শিরোনাম

শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে মাসিক বেতন আদায়

বিজয়নগরে প্রধান শিক্ষককে শোকজ

ষ্টাফ রিপোর্টার | মঙ্গলবার, ০৮ মার্চ ২০১৬ | পড়া হয়েছে 735 বার

বিজয়নগরে প্রধান শিক্ষককে শোকজ

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিজয়নগর উপজেলার বুল্লা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক এ.বি.এম রিপনকে অনিয়মের অভিযোগে শোকজ করা হয়েছে। প্রতিমাসে শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে ‘বেতন’ হিসেবে টাকা আদায় ও নিয়ম বহির্ভূত ‘প্যারা শিক্ষক’ নিয়োগের অভিযোগ এনে গত রবিবার উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা বিজেন্দ্র চন্দ্র আচার্য তাকে শোকজ করেন।
অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, বুল্লা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে চারজন শিক্ষক ও সাড়ে তিনশ’ শিক্ষার্থী রয়েছেন।
অভিযোগ রয়েছে ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক বিদ্যালয়ের প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণীর শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে প্রতি মাসে ৫টাকা এবং তৃতীয় শ্রেণী থেকে পঞ্চম শ্রেণীর শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে ১০টাকা করে ‘মাসিক বেতন’ নেন।
গত শনিবার উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) বিজেন্দ্র চন্দ্র আচার্য বিদ্যালয়ে গিয়ে সংশ্লিষ্টদের সাথে কথা বলে এর প্রাথমিক সত্যতা পান। গত রবিবার তিনি এ বিষয়ে অভিযুক্ত শিক্ষককে শোকজ করেন।
ভারপ্রাপ্ত শিক্ষা কর্মকর্তা বিজেন্দ্র চন্দ্র আচার্য গত রবিবার বিকেলে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
এ ব্যাপারে বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি সৈয়দ আহম্মেদ অভিযোগ করে বলেন, সাড়ে তিন শিক্ষার্থীর ওই বিদ্যালয়ে প্যারা শিক্ষকের প্রয়োজন নেই। প্রধান শিক্ষক নিজের সুবিধার্থে প্যারা শিক্ষক দিয়ে ক্লাশ করান।  প্যারা শিক্ষকের কথা বলে অভিযুক্ত শিক্ষক প্রতিমাসে শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে টাকা নিচ্ছেন। পরিচালনা কমিটি এসব বিষয় জানে না।
এ ব্যাপারে অভিযুক্ত ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক এ বি এম রিপন বলেন, ‘আমি নই, বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটি শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে টাকা নিতো। তবে এখন বন্ধ রেখেছে। স্কুলকে ক্ষতিগ্রস্থ করতেই এখন আমার বিরুদ্ধে ধরণের কথা বলা হচ্ছে।


আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০