শিরোনাম

ব্রাহ্মণবাড়িয়া-খারঘর গণকবর রাস্তার বেহলা অবস্থা

পশ্চিমাঞ্চলের লোকদের জনদুর্ভোগ

শামীম-উন-বাছির : | রবিবার, ২২ অক্টোবর ২০১৭ | পড়া হয়েছে 313 বার

পশ্চিমাঞ্চলের লোকদের জনদুর্ভোগ

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা সদরের প্রধান ডাকঘরের সম্মুখে অবস্থিত তোফায়েল আজম মনুমেন্ট তথা মঠের গোড়া হতে পশ্চিমাঞ্চলের বড়াইল ইউনিয়নের খারঘর গণকবর এলাকা পর্যন্ত বিস্তৃত সুদীর্ঘ রাস্তা বা সড়কটি বলতে গেলে ঐ এলাকার সাথে সদরের যোগাযোগের অন্যতম মাধ্যম। এটি যেমন যাত্রীবাহী যানবাহন চলাচলের জন্য আরামদায়ক এবং নিরাপদ হওয়া অত্যাবশ্যক, তেমনি পথচারী যাতায়াতের জন্যও খোলামেলা সহজবোধ্য হওয়া প্রয়োজন। কিন্তু বাস্তবে তা নেই। রাস্তাটির পৌর এলাকা ভুক্ত দাড়িয়াপুর অংশসহ নাটাই দক্ষিণ ইউনিয়ন, সাদেকপুর ইউনিয়ন এবং বড়াইল ইউনিয়ন অন্তর্ভূক্ত বেশির ভাগ অংশই হাজারো ছোট বড় ভাঙ্গনে চলাচলের প্রায় অযোগ্য বহুদিন যাবত। এরপরও জীবন ঝুঁকি নিয়ে নিরুপায় হয়ে দুর্ভোগ মোকাবিলা করে সবাই যাতায়াত করছেন প্রায় প্রতিদিনই। মোটর সাইকেল ও সিএনজি চালিত অটোরিক্সাযোগে যাতায়াতকালে অনেকেই দুর্ঘটনার শিকার হচ্ছেন। চলাচলের নিরাপত্তার স্বার্থে রাস্তার ২ পার্শ্ব খালি থাকার নিয়ম থাকলেও বাস্তবতা উল্টো। রাস্তার পার্শ্বের ফুটপাতের খোলা জায়গা অবৈধ ভরাট দখলের মাধ্যমে দোকান বসানোর কারণে রাস্তার সংলগ্ন এলাকা ইউপি অফিস, স্কুল কলেজে জনসাধারণ এবং ছাত্র-ছাত্রীর নিরাপদ্দ যাতায়াত প্রায় বন্ধ হওয়ার উপক্রম হয়ে পড়েছে গত কয়েক বছর যাবত। পাশাপাশি রাস্তার জায়গা সংকুচিত হয়ে পড়ায় দুই বিপরীত দিকের গাড়ি পাশকাটিয়ে চলা কঠিন হয়ে পড়েছে। পরিস্কার পরিচ্ছন্নতার অভাব ও ভাঙ্গনের কারণে অধিকাংশ সময়ই ময়লা আবর্জনার সাথে পানি জমে থাকে। সাদেকপুর ইউনিয়ন অংশে দামচাইল বাজার সংলগ্ন দক্ষিণ পার্শ্বের খাল ভরাট করে প্রভাবশালী মহল দোকান নির্মাণ করায় পানি চলাচল বন্ধ হয়ে গেছে। ফলে, খালের পানি উপচে রাস্তায় উঠে পড়ায় যাতায়াতে সমস্যা হচ্ছে। ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর হতে খারঘর গণকবর পর্যন্ত বিস্তৃত এই রাস্তাটি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়ন প্রকল্পের অগ্রাধিকার তালিকায় থাকলেও এটির বেহাল অবস্থা নিরসনে কারোই সুনজর নেই।
014
এ বিষয়ে জানতে চাইলে সাদেকপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান অ্যাড. আবদুল হাই বলেন, ‘রাস্তার ফুটপাত এবং খাল দখলকারীরা প্রভাবশালী হওয়ায় এদের বিরুদ্ধে কোন ব্যবস্থা নেয়া যাচ্ছে না। এরা খালের ভরাটকৃত জায়গায় দোকান বসিয়ে ভাড়া দিয়ে বাণিজ্য করছে।’
012
নাটাই দক্ষিণ ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান নাজমুল হক বলেন, ‘কতিপয় প্রভাবশালী ব্যক্তি সম্পূর্ণ অবৈধভাবে ফুটপাত দখল করে ব্যবসা করছে। যা অনৈতিক। এ বিষয়ে প্রশাসনিক ব্যবস্থা নেয়ার জন্য আমরা কিছু দিনের মধ্যেই ইউএনও মহোদয়ের সাথে আলোচনা করবো।’ তিনি আরো বলেন, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার উন্নয়নের রূপকার, কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগের সদস্য, পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটি ও জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি র.আ.ম. উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী এম.পি মহোদয়ের সাথে এই রাস্তার ব্যাপারে আমার আলোচনা হয়েছে। এম.পি মহোদয়ের সাথে আলোচনাকালে তিনি এক পর্যায়ে আমাকে আশ্বস্ত করে বলেন, প্রধানমন্ত্রীর প্রতিশ্রুতির উক্ত রাস্তাটি অগ্রাধিকার ভিত্তিতে খুব শীঘ্রই পুনরায় সংস্কার কাজ করা হবে বলে জানান।
013
ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলা আওয়ামী যুবলীগের সভাপতি আলী আজম এ বিষয়ে বলেন, ‘কতিপয় ব্যক্তি সিন্দুরা সহ তৎসংলগ্ন এলাকায় বালু মাটি ভরাটের ড্রেজার চালানোর কারণে পয়াগ নরসিংসার এলাকায় রাস্তাটির ব্যাপক অংশে ভাঙ্গনে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।’ তিনি বলেন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর আসনের সংসদ সদস্য র.আ.ম. উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী এলাকার স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসা তথা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ব্যাপক উন্নয়ন করেছেন। তিনি তাঁর উন্নয়ন কর্মসূচীর আওতায় এই রাস্তাটির প্রয়োজনীয় সংস্কারসহ উন্নয়ন কাজও করবেন বলে আমাদের আশ্বস্ত করেছেন। উনার উদ্যোগে রেল লাইনের পাশ দিয়ে বড় হরণ হতে ছোট হরণ পর্যন্ত রাস্তার কাজের টেন্ডার আহবান করা হয়েছে। কিছুদিনের মধ্যেই দায়িত্বপ্রাপ্ত ঠিকাদার এর নির্মাণ কাজ শুরু করবেন।


আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০