শিরোনাম

পূর্ব বিরোধের জের

বাঞ্ছারামপুরে এক ব্যক্তির পা কেটে নিয়েছে প্রতিপক্ষের লোকজন

বাঞ্চারামপুর প্রতিনিধি | রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০১৯ | পড়া হয়েছে 325 বার

বাঞ্ছারামপুরে এক ব্যক্তির পা কেটে নিয়েছে প্রতিপক্ষের লোকজন

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বাঞ্ছারামপুরে পূর্ব বিরোধের জের ধরে কালা মিয়া (৪৫) নামে এক ব্যক্তির অর্ধেক পা কেটে নিয়েছে প্রতিপক্ষের লোকজন। এ সময় কালা মিয়ার ছেলে বিপ্লব মিয়ার দুই পায়ের রগও কেটে নেয়া হয়।

গত শুক্রবার বিকেলে উপজেলার রূপসদী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। আহতবস্থায় পিতা-পুত্রকে উদ্ধার করে ঢাকায় পাঠানো হয়েছে। তবে গতকাল শনিবার পর্যন্ত পুলিশ কেটে নেয়া পা উদ্ধার করতে পারেনি। এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।


আহত কালা মিয়া ও তার স্বজনরা জানান, বিভিন্ন বিষয় নিয়ে উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সহ-সভাপতি আবুল বাশারের বিরুদ্ধে কালা মিয়ার দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছে।

এই বিরোধের জেরে গত শুক্রবার বিকেলে আবুল বাশার ও তার সহযোগীরা কালা মিয়া এবং তার ছেলে বিল্পব মিয়াকে (১৯) বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে টেঁটাবিদ্ধ করে। পরে ধারালো দা দিয়ে কালা মিয়ার ডান পায়ের হাঁটু থেকে নিচ পর্যন্ত কেটে নিয়ে যায় তারা। এ সময় কালা মিয়ার ছেলে বিপ্লবের দুই পায়ের রগও কেটে দেয় আবুল বাশার ও তার সহযোগীরা।

খবর পেয়ে পুলিশ ও এলাকাবাসী তাদেরকে উদ্ধার করে প্রথমে বাঞ্ছারামপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদেরকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় প্রেরণ করেন।

এ ব্যাপারে বাঞ্ছারামপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. সালাহ্ উদ্দিন চৌধুরী বলেন, এটি জঘন্য ও বর্বোরচিত কাজ। আহতদের উদ্ধার করে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় পাঠানো হয়েছে। তিনি বলেন, কেটে ফেলা পায়ের অংশ এখনো উদ্ধার করা যায়নি। পুলিশ আসামীদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা করছে।

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০৩১