শিরোনাম

বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রসেনার ঈদ পুণর্মিলনী অনুষ্ঠিত

| মঙ্গলবার, ২৬ জুন ২০১৮ | পড়া হয়েছে 191 বার

বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রসেনার ঈদ পুণর্মিলনী অনুষ্ঠিত

বাংলাদেশ ইসলামী  ছাত্রসেনা ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা শাখার ঈদ পুণর্মিলনী জেলা ছাত্রসেনার সভাপতি মুহাম্মদ ইকবাল হোসাইন শাহ বাবুলের সভাপতিত্বে ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেস ক্লাব মিলনায়তনে শনিবার (২৩.০৬.২০১৮) সকাল ১১ টায় অনুষ্ঠিত হয়।

এতে উদ্বোধক ছিলেন জেলা  ইসলামী ফ্রন্টের সভাপতি পীরে তরিক্বত নাজিম উদ্দিন আল ক্বাদেরী। প্রধান অতিথি ছিলেন ইসলামী ফ্রন্টের যুগ্ম সাংগঠণিক সচিব সৈয়দ মোজাফফর আহম্মদ মোজাদ্দেদী। তিনি তার বক্তব্যে বলেন, হিজরী দ্বিতীয় সনে অর্থাৎ মহানবী মুহাম্মদ সাল্লালাহু আলাইহি ওয়া সাল্লালামার হিজরতের দ্বিতীয় বছর বদর প্রান্তরে  মুসলমান আর কাফেরদের মধ্যে ঐতিহাসিক বদর যুদ্ধ সংগঠিত হয়, বদর যুদ্ধে মুসলমানবাহিনী জয় লাভ করে এই বছরই উভয় ঈদের প্রবর্তন ও সুচনা হয়। বদর বিজয়ের ১৩ দিন পর ১ শাওয়াল প্রথম ঈদুল ফিতর (রোজার ঈদ) উদযাপন করা হয় এবং মদিনার সুদখোর মহাজন বানু কায়নুকা সম্প্রদায়কে পরাস্ত করার পর ১০ জিলহজ্ব ঈদুল আজহা (কুরবানি ঈদ) পালন করা হয়। তিনি আরো বলেন, সাহাবায়ে কেরামগণ ত্যাগ-সাধনা ও প্রিয় নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি সাল্লালামার প্রেম ও ভালবাসার চেতনায় উদ্বুদ্ধ হয়ে বিপুল সংখ্যক কাফেরদের মোকাবেলায় ইসলামের বিজয়ের সূমহান পতাকা উত্তোলন করে বিশ্বে শান্তি প্রতিষ্ঠা করে ছিল। মানুষ আজ আহলে সুন্নাত ওয়াল জামা’আতের সঠিক রূপরেখা ও কুরআন সুন্নাহর আদর্শ ভুলে গিয়ে মানবগড়া মতবাদকে লালন করার কারণেই ব্যক্তি, পরিবার, সমাজ, রাষ্ট্র ও আন্তর্জাতিক অঙ্গন সহ সকল ক্ষেত্রে চরম অশান্তি ও হতাশা বিরাজ করছে। তাই কুরআন সুন্নাহর সঠিক আদর্শ বাস্তবায়ন ও চর্চার মাধ্যমে আহলে সুন্নাত ওয়াল জামা’য়াতের মতাদর্শের আলোকে এবং সাহাবায়ে কেরামের মডেলে সুন্দর সমাজ বিনির্মাণের জন্য ছাত্রসেনার সকল নেতা কর্মীকে বলেন, সকল ভেদাভেদ ভুলে গিয়ে সাংগঠণিক ভাবে ঐক্যবদ্ধ হয়ে দেশে শান্তি প্রতিষ্ঠা করতে হবে।


প্রধান আলোচক ছিলেন ইসলামী ফ্রন্টের যুগ্ম সাংগঠণিক সচিব আলহাজ্ব অ্যাড. মুহাম্মদ ইসলাম উদ্দিন দুলাল।

বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা ইসলামী ফ্রন্টের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক গোলাম মাওলা, সহ-সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. সায়েদুর রহমান আওলাদ, অর্থ সম্পাদক সায়েদুজ্জামান জাবের, প্রচার সম্পাদক সৈয়দ আবুল বাশার, দপ্তর  সম্পাদক মুহাম্মদ সায়েদুর রহমান রেজভী, নবীনগর উপজেলা ইসলামী ফ্রন্টের সভাপতি পীরে তরিক্বত মোবারক আলী, নবীনগর উপজেলা ইসলামী ফ্রন্টের সাধারণ সম্পাদক সালা উদ্দিন আইয়ুবী, মীর সফি উল্লাহ, জেলা যুবসেনার সহ সাংগঠণিক সম্পাদক যুবনেতা রেজাউল করিম।

প্রধান বক্তা ছিলেন বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রসেনা কেন্দ্রীয় পরিষদের সহ-সাধারণ সম্পাদক ছাত্রনেতা মোহাম্মদ জাবের হোসাইন।

বিশেষ বক্তা ছিলেন ছাত্রসেনার কেন্দ্রীয় পরিষদের দাওয়া বিষয়ক সম্পাদক ছাত্রনেতা মোহাম্মদ রফিকুল ইসলাম।

জেলা ছাত্রসেনার সাধারণ সম্পাদক ছাত্রনেতা জোবাইর আহাম্মদ রানার সঞ্চালনায় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য প্রদান করেন সদর উপজেলার সভাপতি মোহাম্মদ জাকির হোসেন জিকু, বিজয়নগর উপজেলা শাখার সাবেক সভাপতি জহিরুল ইসলাম অপু, কসবা উপজেলা শাখার সাবেক সভাপতি সভাপতি মুহাম্মদ উজ্জল হোসাইন, সরাইল উপজেলা শাখার সভাপতি মাজহারুল ইসলাম, আখাউড়া উপজেলা শাখার সভাপতি সৈয়দ বাকি বিল্লাহ নূরী, সরাইল উপজেলার সহ সভাপতি আমান উল্লাহ,  সাইফুল ইসলাম রিফাত, মুনঈম চৌধুরী মুন্না, মুহাম্মদ গোলজার হোসেন, আশেক এলাহী, মুহাম্মদ বাইজিদ হোসাইন, মুহাম্মদ রমজান আলী, মুহাম্মদ উসমান গনী, মুহাম্মদ মাহমদুল হাসান সুজন, মুহাম্মদ মতিউর রহমান, মুহাম্মদ আবু সালে মুহাম্মদ নাঈমুল হুদা, মুহাম্মদ ভাসানী সরকার, মুহাম্মদ আইনুল হক, মাহবুবুল আলম।-প্রেস বিজ্ঞপ্তি

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০৩১