান দিয়ে শহরের বিভিন্ন মহল্লা থেকে বাসা-বাড়ির ময়লা-আবর্জনা এনে এখানে ফেলা হচ্ছে। ফলে ময়লা-আবর্জনার গন্ধে ওই এলাকার পরিবেশ দূষিত হচ্ছে।

কোর্ট রোডের ব্যবসাযী সোহাগ মিয়া বলেন, ময়লা-আবর্জনার গন্ধে তাদের ব্যবসা করাই কঠিন হয়ে গেছে। রোজা রেখে সারাদিন নাকে চেপে ধরে ব্যবসা করতে হয়।

একই কথা বললেন ওই এলাকার ব্যবসায়ী তানভীর মিয়া। তিনি বলেন, ময়লার দুগর্ন্ধের মধ্যেই আমাদের দোকান খোলা রাখতে হচ্ছে। তারা অবিলম্বে সেখানে থাকা ময়লার ভাগাড় অপসারণ করার দাবি জানান।

ঈদের শপিং করতে শহরে আসার সরাইল উপজেলার উচালিয়াপাড়ার কবির মিয়া বলেন, শহরের কোর্ট রোডে ঢুকেই ময়লা-আবর্জনার গন্ধে তার দম বন্ধ হওয়ার উপক্রম। তিনি অবলম্বে ময়লা-আবর্জনা অপসারণ করার জন্য পৌর কর্তৃপক্ষের কাছে দাবি জানান।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এফ.এ.টাওয়ারের এক ব্যবসায়ী বলেন, ময়লা-আবর্জনার গন্ধে দোকানে বসাই দায় হয়ে পড়েছে। ক্রেতারা নাকে রুমাল চেপে মার্কেটে আসা-যাওয়া করছেন। তিনি অবলম্বে সুপার মার্কেটের খালি জায়গা থেকে ময়লা-আবর্জনা অপসারণ করার জন্য পৌর কর্তৃপক্ষের কাছে দাবি জানান।

এ ব্যাপারে পৌর সভার সচিব মোঃ শামসুদ্দিন সাংবাদিকদের বলেন, পৌর এলাকায় ময়লা-আবর্জনা ফেলার জন্য পর্যাপ্ত জায়গা না থাকায় ওই স্থানে অস্থায়ীভাবে ময়লা ফেলা হয়। তিনি বলেন, ময়লা-আবর্জনা ফেলার পর শুকিয়ে গেলে সেখান থেকে ময়লা সরিয়ে অন্যত্র ফেলা হয়। তিনি বলেন, মেয়রের সাথে পরামর্শ করে এখানকার ময়লা-আবর্জনা অপসারনের ব্যবস্থা করা হবে।

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০