[count_down]

শিরোনাম

বাঞ্ছারামপুরে একই রাতে চার গাড়িতে ডাকাতি

বাঞ্চারামপুর প্রতিনিধি | শনিবার, ৩০ নভেম্বর ২০১৯ | পড়া হয়েছে 121 বার

বাঞ্ছারামপুরে একই রাতে চার গাড়িতে ডাকাতি

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বাঞ্ছারামপুরে একই রাতে প্রবাসীর গাড়িসহ চার গাড়িতে ডাকাতি হয়েছে। ডাকাতরা ওইসব গাড়ির চালক ও যাত্রীদের অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে তাদের কাছে থাকা নগদ টাকা, মোবাইল ফোন ও মূল্যবান জিনিসপত্র লুটে নেয়। গত শুক্রবার রাতে উপজেলার. আইয়ূবপুর ইউনিয়নের বাঞ্ছারামপুর-নবীনগর সড়কে এই ডাকাতির ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় জড়িত থাকার সন্দেহে পুলিশ দুইজনকে আটক করেছে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও ভুক্তভোগীরা জানান, শুক্রবার মধ্যরাত তিনটার দিকে বাঞ্ছারামপুর-নবীনগর সড়কের চরছয়ানী এলাকার বেইলি সেতুর পশ্চিম দিকের রাস্তায় গাছের গুড়ি ফেলে কয়েকটি গাড়ির গতিরোধ করে একদল ডাকাত। এ সময় তারা দেশীয় অস্ত্রের মুখে দুইটি ট্রাক, একটি অ্যাম্বুলেন্স ও একটি মাইক্রোবাসের যাত্রীদের কাছ থেকে নগদ টাকা, বিভিন্ন জিনিসপত্র, তিনটি মোবাইল ফোন লুটে নেয়। ডাকাতরা বিদেশ থেকে আসা মাইক্রোবাসের যাত্রী আলমগীর হোসেনের কাছ থেকে পাঁচ হাজার রিয়াল ও বিদেশী মালামাল লুটে নেয়।


ভুক্তভোগী নবীনগর উপজেলার সাহেবনগর গ্রামের বাসিন্দা মোহাম্মদ রফিক বলেন, শুক্রবার রাতে একটি মাইক্রোবাসযোগে সৌদি আরব থেকে দেশে আসা তার শ্যালক আলমগীর হোসেনকে বিমানবন্দর থেকে বাঞ্ছারামপুর নিজ বাড়িতে নিয়ে যাওয়ার পথে গভীর রাতে চরছয়ানি এলাকায় রাস্তায় গাছের গুড়ি ফেলে ৭/৮ জন ডাকাত মাইক্রোবাসটি আটক করে। এ সময় ডাকাতরা একটি অ্যাম্বুলেন্স, দুটি ট্রাক ও আটক করে। পরে ডাকাতরা মাইক্রোবাসের সামনের গ্লাস ভেঙ্গে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে তাদের কাছ থেকে তিনটি মোবাইল ফোন, নগদ টাকা ও আলমগীরের কাছ থেকে পাঁচ হাজার রিয়েল লুটে নেয়।

এ ব্যাপারে বাঞ্ছারামপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সালাহ উদ্দিন চৌধুরি বলেন, ডাকাতি নয়, ডাকাতির চেষ্টা হয়েছিল। আমরা সন্দেহভাজন দুইজনকে আটক করেছি।

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০