শিরোনাম

পরীক্ষা না দিয়েও পাশ ৩ শিক্ষার্থী!

বাঞ্ছারামপুর প্রতিনিধি : | রবিবার, ০৭ জানুয়ারি ২০১৮ | পড়া হয়েছে 205 বার

পরীক্ষা না দিয়েও পাশ ৩ শিক্ষার্থী!

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার বাঞ্ছারামপুর উপজেলায় প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী (পিইসি) পরীক্ষা না দিয়েও তিন শিক্ষার্থী পাস করার ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনা জানাজানি হলে শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও অভিভাবক মহলে তোলপাড় শুরু হয়।
স্থানীয় স্কুল সূত্রে জানা গেছে, গত ৩০ ডিসেম্বর সারা দেশে একযোগে প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশিত হয়। এর মধ্যে বাঞ্ছারামপুর উপজেলার জয়কালিপুর সরকারি আনন্দ প্রাথমিক বিদ্যালয় এবং কদমতুলী সরকারি আনন্দ প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তিন শিক্ষার্থী পরীক্ষায় ২ টি পরীক্ষায় অংশ নিয়ে বাকী পরীক্ষাগুলো দেয়নি। বিষয়টি জানাজানি হলে হতবাক হন চার শিক্ষার্থীর বাবা-মা সহ স্থানীয়রা।
পরীক্ষা না দিয়ে পাস করা শিক্ষার্থীরা হলো-উপজেলার জয়কালিপুর সরকারি আনন্দ স্কুলের শিহাব উদ্দিন (প্রাপ্ত জিপিএ-১.৫৮), সাথি আক্তার (প্রাপ্ত জিপিএ-১.৬৬), কদমতুলী সরকারি আনন্দ প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ছাত্র মোশারফ হোসেন (প্রাপ্ত জিপিএ-২.৩৩) এ ফলাফল দেখে হতবাক হয়ে যান সহপাঠী ও তাদের অভিভাবকসহ এলাকার লোকজন।
এ নিয়ে পুরো এলাকায় সমালোচনার ঝড় বইছে। বিষয়টি স্বীকার করেছেন সংশ্লিষ্ট স্কুলের প্রধান শিক্ষকগণসহ বাঞ্ছারামপুর উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মো. নৌসাদ মাহমুদ বলেন, ‘আমাদের কোন প্রকার ভুলের কারনে এমনটি ঘটৈনি। আমরা উল্লেখিত ৩ শিক্ষার্থীর ৪টি পরীক্ষায় অনুপস্থিতির রেকর্ড আমরা পার্শ্ববর্তী নবীনগর শিক্ষা অফিসে পরীক্ষার খাতার সাথে পাঠিয়েছিলাম। তারাই এমন গুরুতর ভুল করেছেন।’
নবীনগর প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তার সাথে যোগাযোগ করা হলে তারা এ বিষয়টি কথা বলতে নারাজ।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা সুব্রত কুমার বণিক বলেন, ‘বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হবে। তাদের ফলাফল বাতিলের জন্য ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।’


আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০৩১