শিরোনাম

বিজয়নগরে ইউপি চেয়ারম্যান রতনসহ ৪ আসামীর বিরুদ্ধে গ্রেফতারী পরোয়ানা

স্টাফ রিপোর্টার : | শুক্রবার, ২৭ এপ্রিল ২০১৮ | পড়া হয়েছে 344 বার

বিজয়নগরে ইউপি চেয়ারম্যান রতনসহ ৪ আসামীর বিরুদ্ধে গ্রেফতারী পরোয়ানা

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার বিজয়নগর উপজেলার পত্তন ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান কামরুজ্জামান রতনসহ ৪ আসামীর বিরুদ্ধে গ্রেফতারী পরোয়ানা জারি করেছেন বিজ্ঞ সিনিয়র চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট (বিজয়নগর) আদালত।

গত ২৩ এপ্রিল ইউপি চেয়ারম্যান কামরুজ্জামান রতনসহ ৪ আসামীর বিরুদ্ধে ৪২০/ ৪৬৭/ ৪৬৮/ ও ১৪৪ ধারা মোতাবেক এই গ্রেফতারী পরোয়ানা জারি করেন আদালত। অপর আসামীরা হলেন, স্থানীয় পত্তন ইউনিয়ন পরিষদের স্বাস্থ্য সহকারী আতিকুল ইসলাম, একই এলাকার মাহতাব মিয়ার ছেলে হারুন মাষ্টার ও মৃত ইদু মিয়ার স্ত্রী আমেনা খাতুন।


মামলার বাদী পক্ষের আইনজীবী এডঃ সারোয়ার-ই আলম ও এডঃ গোলাপ জানান, বিজ্ঞ আদালত এই মামলার সকল আসামীদের গ্রেফতার করে আদালতে সোপর্দ করতে বিজয়নগর থানার ওসিকে নির্দেশ দিয়েছেন।

মামলার এজাহার সূত্রে জানাযায়, মামলার প্রধান আসামী বিজয়নগর উপজেলার ৬নং পত্তন ইউনিয়ন এলাকার মৃত জামাল উদ্দিনের ছেলে ইউপি চেয়ারম্যান কামরুজ্জামান রতন (৪৫) মামলার ২নং আসামী ইউনিয়ন পরিষদের স্বাস্থ্য সহকারী আতিকুল ইসলাম, ৩নং আসামী হারুন মাষ্টার ও ৪নং আসামী আমেনা খাতুনসহ মামলার সকল আসামীরা পরিকল্পিতভাবে প্রতারণা ও জালিয়াতি করে বাদীনির স্বামীর বিদেশে মৃত্যুর ক্ষতিপূরণের টাকা আত্মসাৎ এবং হাতিয়ে নিতে মামলার প্রধান আসামী ইউপি চেয়ারম্যান কামরুজ্জামান রতন জাতীয়তা সনদ পত্রে বাদীনির স্বামীকে তার নিজের পরিবারের সদস্য মর্মে উল্লেখ করেন যে, বিদেশের মাটিতে মৃত আলামিন অবিবাহিত ছিলেন এবং দায়মুক্ত সনদ পত্রের অঙ্গিকার নামা ও ক্ষমতাপত্রের ডকুমেন্টে মামলার ২ নং ও ৩ নং আসামীগণ সাক্ষী হিসেবে দরখাস্ত করেন। মামলার ৪নং আসামী ঘোষণাকারী হিসেবে টিপসই প্রদান করে বাদীনির স্বামীর প্রাপ্ত বিদেশে মৃত্যুর ক্ষতিপূরণের টাকা আত্মসাৎ করার জন্য চেষ্টা চালান আসামীরা। এর আগে গত বছরের ৫ ডিসেম্বর ২০১৭ইং তারিখে স্থানীয় পত্তন ইউপি এলাকার আৎকাপাড়া গ্রামের মন মিয়ার কন্যা ও মালয়েশিয়া কর্মরত অবস্থায় মৃত্যুবরণকারী বাংলাদেশি যুবক আলামিনের স্ত্রী জুমাইয়া বেগম বাদী হয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিজ্ঞ সিনিয়র চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট (বিজয়নগর) আদালতে মামলাটি দায়ের করেন। আদালত মামলাটি আমলে নিয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা পুলিশের পি.বি.আই শাখাকে সি.আর-৪৮৩-২০১৭ মোতাবেক বিজ্ঞ আদালতে তদন্তের প্রতিবেদন জমা দিতে নির্দেশ দেন।

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১