শিরোনাম

বাঞ্ছারামপুরে গোলাম মোস্তফা কামালের ব্যাপক গণসংযোগ

বাঞ্ছারামপুর প্রতিনিধি : | মঙ্গলবার, ০৬ মার্চ ২০১৮ | পড়া হয়েছে 187 বার

বাঞ্ছারামপুরে গোলাম মোস্তফা কামালের ব্যাপক গণসংযোগ

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষে ব্রাহ্মণবাড়িয়া-০৬ (বাঞ্ছারামপুর) আসনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী গোলাম মোস্তফা কামাল ব্যাপক গণসংযোগ করেছেন। এলাকার হাজার হাজার নেতাকর্মী মেঘনা ফেরীঘাট থেকে বাঞ্ছারামপুর উপজেলা সদর হয়ে ধারিয়ারচর বাজারে এসে পথসভার মাধ্যমে নির্বাচনী প্রচারণা শুরু করে। এ সময় নেতাকর্মীরা বাঞ্ছারামপুরের মাটি, কামাল ভাইয়ের ঘাটি বলে মিছিল করে। বাঞ্ছারামপুর উপজেলা আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ, ছাত্রলীগ ও অঙ্গ সহযোগী সংগঠনের নেতা কর্মীরা গোলাম মোস্তফা কামালের সমাবেশে যোগ দেয়। প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামীলীগের সভানেত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার দিক নির্দেশনা মোতাবেক অর্থনৈতিক ও সামাজিক উন্নয়নের মাধ্যমে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা বিনির্মাণে অনন্য ভূমিকা পালন করার পাশাপাশি বাঞ্ছারামপুর উপজেলাকে এগিয়ে নিয়ে যেতে চান। ঢাকা কলেজ পড়াশুনাকালীন সময়ে ছাত্রলীগের রাজনীতির সাথে জড়িত হন। তারপর ১৯৭৯-৮০ সালে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। তারপর ১৯৮৭-৯৫ সাল পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামীলীগের আইন বিষয়ক সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। বর্তমানে তিনি বাঞ্ছারামপুর উপজেলা আওয়ামীলীগের ১নং সহ-সভাপতি হিসেবে দলকে একটি শক্তিশালী ভিত্তির উপর দাঁড় করাতে বিশেষ ভূমিকা পালন করেন। মনোনয়নের ব্যাপারে শতভাগ আশাবাদী গোলাম মোস্তফা কামাল বলেন, মেধা যোগ্যতা ও সাংগঠনিক দক্ষতায় বিবেচনা করে মনোনয়ন দেয়া হলে তিনি নিশ্চয়ই মনোনয়ন পাবেন। আর মনোনয়ন পেলে বিশাল ব্যবধানে জয়ী হবেন। সেই সাথে উন্নয়ন ও অগ্রগতিতে বাঞ্ছারামপুরকে দ্রুত সামনের দিকে এগিয়ে নিয়ে যাবেন।

উল্লেখ্য, বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের ও গোলাম মোস্তফা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়নকালীন সময়ে এক সাথে ছাত্রলীগের রাজনীতি করতেন। গোলাম মোস্তফা ছিলেন কবি জসীম উদ্দিন হলের নির্বাচিত জিএস। সেই সূত্রতায় এখনো ওবায়দুল কাদেরের সাথে এই নেতার সম্পর্ক অটুট রয়েছে। বিভিন্ন সূত্রে জানা গেছে, ওবায়দুল কাদের ও আবদুস সোবাহান গোলাপের নির্দেশেই গোলাম মোস্তফা নৌকা মার্কায় ভোট চেয়ে গণসংযোগে নামেন। গণসংযোগকালে বিভিন্ন পথসভায় মোস্তফা কামাল বলেন, বাঞ্ছারামপুরে বেকার সমস্যা প্রকট। শিল্পকারখানা গড়ে উঠেনি। আমি নিজে বাঞ্ছারামপুরের মনাইখালীতে একটি শিল্পপার্ক গড়ে তোলার কাজে হাত দিয়েছি। এতে অনেকের কর্মসংস্থান হবে। তিনি আরো বলেন, বাঞ্ছারামপুরকে শিক্ষানগরী হিসেবে দেখতে চাই। এখানে শিক্ষার্থী আছে, কিন্তু শিক্ষা প্রতিষ্ঠান অপ্রতুল। নৌকায় ভোট দিলে সব কিছু মিলিয়ে বাঞ্ছারামপুর উপজেলাটি উন্নয়নের মহাসড়কে উন্নীত হবে। এর আগে গত সপ্তাহে ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করে নিজেকে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নিজেকে নৌকা প্রতীকে প্রার্থী ঘোষণা করেন।


আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১