শিরোনাম

ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌর সভার নির্বাচন

বিএনপির প্রার্থীকে নির্বাচনী প্রচার-প্রচারণায় বাঁধা ও হুমকি দেয়ার অভিযোগ

স্টাফ রিপোর্টার | বৃহস্পতিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২১ | পড়া হয়েছে 179 বার

বিএনপির প্রার্থীকে নির্বাচনী প্রচার-প্রচারণায় বাঁধা ও হুমকি দেয়ার অভিযোগ

আগামী ২৮ ফেব্রুয়ারি ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌরসভার নির্বাচন। দিনক্ষণ ঘনিয়ে আসার সাথে সাথে বাড়ছে নির্বাচনী উত্তাপ। এদিকে সুষ্ঠ ও সুন্দর পরিবেশে নির্বাচন অনুষ্ঠানের দাবি জানিয়ে বিএনপি মনোনীত মেয়র প্রার্থী জহিরুল হক খোকন (ধানের শীষ) অভিযোগ করে বলেন, আওয়ামী লীগের লোকজন তাকে প্রচার-প্রচারণায় বাঁধা দিচ্ছে। হুমকি-ধামকি দেয়া হচ্ছে তার নেতা-কর্মীদের।

বুধবার ২৪শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ দুপুরে ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেসক্লাব মিলনায়তনে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে বিএনপি মনোনীত মেয়র প্রার্থী জহিরুল হক খোকন (ধানের শীষ) এই অভিযোগ করেন।


সংবাদ সম্মেলনে জহিরুল হক খোকন আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী মিসেস নায়ার কবিরের (নৌকা) বিরুদ্ধে নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগ করে বলেন, আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীরা তাঁকে (জহিরুল হক খোকন) ও তার সমর্থকদের নানাভাবে ভয়-ভীতি দেখিয়ে তাদের বিরুদ্ধে মামলা দেয়ার হুমকি দিচ্ছেন।

সংবাদ সম্মেলনে জহিরুল হক খোকন বলেন, পৌরসভার নির্বাচন বিধিমালা ৩ ধারা লঙ্ঘন করে নৌকার প্রার্থী স্থানীয় ইন্ডাস্ট্রিয়েল স্কুল চত্বরে বিশাল নির্বাচনী অফিস করে নৌকার পক্ষে প্রচারণা চালাচ্ছে। পাশাপাশি নির্বাচনী আচরণ বিধিমালার ১১ এর ২ ধারার বিধি লঙ্ঘন করে দলীয় নেতা-কর্মীদের ব্যবহার করে প্রশাসনের সহযোগীতায় অনবরত মিছিল ও হোন্ডা র‌্যালি করছে।

তিনি বলেন, নির্বাচনী আচরণবিধি ১২ ধারায় নির্বাচনী এলাকায় মাত্র ৫টি নির্বাচন ক্যাম্প থাকার কথা থাকলে নৌকার প্রতিকের পক্ষে ৫০ টির বেশি নির্বাচনী ক্যাম্প স্থাপন করা হয়েছে।

সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, নির্বাচন বিধি লঙ্ঘন করে সদর উপজেলার ভাইস চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট লোকমান হোসেন বিভিন্ন জনসভায় ভোটারদেরকে প্রকাশ্যে নৌকায় ভোট দিতে বলেন।

নৌকার প্রার্থীর ইন্ধনে পুলিশ প্রতিটি কেন্দ্রের বিএনপির মনোনীত এজেন্টদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে ভয়-ভীতি দেখিয়ে গ্রেপ্তার ও মামলা করার হুমকি-ধামকি দিচ্ছে।

জহিরুল হক খোকন বলেন, বর্তমান অবস্থায় সুষ্ঠ ভোটের লক্ষণ দেখা যাচ্ছেনা। তিনি নিজের জীবন নিয়ে শংকা প্রকাশ করে সুষ্ঠ ও সুন্দর পরিবেশে নির্বাচন অনুষ্ঠানের জন্য সংশ্লিষ্টদের প্রতি আহবান জানান।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন জেলা বিএনপির আহবায়ক জিল্লুর রহমান, জেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি ও সাবেক পৌর মেয়র হাফিজুর রহমান মোল্লা কচি, সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম সিরাজসহ দলীয় নেতৃবৃন্দ।

এ ব্যাপারে ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌরসভা নির্বাচনে রিটার্নিং কর্মকর্তা ও জেলা নির্বাচন অফিসার মোঃ জিল্লুর রহমান বলেন, নির্বাচনী আচরণবিধি নিয়ে বিএনপির প্রার্থীর অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত স্বাপেক্ষে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০