শিরোনাম

বৈবাহিক ধর্ষণের জেরে হত্যা করা হলো স্বামীকে, মৃত্যুদণ্ড দেয়া হলো স্ত্রীকে

অনলাইন ডেস্ক : | রবিবার, ১৩ মে ২০১৮ | পড়া হয়েছে 133 বার

বৈবাহিক ধর্ষণের জেরে হত্যা করা হলো স্বামীকে, মৃত্যুদণ্ড দেয়া হলো স্ত্রীকে

স্ত্রীকে ধর্ষণের চেষ্টা করায় স্বামীকে হত্যা করলো স্ত্রী। এ অপরাধে ১৯ বছরের সৌদি তরুণী নউরা হুসেনকে মৃত্যুদণ্ডের সাজা দিলো আদালত।

১৫ বছর বয়সে নউরাকে জোর করে বিয়ে দেওয়া হয়। এরপর নউরা তার স্বামীর বাড়ি থেকে পালিয়ে এসে তিনবছর তার ফুফুর কাছে লুকিয়ে থাকেন। কিন্তু নউরার বাবা কৌশল করে মেয়েকে বাড়ি নিয়ে আসেন এবং এরপর তার স্বামীর হাতে তুলে দেন। নউরার স্বামী এরপর তার সাথে শারীরিক সম্পর্ক করার চেষ্টা করলে নউরা তা প্রত্যাখান করতে থাকে। এরপর নউরার স্বামী তার এক আত্মীয়ের সাহায্য নিয়ে নউরাকে ধর্ষণ করে।


নউরার আইনজীবী জানান, নউরার স্বামীর ভাই এবং ২ জন চাচার ছেলে নউরাকে বিবাহিত জীবন সঠিকভাবে পালন করার পরামর্শ দিয়েছিলো। কিন্তু নউরা তা মানতে রাজি হয়নি। তখন নউরাকে একটা ঘরে বন্ধ করে রাখা হয়। এরপর একজন তার বুক চেপে ধরে এবং অন্যজন তার পা চেপে ধরে। নউরার স্বামী তাকে সেই সময় ধর্ষণ করে। এ ঘটনার পরের দিন পুনরায় যখন তার স্বামী তার ইচ্ছার বিরুদ্ধে শারীরিক সম্পর্ক করার চেষ্টা করে, তখন নউরা অনবরত ছুরির আঘাত করতে থাকে স্বামীর ওপর। ঘটনাস্থলেই নউরার স্বামীর মৃত্যু হয়।

এরপর দিশেহারা হয়ে নউরা যখন তার পরিবারের কাছে সাহায্য চান, পরিবার উল্টে তাকেই পুলিশের হাতে তুলে দেয়। নউরার ঘটনায় গোটা বিশ্বের মানবাধিকার সংগঠনের সদস্যরা প্রতিবাদে সামিল হন। সুদানে মেয়েদের ১০ বছর বয়সে বিয়ে আইনত সিদ্ধ এবং বৈবাহিক ধর্ষণ বৈধ।

বৃহস্পতিবারই নউরাকে মৃত্যুদণ্ডের সাজা দেয় আদালত। সুদানে সেই সময় আদালতের বাইরে নউরার সমর্থকরা প্রতিবাদ জানিয়ে চলেছেন। সোশ্যাল মিডিয়াতেও হ্যাশট্যাগ #JusticeforNoura and #SaveNoura খোলা হয়েছে। যাতে মানুষ নউরার সমর্থনে এগিয়ে আসে এবং তার মৃত্যুদণ্ড বাতিল করা হয়।

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০