শিরোনাম

মুক্তিযোদ্ধা হুমায়ূন কবিরের আত্মজীবনীমূলক গ্রন্থ জীবন স্মৃতি-২ এর প্রকাশনা উৎসবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

বিএনপি’র শান্তিপূর্ণ কর্মসূচিতে পুলিশ বাধা দেয় না

| শনিবার, ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ | পড়া হয়েছে 208 বার

বিএনপি’র শান্তিপূর্ণ কর্মসূচিতে পুলিশ বাধা দেয় না

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মোঃ আসাদুজ্জামান খান কামাল এম.পি বলেছেন, বিএনপির কোনো শান্তিপূর্ণ কর্মসূচীতে পুলিশ বাধা দেয় না। সরকার কোন শান্তিপূর্ণ সমাবেশ-মিটিং সেটা রাজনৈতিক হোক সামাজিক হোক কোনটাতেই বাধা দিচ্ছে না। পারমিশন দেয়ার সময় আমাদের আবেদন থাকছে, যাতে কর্মসুচী শান্তিপূর্ণ ভাবে করা হয়। আগামী ২২ ফেব্রুয়ারি ঢাকায় বিএনপির মহা সমাবেশ প্রসঙ্গে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, সম্প্রতি সভা সমাবেশ এর উপর ডিএমপি কমিশনার যে নিষেধাজ্ঞা জারী করেছে তা এখনো প্রত্যাহার হয়নি। সেটা প্রত্যাহার হলে কোথায় সমাবেশ করলে শান্তি শৃংখলা বিঘিœত হবে না তা পুলিশ কমিশনার স্থির করবেন। তিনি বলেন, স্থান নির্ধারণ করবেন ডিএমপি কমিশনার।

আজ শনিবার (১৭.০২.২০১৮) বিকেলে ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহরের উস্তাদ আলাউদ্দিন খাঁ পৌর মিলনায়তনে মুক্তিযোদ্ধা হুমায়ূন কবির এর আত্ম জীবনী মুলক গ্রন্থ জীবন স্মৃতি-২ এর প্রকাশনা উৎসবে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।


পৌর মেয়র মিসেস নায়ার কবির এর সভাপতিত্বে আয়োজিত অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন সংসদ সদস্য র. আ. ম. উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী, চট্টগ্রাম রেঞ্জ পুলিশের ডিআইজি ড. এস এম মনির উজ জামান বিপিএম পিপিএম, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার জেলা প্রশাসক রেজওয়ানুর রহমান, পুলিশ সুপার মিজানুর রহমান, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আল মামুন সরকার। অনুষ্ঠানে গ্রন্থ নিয়ে আলোচনা করেন সাহিত্য একাডেমির সভাপতি কবি জয়দুল হোসেন ও আইডিয়াল রেসিডেন্সিয়াল স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ সোপানুল ইসলাম। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান আলহাজ্ব এডঃ হুমায়ুন কবির। তিনি স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামালের হাতে এবং সংসদ সদস্য র. আ. ম উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরীর হাতে ক্রেস্ট তুলে দেন।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান কামাল এম.পি বলেছেন, আলহাজ্ব এডঃ হুমায়ুন কবীর সারাজীবন দেশ জাতি ও সমাজের উন্নয়নে সারাজীবন অবদান রেখেছেন। তিনি জনমানুষের প্রিয়নেতা এবং ছিলেন দৃঢ়চেতা নেতৃত্ব। তিনি তাঁর আত্মজীবনী আমার জীবন স্মৃতিতে দীর্ঘ সামাজিক, রাজনৈতিক জীবন, মুক্তিযুদ্ধের কথা তুলে ধরেছেন। মানুষের জন্য কাজ করে তিনি মানুষের মন জয় করেছেন। ব্রাহ্মণবাড়িয়ার শান্তি শৃৃঙ্খলা রক্ষা, দাঙ্গা হাঙ্গামা মিমাংসা, অবকাঠামোগত উন্নয়ন, আধুনিকায়ন, শিক্ষার প্রসারে উনার অবদান অনেক। তিনি আজ অসুস্থ, বাকরুদ্ধ, প্রিয় মানুষটির এ অবস্থা দেখে মনে কষ্ট পেয়েছি। তবে উনার গ্রন্থের প্রকাশনা উৎসবে এসে তার প্রতি মানুষের ভালোবাসা দেখেও মুগ্ধ হয়েছি। বাকরুদ্ধ হয়ে তিনি থেমে থাকেন নি। এখনও তিনি সমাজকে এগিয়ে নিয়ে মানুষের কল্যাণে কাজ করতে চেষ্টা করছেন। এটাই একজন সফল দেশপ্রেমি জনপ্রেমি রাজনীতিবিদের অনন্য দৃষ্টান্ত। তিনি আরো বলেন, মুক্তিযুদ্ধের মহান মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণকারী সকল বীরমুক্তিযোদ্ধাদের রয়েছে দেশপ্রেমের নানা ত্যাগ এবং গৌরবোজ্জ্বল দেশপ্রেমের বীরত্বগাঁথার ইতিহাস। বীর মুক্তিযোদ্ধাদের আত্মজীবনী পড়লে নতুন প্রজন্ম দেশপ্রেমের শিক্ষা নিতে পারবে। তিনি সেই শিক্ষায় নতুনপ্রজন্মকে দেশপ্রেমিক নাগরিক হয়ে দেশ ও জাতির কল্যাণ ভূমিকা রাখার আহবান জানান। তিনি বলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা সাবেক উপমন্ত্রী ব্রাহ্মণবাড়িয়ার জনমানুষের প্রিয় নেতা আলহাজ্ব এডভোকেট হুমায়ুন কবীরের আত্মজীবনী মূলক গ্রন্থে মহান মুক্তিযুদ্ধের নানা ঘটনা তুলে ধরেছেন। বইটি পড়ে আমি মুগ্ধ হয়েছি এবং মহান মুক্তিযুদ্ধের সময় ব্রাহ্মণবাড়িয়ার রণাঙ্গনের আমার নানা স্মৃতি মনে পড়ছে।

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০৩১